ঢাকা , শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রতিনিধি নিয়োগ
দৈনিক সময়ের প্রত্যাশা পত্রিকার জন্য সারা দেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ করা হচ্ছে। আপনি আপনার এলাকায় সাংবাদিকতা পেশায় আগ্রহী হলে যোগাযোগ করুন।

নিঝুমদ্বীপে আশ্রয় কেন্দ্র থেকে বাড়ি যাওয়ার পথে পানিতে পড়ে শিশুর মৃত্যু

-ছবি প্রতীকী।

নোয়াখালীর বিছিন্ন দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ার নিঝুমদ্বীপ ইউনিয়নে  ঘূর্ণিঝড় রেমালের আঘাত হতে রক্ষা পেতে রাতে আশ্রয় কেন্দ্রে আসেন মান্না। সকালে আশ্রায় কেন্দ্র থেকে বাড়ি ফেরার পথে পানিতে পড়ে  মন্না (১২) শিশুর মৃত্যু হয়েছে।
মঙ্গলবার (২৮ মে) সকাল ১০টার দিকে দিকে উপজেলার ইসলামপুর গ্রামে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
নিহত মো. মান্না (১২) উপজেলার নিঝুম দ্বীপ ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের ইসলামপুর গ্রামের মোক্তার বাড়ির নবীর উদ্দিনের ছেলে।
নিঝুম দ্বীপ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নুরুল আফছার মো. দিনাজ উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, জেয়ারের স্রোতে রাস্তা ভেঙ্গে গভীর গর্ত তৈরি হয়। মান্না আশ্রয় কেন্দ্র থেকে ফেরার পথে সড়কের ওই গভীর গর্তে পড়ে পানিতে ডুবে মারা যায়।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ঘূর্ণিঝড় রেমালের তাণ্ডবে অস্বাভাবিক জোয়ারের পানিতে উপজেলার নিঝুমদ্বীপ ইউনিয়নের ৯টি গ্রাম জোয়ারের পানি ও টানা বর্ষণে ডুবে যায়। এতে স্থানীয়রা মানুষের পাকা ভবনে আশ্রয় নেয়। মান্না ও তার পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে ওই আশ্রয় কেন্দ্রে অবস্থান নেয়। পরে মঙ্গলবার সকালে দিকে আশ্রয় কেন্দ্র থেকে বাড়ি ফেরার পথে মান্না অসাবধানতা বশত রাস্তার গর্তে পড়ে মারা যায়।
হাতিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শুভাশীষ চাকমা বলেন, নিঝুম দ্বীপ ইউনিয়নে এক শিশু পানিতে পড়ে মারা গেছে।
Tag :
এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

জনপ্রিয় সংবাদ
error: Content is protected !!

নিঝুমদ্বীপে আশ্রয় কেন্দ্র থেকে বাড়ি যাওয়ার পথে পানিতে পড়ে শিশুর মৃত্যু

আপডেট টাইম : ০৪:৩৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪
নোয়াখালীর বিছিন্ন দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ার নিঝুমদ্বীপ ইউনিয়নে  ঘূর্ণিঝড় রেমালের আঘাত হতে রক্ষা পেতে রাতে আশ্রয় কেন্দ্রে আসেন মান্না। সকালে আশ্রায় কেন্দ্র থেকে বাড়ি ফেরার পথে পানিতে পড়ে  মন্না (১২) শিশুর মৃত্যু হয়েছে।
মঙ্গলবার (২৮ মে) সকাল ১০টার দিকে দিকে উপজেলার ইসলামপুর গ্রামে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
নিহত মো. মান্না (১২) উপজেলার নিঝুম দ্বীপ ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের ইসলামপুর গ্রামের মোক্তার বাড়ির নবীর উদ্দিনের ছেলে।
নিঝুম দ্বীপ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নুরুল আফছার মো. দিনাজ উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, জেয়ারের স্রোতে রাস্তা ভেঙ্গে গভীর গর্ত তৈরি হয়। মান্না আশ্রয় কেন্দ্র থেকে ফেরার পথে সড়কের ওই গভীর গর্তে পড়ে পানিতে ডুবে মারা যায়।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ঘূর্ণিঝড় রেমালের তাণ্ডবে অস্বাভাবিক জোয়ারের পানিতে উপজেলার নিঝুমদ্বীপ ইউনিয়নের ৯টি গ্রাম জোয়ারের পানি ও টানা বর্ষণে ডুবে যায়। এতে স্থানীয়রা মানুষের পাকা ভবনে আশ্রয় নেয়। মান্না ও তার পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে ওই আশ্রয় কেন্দ্রে অবস্থান নেয়। পরে মঙ্গলবার সকালে দিকে আশ্রয় কেন্দ্র থেকে বাড়ি ফেরার পথে মান্না অসাবধানতা বশত রাস্তার গর্তে পড়ে মারা যায়।
হাতিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শুভাশীষ চাকমা বলেন, নিঝুম দ্বীপ ইউনিয়নে এক শিশু পানিতে পড়ে মারা গেছে।