ঢাকা , রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
প্রতিনিধি নিয়োগ
দৈনিক সময়ের প্রত্যাশা পত্রিকার জন্য সারা দেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ করা হচ্ছে। আপনি আপনার এলাকায় সাংবাদিকতা পেশায় আগ্রহী হলে যোগাযোগ করুন।

আলফাডাঙ্গায় ফুলের মালা দিয়ে কাউন্সিলরকে বরণ

ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা পৌরসভার ২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. হারুন- অর- রশিদ ২৯ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত নির্বাচনে ভোটযুদ্ধে জয়ী হয়েছেন। এতে বেজায় খুশি কর্মী- সমর্থকরাও। তাদের আবেগ-আনন্দের বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে বিজয়ী কাউন্সিলরের গলায়। টাকা ও ফুল দিয়ে তৈরি একাধিক মালা দিয়ে সদ্য নির্বাচিত কাউন্সিলের গলা সজ্জিত করে চলছে সমর্থকদের বিজয় উল্লাস।

তাঁর নির্বাচনী (শ্রীরামপুর ও বুড়াইচ পূর্বপাড়া) এলাকার পাড়া-মহল্লায় শোভাযাত্রা করে ভোটারদের সঙ্গে আনন্দ ভাগাভাগি করছেন আলফাডাঙ্গার ২ নং ওয়ার্ডে নির্বাচিত কাউন্সিলর মো. হারুন- অর- রশিদ। তার গলায় দশ ও একশ টাকার নোট এবং ফুলের মালা। হারুন অর রশিদ পানির বোতল প্রতীক নিয়ে ৪৭৩ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী কামরুজ্জামান কদর পেয়েছেন ৩২৩ ভোট।

এর আগে তিনি ২নং ওয়ার্ডের (শ্রীরামপুর ও বুড়াইচ পূর্বপাড়া) এলাকার সাবেক সফল কাউন্সিলর ছিলেন।

কাউন্সিলর মো. হারুন- অর- রশিদ বলেন, মানুষ আমাদের পরিবারকে অনেক ভালোবাসে। তাই এর বহিঃপ্রকাশ। তারা আমাকে ভালোবেসে ফুল ও টাকার মালা পরিয়েছে। যেভাবে আমাকে বিপুল ভোটে বিজয়ী করেছে, আমি যেন তাদের সেই মান রাখতে পারি সর্বদা সেই চেষ্টা করব।

Tag :
এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

জনপ্রিয় সংবাদ
error: Content is protected !!

আলফাডাঙ্গায় ফুলের মালা দিয়ে কাউন্সিলরকে বরণ

আপডেট টাইম : ০৪:১১ অপরাহ্ন, রবিবার, ১ জানুয়ারী ২০২৩

ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা পৌরসভার ২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. হারুন- অর- রশিদ ২৯ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত নির্বাচনে ভোটযুদ্ধে জয়ী হয়েছেন। এতে বেজায় খুশি কর্মী- সমর্থকরাও। তাদের আবেগ-আনন্দের বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে বিজয়ী কাউন্সিলরের গলায়। টাকা ও ফুল দিয়ে তৈরি একাধিক মালা দিয়ে সদ্য নির্বাচিত কাউন্সিলের গলা সজ্জিত করে চলছে সমর্থকদের বিজয় উল্লাস।

তাঁর নির্বাচনী (শ্রীরামপুর ও বুড়াইচ পূর্বপাড়া) এলাকার পাড়া-মহল্লায় শোভাযাত্রা করে ভোটারদের সঙ্গে আনন্দ ভাগাভাগি করছেন আলফাডাঙ্গার ২ নং ওয়ার্ডে নির্বাচিত কাউন্সিলর মো. হারুন- অর- রশিদ। তার গলায় দশ ও একশ টাকার নোট এবং ফুলের মালা। হারুন অর রশিদ পানির বোতল প্রতীক নিয়ে ৪৭৩ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী কামরুজ্জামান কদর পেয়েছেন ৩২৩ ভোট।

এর আগে তিনি ২নং ওয়ার্ডের (শ্রীরামপুর ও বুড়াইচ পূর্বপাড়া) এলাকার সাবেক সফল কাউন্সিলর ছিলেন।

কাউন্সিলর মো. হারুন- অর- রশিদ বলেন, মানুষ আমাদের পরিবারকে অনেক ভালোবাসে। তাই এর বহিঃপ্রকাশ। তারা আমাকে ভালোবেসে ফুল ও টাকার মালা পরিয়েছে। যেভাবে আমাকে বিপুল ভোটে বিজয়ী করেছে, আমি যেন তাদের সেই মান রাখতে পারি সর্বদা সেই চেষ্টা করব।