ঢাকা , রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
প্রতিনিধি নিয়োগ
দৈনিক সময়ের প্রত্যাশা পত্রিকার জন্য সারা দেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ করা হচ্ছে। আপনি আপনার এলাকায় সাংবাদিকতা পেশায় আগ্রহী হলে যোগাযোগ করুন।

দৌলতপুরে বাক-প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীকে সংবর্ধনা

সারা দেশে প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের মধ্যে সেরা চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগীর পুরস্কার লাভ করায় কুষ্টিয়ার দৌলতপুরের এক বাক প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীকে সংবর্ধনা দিয়েছে  দৌলতপুর উপজেলা প্রশাসন। ঐ শিক্ষার্থীর কৃতিত্বে গর্বিত সংশ্লিষ্ট শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও উপজেলা প্রশাসন যৌথভাবে এ সংবর্ধনা প্রদান করে।

দৌলতপুর প্রতিবন্ধী ও অটিজম বিদ্যালয়ের হলরুমে আজ বৃহস্পতিবার বিকালে উপজেলা প্রশাসনের সহযোগীতায় ও দৌলতপুর প্রতিবন্ধি ও অটিজম বিদ্যালয়ের আয়োজনে এ সংবর্ধনা প্রদান করা হয়। এর আগে গত ৩০ অক্টোবর উপজেলা পরিষদ চত্বরে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের এক লক্ষ টাকার একটি চেক ওই শিক্ষার্থীসহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেন, স্থানীয় সংসদ সদস্য সরোয়ার জাহান বাদশাহ।

বাক প্রতিবন্ধী ওই শিক্ষার্থী দৌলতপুর প্রতিবন্ধী ও অটিজম বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রী এবং উপজেলার হোগলবাড়িয়া ইউনিয়নের তারাগুনিয়া থানার মোড় পল্লী বিদ্যুৎ অফিস এলাকার মৃত আনিসুর রহমানের মেয়ে শারমিন আক্তার।

বিদ্যালয় সূত্রে জানাগেছে, গেল বছর বাংলা নববর্ষের আগে সারাদেশ থেকে প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে তাদের আঁকা ছবি, প্রতিবন্ধী সেবা সাহায্যে কেন্দ্রের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী দপ্তরে পাঠানো হয়েছিলো। তার মধ্যে দৌলতপুর প্রতিবন্ধী ও অটিজম বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণীর শিক্ষার্থী শারমিন আক্তারের আঁকা একটি গ্রামীণ দৃশ্যের ছবি দেশ সেরা ছবি নির্বাচিত হয় এবং প্রাধান মন্ত্রীর ১৪৩০ সনের বালা নববর্ষের শুভেচ্ছা কার্ডে তা ব্যবহৃত হয়।

এ বিষয়ে বিদ্যালয়টির সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ওবায়দুল্লাহ বলেন, আমরা দৌলতপুর প্রতিবন্ধি ও অটিজম বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীর এ কৃতিত্বে আমরা গর্বিত এবং আনন্দিত। সামান্য পৃষ্ঠপোষকতা পেলে আমাদের সমাজে পিছিয়ে পড়া প্রতিবন্ধি ও অটিজম শিক্ষার্থীরাও ভাল কিছু করে দেখাতে পারে শারমিন আক্তার তার প্রমাণ রেখেছেন। উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে পিছিয়ে পড়া এ শিক্ষার্থীদের জন্য সকল প্রকার সহযোগীতা করা হবে বলে ইউএনও জানিয়েছেন।

Tag :
এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

জনপ্রিয় সংবাদ

খেলাধুলা মানসিক বিকাশ ও শরীর গঠনে সহায়তা করেঃ -লিয়াকত সিকদার

error: Content is protected !!

দৌলতপুরে বাক-প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীকে সংবর্ধনা

আপডেট টাইম : ০৮:৩১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৯ নভেম্বর ২০২৩
সারা দেশে প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের মধ্যে সেরা চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগীর পুরস্কার লাভ করায় কুষ্টিয়ার দৌলতপুরের এক বাক প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীকে সংবর্ধনা দিয়েছে  দৌলতপুর উপজেলা প্রশাসন। ঐ শিক্ষার্থীর কৃতিত্বে গর্বিত সংশ্লিষ্ট শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও উপজেলা প্রশাসন যৌথভাবে এ সংবর্ধনা প্রদান করে।

দৌলতপুর প্রতিবন্ধী ও অটিজম বিদ্যালয়ের হলরুমে আজ বৃহস্পতিবার বিকালে উপজেলা প্রশাসনের সহযোগীতায় ও দৌলতপুর প্রতিবন্ধি ও অটিজম বিদ্যালয়ের আয়োজনে এ সংবর্ধনা প্রদান করা হয়। এর আগে গত ৩০ অক্টোবর উপজেলা পরিষদ চত্বরে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের এক লক্ষ টাকার একটি চেক ওই শিক্ষার্থীসহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেন, স্থানীয় সংসদ সদস্য সরোয়ার জাহান বাদশাহ।

বাক প্রতিবন্ধী ওই শিক্ষার্থী দৌলতপুর প্রতিবন্ধী ও অটিজম বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রী এবং উপজেলার হোগলবাড়িয়া ইউনিয়নের তারাগুনিয়া থানার মোড় পল্লী বিদ্যুৎ অফিস এলাকার মৃত আনিসুর রহমানের মেয়ে শারমিন আক্তার।

বিদ্যালয় সূত্রে জানাগেছে, গেল বছর বাংলা নববর্ষের আগে সারাদেশ থেকে প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে তাদের আঁকা ছবি, প্রতিবন্ধী সেবা সাহায্যে কেন্দ্রের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী দপ্তরে পাঠানো হয়েছিলো। তার মধ্যে দৌলতপুর প্রতিবন্ধী ও অটিজম বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণীর শিক্ষার্থী শারমিন আক্তারের আঁকা একটি গ্রামীণ দৃশ্যের ছবি দেশ সেরা ছবি নির্বাচিত হয় এবং প্রাধান মন্ত্রীর ১৪৩০ সনের বালা নববর্ষের শুভেচ্ছা কার্ডে তা ব্যবহৃত হয়।

এ বিষয়ে বিদ্যালয়টির সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ওবায়দুল্লাহ বলেন, আমরা দৌলতপুর প্রতিবন্ধি ও অটিজম বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীর এ কৃতিত্বে আমরা গর্বিত এবং আনন্দিত। সামান্য পৃষ্ঠপোষকতা পেলে আমাদের সমাজে পিছিয়ে পড়া প্রতিবন্ধি ও অটিজম শিক্ষার্থীরাও ভাল কিছু করে দেখাতে পারে শারমিন আক্তার তার প্রমাণ রেখেছেন। উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে পিছিয়ে পড়া এ শিক্ষার্থীদের জন্য সকল প্রকার সহযোগীতা করা হবে বলে ইউএনও জানিয়েছেন।