ঢাকা , শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
Logo ঢাকায় সংবাদ সম্মেলনে কান্নাজড়িত কণ্ঠে আঞ্জুমান আরা Logo দৌলতপুরে ব্র্যাক শাখা অফিসের উদ্বোধন Logo তানোরে ইউপি চেয়ারম্যানের মৃত্যুতে শোকসভা ও মিলাদ Logo তানোরে গরু মোটাতাজা করণে নিষিদ্ধ ওষুধের রমরমা বাণিজ্যে Logo উচ্চ আদালতে রিট পিটিশন দায়েরঃ ভোট গ্রহণের ৫ দিন আগে যশোর সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন স্থগিত Logo যশোরে ৭০ লাখ টাকা ফেরত না দিয়ে প্রতারণার অভিযোগে আদালতে মামলা Logo তানোর পোস্ট অফিস থেকে টাকা গায়েবঃ ফেরত পেতে গ্রাহকের আত্মহত্যার হুমকি Logo নড়াইল সদর উপজেলা নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ ও বিতর্কিত করার চেষ্টার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন Logo বোয়ালমারীতে চেয়ারম্যান প্রার্থী লিটু শরীফের গণমাধ্যম কর্মীদের সাথে মতবিনিময় Logo প্রেম প্রস্তাবে ব্যর্থ হয়ে এডিস নিক্ষেপকারী যুবকের যাবজ্জীবন কারাদন্ড
প্রতিনিধি নিয়োগ
দৈনিক সময়ের প্রত্যাশা পত্রিকার জন্য সারা দেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ করা হচ্ছে। আপনি আপনার এলাকায় সাংবাদিকতা পেশায় আগ্রহী হলে যোগাযোগ করুন।

এলাকার মাননীয় সাংসদ ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের দৃষ্টি আকর্ষণ

লোহাগাড়া উপজেলার কলাউজান ইউনিয়নের টংকাবতী নদীর ভাঙ্গন থেকে রক্ষার জন্য সি সি ব্লক দিয়ে বেড়িবাঁধ নির্মাণ জরুরি । চট্টগ্রাম জেলার লোহাগাড়া উপজেলার কলাউজান ইউনিয়নের ০৮ নং ওয়ার্ডের মিয়াজিপাড়া একটা ঐতিহ্যবাহী এলাকা।
এই এলাকায় বসতভিটা নিয়ে সহস্রাধিক লোকের বসবাস, এই এলাকা জুড়ে রয়েছে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পূর্ব কলাউজান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়,কলাউজান দারুচ্ছুন্নাহ আলিম মাদ্রাসা, মিয়াজি পাড় বায়তুশ শরফ জামে মসজিদ ও গনকবরস্থান।
এলাকাটি টংকাবতী নদীর তীরবর্তী হওয়ায় নদী ভাঙনের কবলে পড়ে । বেশ কয়েক বছর ধরে বর্ষা মৌসুমে উজান থেকে আসা পাহাড়ি ঢল ও নদীর স্রোতে কুল ভেঙে বিলীন হয়ে গেছে অসংখ্য ঘরবাড়ি ও বসতভিটা নিঃস্ব হয়েছে সহস্রাধিক পরিবার।
এই ধারা অব্যাহত থাকলে এলাকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, মসজিদ, মাদ্রাসা, কবরস্থানসহ ভাঙনের হুমকির সম্মুখীন হবে বলে জানিয়ছেন স্থনিয় বাসিন্দv সাবেক ছvত্রনেতv মোঃ নাজিম উদ্দিন । নদী ভাঙ্গন থেকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের দুরত্ব কিছু কিছু অংশে ৩০ গজ কিংবা ৭০ হাতের কাছাকাছি।
জরুরি ভিত্তিতে নদী ভাঙ্গন যদি রোধ করা না হয়, আগামী কয়েক বছরে অসংখ্য বসতভিটা, বাড়ি ঘর,শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যাবে বলে জvনvন তিনি । জরুরি ভিত্তিতে ভাঙ্গন এলাকায় পাথর ঢালাই অথবা নদীর গতিবেগ অন্য দিকে ফিরিয়ে না দিলে মিয়াজি পাড়া এলাকাবাসী ভয়াবহ ক্ষয়ক্ষতির সম্মুখীন হবেন।
যেমনটি হয়েছিল চরম্বার রাজঘাটাবাসী। শেষমেশ নদীর গতি বেগ ফিরিয়ে দিয়ে রাজঘাটাবাসী রক্ষা পেয়েছিল। তাই এলাকার জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, এলাকার মাননীয় সাংসদ ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের সরজমিন পরিদর্শন মূলক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে ব্লকদিয়ে বেড়িবাঁধ নির্মাণ করে বসতবাড়ির নিরাপত্তার ব্যবস্থা করতে সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন জানিয়ছেন এলাকাবাসীরা |
মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিন, কলাউজান ইউনিয়ন , উপজেলা লোহাগাড়া, চট্টগ্রাম।
Tag :
এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

ঢাকায় সংবাদ সম্মেলনে কান্নাজড়িত কণ্ঠে আঞ্জুমান আরা

error: Content is protected !!

এলাকার মাননীয় সাংসদ ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের দৃষ্টি আকর্ষণ

আপডেট টাইম : ০১:৪৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ৫ সেপ্টেম্বর ২০২১
লোহাগাড়া উপজেলার কলাউজান ইউনিয়নের টংকাবতী নদীর ভাঙ্গন থেকে রক্ষার জন্য সি সি ব্লক দিয়ে বেড়িবাঁধ নির্মাণ জরুরি । চট্টগ্রাম জেলার লোহাগাড়া উপজেলার কলাউজান ইউনিয়নের ০৮ নং ওয়ার্ডের মিয়াজিপাড়া একটা ঐতিহ্যবাহী এলাকা।
এই এলাকায় বসতভিটা নিয়ে সহস্রাধিক লোকের বসবাস, এই এলাকা জুড়ে রয়েছে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পূর্ব কলাউজান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়,কলাউজান দারুচ্ছুন্নাহ আলিম মাদ্রাসা, মিয়াজি পাড় বায়তুশ শরফ জামে মসজিদ ও গনকবরস্থান।
এলাকাটি টংকাবতী নদীর তীরবর্তী হওয়ায় নদী ভাঙনের কবলে পড়ে । বেশ কয়েক বছর ধরে বর্ষা মৌসুমে উজান থেকে আসা পাহাড়ি ঢল ও নদীর স্রোতে কুল ভেঙে বিলীন হয়ে গেছে অসংখ্য ঘরবাড়ি ও বসতভিটা নিঃস্ব হয়েছে সহস্রাধিক পরিবার।
এই ধারা অব্যাহত থাকলে এলাকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, মসজিদ, মাদ্রাসা, কবরস্থানসহ ভাঙনের হুমকির সম্মুখীন হবে বলে জানিয়ছেন স্থনিয় বাসিন্দv সাবেক ছvত্রনেতv মোঃ নাজিম উদ্দিন । নদী ভাঙ্গন থেকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের দুরত্ব কিছু কিছু অংশে ৩০ গজ কিংবা ৭০ হাতের কাছাকাছি।
জরুরি ভিত্তিতে নদী ভাঙ্গন যদি রোধ করা না হয়, আগামী কয়েক বছরে অসংখ্য বসতভিটা, বাড়ি ঘর,শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যাবে বলে জvনvন তিনি । জরুরি ভিত্তিতে ভাঙ্গন এলাকায় পাথর ঢালাই অথবা নদীর গতিবেগ অন্য দিকে ফিরিয়ে না দিলে মিয়াজি পাড়া এলাকাবাসী ভয়াবহ ক্ষয়ক্ষতির সম্মুখীন হবেন।
যেমনটি হয়েছিল চরম্বার রাজঘাটাবাসী। শেষমেশ নদীর গতি বেগ ফিরিয়ে দিয়ে রাজঘাটাবাসী রক্ষা পেয়েছিল। তাই এলাকার জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, এলাকার মাননীয় সাংসদ ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের সরজমিন পরিদর্শন মূলক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে ব্লকদিয়ে বেড়িবাঁধ নির্মাণ করে বসতবাড়ির নিরাপত্তার ব্যবস্থা করতে সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন জানিয়ছেন এলাকাবাসীরা |
মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিন, কলাউজান ইউনিয়ন , উপজেলা লোহাগাড়া, চট্টগ্রাম।