ঢাকা , সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২৪ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
খোকসায় অবশেষে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে অসহায় বৃদ্ধ হারুন-অর-রশিদ প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়নের ঘর ফিরে পেলেন ১ লক্ষ ২৯ হাজার টাকা পরিশোধ না করায় নড়াইলে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষন অধিদপ্তরে প্রতারনার অভিযোগ করে নিজেই প্রতারনায় ফেঁসে গেলেন জামী সাংবাদিক কৃষকের পেঁয়াজের ক্ষেত বিষ দিয়ে নষ্টের অভিযোগ নড়াইলের লোহাগড়ার দুই সন্তানের জননী কে গলা কেটে হত্যার অভিযোগ নড়াইলে দুগ্রুপের সংঘর্ষে অন্তত ১২জন আহত নগরকান্দায় শিশুর জন্ম হলেই উপহার ও মিষ্টি নিয়ে হাজির ইউএনও বাস্তব কাহিনীতে ইউএনও’র লেখায় নির্মিত হচ্ছে নাটক ‘স্বপ্নের ঠিকানা’ সালথায় ঘরের আড়ার সঙ্গে ঝুলছিল গৃহবধূর মরদেহ,পরিবারের দাবি হত্যা ভালোবাসা দিবসে উপহার নিয়ে এলো ইনফিনিক্স লাভ ফেস্ট জাতীয় গ্রন্থগার দিবস উপলক্ষে আলফাডাঙ্গায় গুণীজন সংবর্ধনা

পাবনা পৌরনির্বাচনে দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত ৫; নির্বাচনী অফিস ভাঙচুর

পাবনা সদর পৌর নির্বাচনকে কেন্দ্র করে মেয়র সমর্থক দুই পক্ষের মধ্যে পাল্টপাল্টি ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। ভাঙচুর করা হয়েছে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র) প্রার্থীর কয়েকটি নির্বাচনী অফিস। সংঘর্ষে আহত পাঁচজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয় বাসিন্দা ও প্রত্যক্ষদর্শী সুত্র জানায়, নির্বাচনী প্রচারণার শেষদিনে বৃহস্পতিবার (২৮ জানুয়ারি) দুপুরে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র) প্রার্থী শরীফ উদ্দিন প্রধানের পক্ষে নির্বাচনী মিছিল ও সভা করে স্থানীয় নেতাকর্মীরা। পরে বিকেলে শহরের রফিকুল ইসলাম বকুল স্বাধীনতা চত্বরে আওয়ামীলীগ সমর্থিত নৌকার মেয়র প্রার্থী আলী মুর্তজা বিশ্বাস সনির পক্ষে নির্বাচনী পথসমাবেশ করে কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।

সমাবেশ শেষে সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে পৌর এলাকার শালগাড়িয়া গোডাউনপাড়ায় নৌকা ও স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থীর সমর্থক দুই পক্ষের মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সময় আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র) প্রার্থীর কয়েকটি নির্বাচনী অফিস ভাঙচুর করা হয়। সংঘর্ষে পাঁচজন আহত হলে তাদের পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

আহতরা হলেন, শালগাড়িয়া মহল্লার আনিছ শেখের ছেলে বকুল শেখ, একই এলাকার আজাদ বিশ্বাসের ছেলে নাজমুল বিশ্বাস, আজমত বিশ্বাসের ছেলে ইজাজুর বিশ্বাস, মানিক হোসেনের ছেলে লতিফ হোসেন, মহিউদ্দিন হোসেনের ছেলে কেটু হোসেন।

এ বিষয়ে পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাসুদ আলম জানান, পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে শহরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এছাড়া র‌্যাব, পুলিশ, বিজিবি শহরের বিভিন্ন স্থানে টহল জোরদার করা হয়েছে।

Tag :

এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

খোকসায় অবশেষে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে অসহায় বৃদ্ধ হারুন-অর-রশিদ প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়নের ঘর ফিরে পেলেন

error: Content is protected !!

পাবনা পৌরনির্বাচনে দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত ৫; নির্বাচনী অফিস ভাঙচুর

আপডেট টাইম : ১১:২৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২১

পাবনা সদর পৌর নির্বাচনকে কেন্দ্র করে মেয়র সমর্থক দুই পক্ষের মধ্যে পাল্টপাল্টি ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। ভাঙচুর করা হয়েছে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র) প্রার্থীর কয়েকটি নির্বাচনী অফিস। সংঘর্ষে আহত পাঁচজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয় বাসিন্দা ও প্রত্যক্ষদর্শী সুত্র জানায়, নির্বাচনী প্রচারণার শেষদিনে বৃহস্পতিবার (২৮ জানুয়ারি) দুপুরে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র) প্রার্থী শরীফ উদ্দিন প্রধানের পক্ষে নির্বাচনী মিছিল ও সভা করে স্থানীয় নেতাকর্মীরা। পরে বিকেলে শহরের রফিকুল ইসলাম বকুল স্বাধীনতা চত্বরে আওয়ামীলীগ সমর্থিত নৌকার মেয়র প্রার্থী আলী মুর্তজা বিশ্বাস সনির পক্ষে নির্বাচনী পথসমাবেশ করে কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।

সমাবেশ শেষে সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে পৌর এলাকার শালগাড়িয়া গোডাউনপাড়ায় নৌকা ও স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থীর সমর্থক দুই পক্ষের মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সময় আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র) প্রার্থীর কয়েকটি নির্বাচনী অফিস ভাঙচুর করা হয়। সংঘর্ষে পাঁচজন আহত হলে তাদের পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

আহতরা হলেন, শালগাড়িয়া মহল্লার আনিছ শেখের ছেলে বকুল শেখ, একই এলাকার আজাদ বিশ্বাসের ছেলে নাজমুল বিশ্বাস, আজমত বিশ্বাসের ছেলে ইজাজুর বিশ্বাস, মানিক হোসেনের ছেলে লতিফ হোসেন, মহিউদ্দিন হোসেনের ছেলে কেটু হোসেন।

এ বিষয়ে পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাসুদ আলম জানান, পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে শহরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এছাড়া র‌্যাব, পুলিশ, বিজিবি শহরের বিভিন্ন স্থানে টহল জোরদার করা হয়েছে।