ঢাকা , রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
প্রতিনিধি নিয়োগ
দৈনিক সময়ের প্রত্যাশা পত্রিকার জন্য সারা দেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ করা হচ্ছে। আপনি আপনার এলাকায় সাংবাদিকতা পেশায় আগ্রহী হলে যোগাযোগ করুন।

পদ্মায় ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানঃ ৫ জেলে আটক ৮ হাজার মিটার জাল ধ্বংস

সোমবার (৩০ অক্টোবর ২৩) রাতে ফরিদপুরের সদরপুর উপজেলার পদ্মা ও আড়ীয়াল খাঁ নদের বুকে বিভিন্ন স্পটে মা ইলিশ সংরক্ষণ অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আহসান মাহমুদ রাসেল।
অভিযান কালে মা ইলিশ ধরার অপরাধে ৫ জন জেলেকে আটক এবং ৮ হাজার মিটার জাল ও ৭ কেজি ইলিশ মাছ জব্দ করা হয়।
জব্দকৃত জাল নদীর পাড়ে পুরিয়ে ধ্বংস করা হয় এবং জব্দকৃত ইলিশ স্থানীয় এতিম খানায় বিতরন করা হয়েছে।
আটককৃত ৫ জন জেলের প্রত্যেককে মৎস্য সুরক্ষা আইনে ৭ দিনের কারাদণ্ড প্রদান করেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিজ্ঞ বিচারক ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আহসান মাহমুদ রাসেল।
অভিযানে আরো অংশ নেন  উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা এস এম জাহাঙ্গীর কবির, সংযুক্ত সহকারী মৎস্য কর্মকর্তা দেবদুলাল সাহা, উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ ওমর ফয়সাল, পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা সমির বৈদ্য, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সৈয়দ আহম্মেদ জামসেদ, এবং ইলিশ সম্পদ উন্নয়ন কমিটির সকল সদস্য ও  সদরপুর থানার একদল পুলিশ।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আহসান মাহমুদ রাসেল বলেন, ইলিসের বংশ বিস্তারের লক্ষে এই অভিযান অব্যাহত থাকবে।
Tag :
এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

জনপ্রিয় সংবাদ

খেলাধুলা মানসিক বিকাশ ও শরীর গঠনে সহায়তা করেঃ -লিয়াকত সিকদার

error: Content is protected !!

পদ্মায় ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানঃ ৫ জেলে আটক ৮ হাজার মিটার জাল ধ্বংস

আপডেট টাইম : ০২:১২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩১ অক্টোবর ২০২৩
সোমবার (৩০ অক্টোবর ২৩) রাতে ফরিদপুরের সদরপুর উপজেলার পদ্মা ও আড়ীয়াল খাঁ নদের বুকে বিভিন্ন স্পটে মা ইলিশ সংরক্ষণ অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আহসান মাহমুদ রাসেল।
অভিযান কালে মা ইলিশ ধরার অপরাধে ৫ জন জেলেকে আটক এবং ৮ হাজার মিটার জাল ও ৭ কেজি ইলিশ মাছ জব্দ করা হয়।
জব্দকৃত জাল নদীর পাড়ে পুরিয়ে ধ্বংস করা হয় এবং জব্দকৃত ইলিশ স্থানীয় এতিম খানায় বিতরন করা হয়েছে।
আটককৃত ৫ জন জেলের প্রত্যেককে মৎস্য সুরক্ষা আইনে ৭ দিনের কারাদণ্ড প্রদান করেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিজ্ঞ বিচারক ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আহসান মাহমুদ রাসেল।
অভিযানে আরো অংশ নেন  উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা এস এম জাহাঙ্গীর কবির, সংযুক্ত সহকারী মৎস্য কর্মকর্তা দেবদুলাল সাহা, উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ ওমর ফয়সাল, পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা সমির বৈদ্য, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সৈয়দ আহম্মেদ জামসেদ, এবং ইলিশ সম্পদ উন্নয়ন কমিটির সকল সদস্য ও  সদরপুর থানার একদল পুলিশ।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আহসান মাহমুদ রাসেল বলেন, ইলিসের বংশ বিস্তারের লক্ষে এই অভিযান অব্যাহত থাকবে।