ঢাকা , রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
Logo উপজেলা নির্বাচন পরবর্তী হামলা-ভাংচুরের অভিযোগ, আসামী গ্রেপ্তারের দাবি Logo খাগড়াছড়িতে জেলা পুলিশের উদ্যোগে বৃক্ষরোপন কর্মসূচী উদ্বোধন Logo ঈদকে সামনে রেখে হাতিয়ার গুরুত্বপূর্ণ ঘাটে কোস্টগার্ডের নিরাপত্তার জোরদার Logo সদরপুর ক্যাডেট স্কিম মাদরাসায় কুরআনের সবক Logo বোয়ালমারীতে ট্রাকের সংঘর্ষে মোটরসাইকেল চালক নিহত Logo জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা নাগরপুর উপজেলা ইউনিটের নতুন কার্যালয় উদ্বোধন Logo সদরপুরে ঠেঙ্গামারী আলিয়া মাদরাসা ও এতিমখানার শুভ উদ্বোধন Logo ডাকাত সর্দারকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব Logo নড়াইলে মোটরসাইকেলের বেপরোয়া গতি কেঁড়ে নিলো কিশোরের প্রাণ Logo ভুয়া পরিচয়ে চার বছর ধরে দন্ত চিকিৎসকের জেল ও জরিমানা
প্রতিনিধি নিয়োগ
দৈনিক সময়ের প্রত্যাশা পত্রিকার জন্য সারা দেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ করা হচ্ছে। আপনি আপনার এলাকায় সাংবাদিকতা পেশায় আগ্রহী হলে যোগাযোগ করুন।

ভোটে জিতে মানুষকে ভুলে যেতে চাই না-সদ্য নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান

রাজশাহীর বাঘা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে, সদ্য নির্বাচিত চেয়ারম্যান এ্যাড মোঃ লায়েব উদ্দীন লাভলু বলেছেন, সকলের সহযোগিতা পেলে বাঘা উপজেলা পরিষদের চেহারা পাল্টে দেবেন। নির্বাচনের প্রকাশিত ফলাফলের পরবর্তী সময়ে (৬জুন) উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় সাক্ষাতকালে লাভলু বলেন, আপনারা ভোট দিয়ে বিজয়ী করেছেন। বিগত সময়ে মানুষের চাহিদা-আকাঙ্খার অনেক কিছু এখনও পূরণ করা সম্ভব হয়নি। সকলের সহযোগিতায় উপজেলার সাধারন মানুষের উন্নয়ন ও দেখভালের দায়িত্ব এখন আমার। সে কারণে দাবি, অন্যান্য উপজেলার মতো বাঘা উপজেলার উন্নয়নে সরকার নজর দিবেন। তাহলে উপজেলাবাসীকে একটি আধুনিক উপজেলা উপহার দেব।

 

ভোটারদের সাথে দেখা করে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন, আমি ভোটে জিতে মানুষকে ভুলে যেতে চাই না। উপজেলাবাসীর যে কোনো প্রয়োজনে সুখে-দুঃখে আগেও সব সময় পাশে ছিলাম,এখনও পাবেন। ইচ্ছা থাকা সত্বেও সীমাবদ্ধতার কারণে সব কিছু পেরে উঠেননা। এসময় বাঘা পৌরসভার মেয়র আক্কাছ আলী,পাকুড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান মেরাজুল ইসলাম মেরাজসহ এলাকাভিত্তিক সমর্থিত লোকজন সাথে ছিলেন।

 

গত বুধবার (৫জুন) ৬ষ্ট উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের চতুর্থধাপে অনুষ্ঠিত,নির্বাচনে মোটরসাইকেল প্রতীকে ৩২,৪০৫ ভোট পেয়ে দ্বিতীয়বার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন লায়েব উদ্দীন লাভলু। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোঃ রোকনুজ্জামান (রিন্টু) আনারস প্রতীকে পেয়েছেন ৩২,২৯৯ ভোট।
বেসরকারি ফলাফলে ১০৬ ভোট বেশি পেয়ে দ্বিতীয়বার উপজেলার চেয়ারম্যান আসনে বসতে যাচ্ছেন লায়েব উদ্দীন লাভলু। চেয়ারম্যান পদে তারা ২জনসহ ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন অরো ৬ জন।

 

ভাইস চেয়ারম্যান পদে টিয়া পাখি প্রতীকে ২৫ হাজার ৬৩২ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন আব্দুল মোকাদ্দেস। তার নিকটতম প্রার্থী কামরুজ্জামান বই প্রতীকে পেয়েছেন ২২ হাজার ৯৯২ ভোট। অপর প্রার্থী মেহেদী হাসান টিউবওয়েল প্রতীকে পেয়েছেন ১৩ হাজার ৬৫৭ ভোট।

 

মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে রিনা খাতুন ফুটবল প্রতীকে ২৫ হাজার ৫৮৪ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন । তার নিকটতম প্রার্থী ফাতেমা খাতুন কলস প্রতীকে পেয়েছেন ২২ হাজার ৪৯৬ ভোট। ফারহানা দিল আফরোজ প্রজাপতি প্রতীকে পেয়েছেন ১৪ হাজার ২০৮ ভোট ।

 

 

চেয়ারম্যান পদে প্রদত্ত ভোটের সংখ্যা ৬৬ হাজার ৩৩৫টি । বাতিল ভোটের সংখ্যা ১৬৩১। বৈধ ভোটের সংখ্যা ৬৪ হাজার ৭০৪। ভোটের শতকরা হার ৪০ দশমিক শূন্যে ৪। ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রদত্ত ভোটের সংখ্যা-৬৬০৯২টি। বাতিল ভোট-৩৮১১টি। বৈধ ভোট ৬২২৮১টি। ভোটের শতকরা হার-৩৯ দশমিক ৯০। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রদত্ত ভোটের সংখ্যা ৬৬ হাজার ২৬২টি। বাতিল ভোট-৩৯৪৪টি। বৈধ ভোট ৬২২৮৮টি। ভোটের শতকার হার-৩৯ দশমিক ৯৮। বিছিন্ন ২/১টি ঘটনা ছাড়া সুষ্ঠ,সুন্দর পরিবেশে ভোটগ্রহন শেষ হয়েছে বলে জানান নির্বাচন সংশ্লিষ্ট কর্মকতা ও ভোটাররা।

উল্লেখ্য,২টি পৌরসভা ও ৭টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত বাঘা উপজেলায় মোট ভোটার সংখ্যা- ১,৬৫,৬৬৩। পুরুষ-৮৩,০০৭.মহিলা-৮২,৬৫৬।

Tag :
এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

জনপ্রিয় সংবাদ

উপজেলা নির্বাচন পরবর্তী হামলা-ভাংচুরের অভিযোগ, আসামী গ্রেপ্তারের দাবি

error: Content is protected !!

ভোটে জিতে মানুষকে ভুলে যেতে চাই না-সদ্য নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান

আপডেট টাইম : ০৯:৪১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৭ জুন ২০২৪

রাজশাহীর বাঘা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে, সদ্য নির্বাচিত চেয়ারম্যান এ্যাড মোঃ লায়েব উদ্দীন লাভলু বলেছেন, সকলের সহযোগিতা পেলে বাঘা উপজেলা পরিষদের চেহারা পাল্টে দেবেন। নির্বাচনের প্রকাশিত ফলাফলের পরবর্তী সময়ে (৬জুন) উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় সাক্ষাতকালে লাভলু বলেন, আপনারা ভোট দিয়ে বিজয়ী করেছেন। বিগত সময়ে মানুষের চাহিদা-আকাঙ্খার অনেক কিছু এখনও পূরণ করা সম্ভব হয়নি। সকলের সহযোগিতায় উপজেলার সাধারন মানুষের উন্নয়ন ও দেখভালের দায়িত্ব এখন আমার। সে কারণে দাবি, অন্যান্য উপজেলার মতো বাঘা উপজেলার উন্নয়নে সরকার নজর দিবেন। তাহলে উপজেলাবাসীকে একটি আধুনিক উপজেলা উপহার দেব।

 

ভোটারদের সাথে দেখা করে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন, আমি ভোটে জিতে মানুষকে ভুলে যেতে চাই না। উপজেলাবাসীর যে কোনো প্রয়োজনে সুখে-দুঃখে আগেও সব সময় পাশে ছিলাম,এখনও পাবেন। ইচ্ছা থাকা সত্বেও সীমাবদ্ধতার কারণে সব কিছু পেরে উঠেননা। এসময় বাঘা পৌরসভার মেয়র আক্কাছ আলী,পাকুড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান মেরাজুল ইসলাম মেরাজসহ এলাকাভিত্তিক সমর্থিত লোকজন সাথে ছিলেন।

 

গত বুধবার (৫জুন) ৬ষ্ট উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের চতুর্থধাপে অনুষ্ঠিত,নির্বাচনে মোটরসাইকেল প্রতীকে ৩২,৪০৫ ভোট পেয়ে দ্বিতীয়বার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন লায়েব উদ্দীন লাভলু। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোঃ রোকনুজ্জামান (রিন্টু) আনারস প্রতীকে পেয়েছেন ৩২,২৯৯ ভোট।
বেসরকারি ফলাফলে ১০৬ ভোট বেশি পেয়ে দ্বিতীয়বার উপজেলার চেয়ারম্যান আসনে বসতে যাচ্ছেন লায়েব উদ্দীন লাভলু। চেয়ারম্যান পদে তারা ২জনসহ ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন অরো ৬ জন।

 

ভাইস চেয়ারম্যান পদে টিয়া পাখি প্রতীকে ২৫ হাজার ৬৩২ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন আব্দুল মোকাদ্দেস। তার নিকটতম প্রার্থী কামরুজ্জামান বই প্রতীকে পেয়েছেন ২২ হাজার ৯৯২ ভোট। অপর প্রার্থী মেহেদী হাসান টিউবওয়েল প্রতীকে পেয়েছেন ১৩ হাজার ৬৫৭ ভোট।

 

মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে রিনা খাতুন ফুটবল প্রতীকে ২৫ হাজার ৫৮৪ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন । তার নিকটতম প্রার্থী ফাতেমা খাতুন কলস প্রতীকে পেয়েছেন ২২ হাজার ৪৯৬ ভোট। ফারহানা দিল আফরোজ প্রজাপতি প্রতীকে পেয়েছেন ১৪ হাজার ২০৮ ভোট ।

 

 

চেয়ারম্যান পদে প্রদত্ত ভোটের সংখ্যা ৬৬ হাজার ৩৩৫টি । বাতিল ভোটের সংখ্যা ১৬৩১। বৈধ ভোটের সংখ্যা ৬৪ হাজার ৭০৪। ভোটের শতকরা হার ৪০ দশমিক শূন্যে ৪। ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রদত্ত ভোটের সংখ্যা-৬৬০৯২টি। বাতিল ভোট-৩৮১১টি। বৈধ ভোট ৬২২৮১টি। ভোটের শতকরা হার-৩৯ দশমিক ৯০। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রদত্ত ভোটের সংখ্যা ৬৬ হাজার ২৬২টি। বাতিল ভোট-৩৯৪৪টি। বৈধ ভোট ৬২২৮৮টি। ভোটের শতকার হার-৩৯ দশমিক ৯৮। বিছিন্ন ২/১টি ঘটনা ছাড়া সুষ্ঠ,সুন্দর পরিবেশে ভোটগ্রহন শেষ হয়েছে বলে জানান নির্বাচন সংশ্লিষ্ট কর্মকতা ও ভোটাররা।

উল্লেখ্য,২টি পৌরসভা ও ৭টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত বাঘা উপজেলায় মোট ভোটার সংখ্যা- ১,৬৫,৬৬৩। পুরুষ-৮৩,০০৭.মহিলা-৮২,৬৫৬।