ঢাকা , শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রতিনিধি নিয়োগ
দৈনিক সময়ের প্রত্যাশা পত্রিকার জন্য সারা দেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ করা হচ্ছে। আপনি আপনার এলাকায় সাংবাদিকতা পেশায় আগ্রহী হলে যোগাযোগ করুন।

নির্বাচনে মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষনা করেছিলাম, সে যুদ্ধ আমি চালিয়ে যাবোঃ -গোলাম সরোয়ার টুকু

আমি গণমানুষের নেতা। জনগনই আমার সব। গণমানুষের সহযোগীতায় আমি সংসদ সদস্য হয়েছি। তাদের সঙ্গে থেকেই কাজ করতে চাই। সারা বিশ্বের মানুষ জানবে বরগুনা-১ আসনের সংসদ সদস্য একজন সৎ মানুষ। দুর্নীতির লেশ মাত্র আমাকে স্পর্শ করতে পারবে না।
আমতলী  পৌরসভা কর্তৃক আয়োজিত গণসংবর্ধনা ও আমতলী পৌরসভার নবনির্বাচিত পৌর পরিষদের দায়িত্বভার গ্রহন অনুষ্ঠানে  একথা বলেছেন বরগুনা-১ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য, জননেতা গোলাম সরোয়ার টুকু।
তিনি আরো বলেন, বরগুনা জেলাকে স্মার্ট বরগুনা ঘোষণা করতে মেগা প্রজেক্টের আওতায় আনতে সকল ধরনের পদক্ষেপ নেয়া হবে। তিনি আরো বলেন, আমতলী উপজেলার আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ এক সময় বরগুনা জেলার নেতৃত্ব দিত; আমি মনে করি আবার সময় এসেছে, আবার সেখানে যেতে হবে। তিনি আরো বলেন, আমি আমতলীতে শান্তির সুবাতাশ চাই। আমি শান্তি নিয়ে এসেছি।
তিনি আরও বলেন, মতপথ ভিন্ন থাকতে পারে তবে সকলের মর্যাদা আছে। তাই সকল মানুষকে মর্যাদা দিতে হবে।
 এ সময় আরো  বলেন, আমতলী পৌরসভার একটি সুন্দর ভবন এবং জমি আছে। প্রাকৃতিক ভালো পরিবেশ আছে। ঠিক পৌরসভার চত্বরের মত পৌরসভার সকল ওয়ার্ডগুলোকে এভাবে সুন্দর করে সাজাতে হবে। তিনি আরো বলেন, আমতলী সরকারী কলেজ এবং উপজেলা পরিষদের সামনে ঘর তোলায় কলেজ এবং উপজেলা পরিষদের ভবনগুলো ঝুপরি ঘরের অড়ালে চলে গেছে। এগুলো অপসারণ করে আধুনিক শহর গড়ে তুলতে হবে। রাস্তাা ঘাট ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়ন করতে হবে।
তিনি আরো বলেন, এখানে ১টি বাসস্টান্ড, ট্রাক স্টান্ড, কবরস্থান, শিশু পার্ক, স্টেডিয়াম প্রয়োজন এবং শ্বম্বানের সংস্কার করা প্রয়োজন। আমি এসকল কাজ বাস্তবায়ন করার জন্য মেয়রকে সকল ধরনের সহযোগিতা করবো বলে ওয়াদা করছি। তিনি আরো বলেন, আমি যদি এমপি হিসেবে ঘুষ না খাই তাহলে বরগুনায় আমার সংসদীয় আমতলী, তালতলী ও বরগুনায় ঘুষ খাওয়া অর্ধেক কমে যাবে। আমি নির্বাচনে মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষনা করেছিলাম। সে যুদ্ধ আমি চালিয়ে যাবো। এবং মাদক মুক্ত বরগুনা জেলা গড়ে তুলবো।
মঙ্গলবার আমতলী পৌরসভার বঙ্গবন্ধুর ম্যুারাল প্রাঙ্গণের গণ সংবর্ধনায় ও পৌর পরিষদেও দায়িত্বভার গ্রহন  অনুষ্ঠানে  বিভিন্ন সংগঠন ও শ্রেনী পেশার মানুষ সাংসদকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।
আমতলী উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি পৌর মেয়র মতিয়ার রহমানের সভাপতিত্বে গণ সংবর্ধনায় প্রধান অতিথি ছিলেন বরগুনা-১ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য জননেতা গোলাম সরোয়ার টুকু।  বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাড. এম.এ কাদের মিয়া, বরগুনা পৌর মেয়র অ্যাড. কামরুল আহসান মহারাজ, তালতলী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ রেজবি-উল কবির জোমাদ্দার, বেতাগী পৌর মেয়র এবিএম গোলাম কবির, উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ মজিবুর রহমান, জেলা পরিষদের সদস্য আহুরুজ্জামান আলমাস খান, উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক জিএম ওসমানী হাসান, বকুলনেছা মহিলা ডিগ্রী কলেজের ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক আনোয়ার হোসেন আকন উপস্থিত ছিলেন।
এছাড়া বক্তব্য রাখেন- ইউপি চেয়ারম্যান মোতাহার উদ্দিন মৃধা, আখতারুজ্জামান বাদল খাঁন, বোরহান উদ্দিন আহমেদ মাসুম তালুকদার, রফিকুল ইসলাম রিপন, আসাদুজ্জামান মিন্টু মল্লিক, সোহেলী পারভীন মালা ও অ্যাড. এইচএম মনিরুল ইসলাম মনি, আমতলী ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মো. হারুন অর রশিদ হাওলাদার সহ আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছোসেবক লীগ, জনপ্রতিনিধি, আইনজীবী, সকল কাউন্সিলরগণ, বীর মুক্তিযোদ্ধাবৃন্দ সহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার কয়েক হাজার মানুষ উপস্থিত ছিল।
Tag :
এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

জনপ্রিয় সংবাদ
error: Content is protected !!

নির্বাচনে মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষনা করেছিলাম, সে যুদ্ধ আমি চালিয়ে যাবোঃ -গোলাম সরোয়ার টুকু

আপডেট টাইম : ০৮:২১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪
আমি গণমানুষের নেতা। জনগনই আমার সব। গণমানুষের সহযোগীতায় আমি সংসদ সদস্য হয়েছি। তাদের সঙ্গে থেকেই কাজ করতে চাই। সারা বিশ্বের মানুষ জানবে বরগুনা-১ আসনের সংসদ সদস্য একজন সৎ মানুষ। দুর্নীতির লেশ মাত্র আমাকে স্পর্শ করতে পারবে না।
আমতলী  পৌরসভা কর্তৃক আয়োজিত গণসংবর্ধনা ও আমতলী পৌরসভার নবনির্বাচিত পৌর পরিষদের দায়িত্বভার গ্রহন অনুষ্ঠানে  একথা বলেছেন বরগুনা-১ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য, জননেতা গোলাম সরোয়ার টুকু।
তিনি আরো বলেন, বরগুনা জেলাকে স্মার্ট বরগুনা ঘোষণা করতে মেগা প্রজেক্টের আওতায় আনতে সকল ধরনের পদক্ষেপ নেয়া হবে। তিনি আরো বলেন, আমতলী উপজেলার আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ এক সময় বরগুনা জেলার নেতৃত্ব দিত; আমি মনে করি আবার সময় এসেছে, আবার সেখানে যেতে হবে। তিনি আরো বলেন, আমি আমতলীতে শান্তির সুবাতাশ চাই। আমি শান্তি নিয়ে এসেছি।
তিনি আরও বলেন, মতপথ ভিন্ন থাকতে পারে তবে সকলের মর্যাদা আছে। তাই সকল মানুষকে মর্যাদা দিতে হবে।
 এ সময় আরো  বলেন, আমতলী পৌরসভার একটি সুন্দর ভবন এবং জমি আছে। প্রাকৃতিক ভালো পরিবেশ আছে। ঠিক পৌরসভার চত্বরের মত পৌরসভার সকল ওয়ার্ডগুলোকে এভাবে সুন্দর করে সাজাতে হবে। তিনি আরো বলেন, আমতলী সরকারী কলেজ এবং উপজেলা পরিষদের সামনে ঘর তোলায় কলেজ এবং উপজেলা পরিষদের ভবনগুলো ঝুপরি ঘরের অড়ালে চলে গেছে। এগুলো অপসারণ করে আধুনিক শহর গড়ে তুলতে হবে। রাস্তাা ঘাট ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়ন করতে হবে।
তিনি আরো বলেন, এখানে ১টি বাসস্টান্ড, ট্রাক স্টান্ড, কবরস্থান, শিশু পার্ক, স্টেডিয়াম প্রয়োজন এবং শ্বম্বানের সংস্কার করা প্রয়োজন। আমি এসকল কাজ বাস্তবায়ন করার জন্য মেয়রকে সকল ধরনের সহযোগিতা করবো বলে ওয়াদা করছি। তিনি আরো বলেন, আমি যদি এমপি হিসেবে ঘুষ না খাই তাহলে বরগুনায় আমার সংসদীয় আমতলী, তালতলী ও বরগুনায় ঘুষ খাওয়া অর্ধেক কমে যাবে। আমি নির্বাচনে মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষনা করেছিলাম। সে যুদ্ধ আমি চালিয়ে যাবো। এবং মাদক মুক্ত বরগুনা জেলা গড়ে তুলবো।
মঙ্গলবার আমতলী পৌরসভার বঙ্গবন্ধুর ম্যুারাল প্রাঙ্গণের গণ সংবর্ধনায় ও পৌর পরিষদেও দায়িত্বভার গ্রহন  অনুষ্ঠানে  বিভিন্ন সংগঠন ও শ্রেনী পেশার মানুষ সাংসদকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।
আমতলী উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি পৌর মেয়র মতিয়ার রহমানের সভাপতিত্বে গণ সংবর্ধনায় প্রধান অতিথি ছিলেন বরগুনা-১ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য জননেতা গোলাম সরোয়ার টুকু।  বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাড. এম.এ কাদের মিয়া, বরগুনা পৌর মেয়র অ্যাড. কামরুল আহসান মহারাজ, তালতলী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ রেজবি-উল কবির জোমাদ্দার, বেতাগী পৌর মেয়র এবিএম গোলাম কবির, উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ মজিবুর রহমান, জেলা পরিষদের সদস্য আহুরুজ্জামান আলমাস খান, উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক জিএম ওসমানী হাসান, বকুলনেছা মহিলা ডিগ্রী কলেজের ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক আনোয়ার হোসেন আকন উপস্থিত ছিলেন।
এছাড়া বক্তব্য রাখেন- ইউপি চেয়ারম্যান মোতাহার উদ্দিন মৃধা, আখতারুজ্জামান বাদল খাঁন, বোরহান উদ্দিন আহমেদ মাসুম তালুকদার, রফিকুল ইসলাম রিপন, আসাদুজ্জামান মিন্টু মল্লিক, সোহেলী পারভীন মালা ও অ্যাড. এইচএম মনিরুল ইসলাম মনি, আমতলী ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মো. হারুন অর রশিদ হাওলাদার সহ আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছোসেবক লীগ, জনপ্রতিনিধি, আইনজীবী, সকল কাউন্সিলরগণ, বীর মুক্তিযোদ্ধাবৃন্দ সহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার কয়েক হাজার মানুষ উপস্থিত ছিল।