ঢাকা , শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
Logo ঢাকায় সংবাদ সম্মেলনে কান্নাজড়িত কণ্ঠে আঞ্জুমান আরা Logo দৌলতপুরে ব্র্যাক শাখা অফিসের উদ্বোধন Logo তানোরে ইউপি চেয়ারম্যানের মৃত্যুতে শোকসভা ও মিলাদ Logo তানোরে গরু মোটাতাজা করণে নিষিদ্ধ ওষুধের রমরমা বাণিজ্যে Logo উচ্চ আদালতে রিট পিটিশন দায়েরঃ ভোট গ্রহণের ৫ দিন আগে যশোর সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন স্থগিত Logo যশোরে ৭০ লাখ টাকা ফেরত না দিয়ে প্রতারণার অভিযোগে আদালতে মামলা Logo তানোর পোস্ট অফিস থেকে টাকা গায়েবঃ ফেরত পেতে গ্রাহকের আত্মহত্যার হুমকি Logo নড়াইল সদর উপজেলা নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ ও বিতর্কিত করার চেষ্টার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন Logo বোয়ালমারীতে চেয়ারম্যান প্রার্থী লিটু শরীফের গণমাধ্যম কর্মীদের সাথে মতবিনিময় Logo প্রেম প্রস্তাবে ব্যর্থ হয়ে এডিস নিক্ষেপকারী যুবকের যাবজ্জীবন কারাদন্ড
প্রতিনিধি নিয়োগ
দৈনিক সময়ের প্রত্যাশা পত্রিকার জন্য সারা দেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ করা হচ্ছে। আপনি আপনার এলাকায় সাংবাদিকতা পেশায় আগ্রহী হলে যোগাযোগ করুন।

দৌলতপুরে শ্রেষ্ঠ শিক্ষক নির্বাচন নিয়ে নানা শুঞ্জন ও ক্ষোভ!

-কুষ্টিয়া জেলার শ্রেষ্ঠ শ্রেণী শিক্ষক দৌলতপুর কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক কে এম ইকবাল হোসেন (হাবিব)।

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে শ্রেষ্ঠ শ্রেণী শিক্ষক নির্বাচন নিয়ে শিক্ষক মহলে নানা শুঞ্জন ও ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ-২০২৪ উপলক্ষ্যে উপজেলা পর্যায়ে দৌলতপুর কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের নতুন এমপিওভূক্ত প্রভাষক কে এম ইকবাল হোসেন (হাবিব) শ্রেষ্ঠ শ্রেণী শিক্ষক নির্বাচিত হওয়ায় খোদ দৌলতপুর কলেজের সিনিয়র শিক্ষকসহ দৌলতপুরের সর্বস্তরের শিক্ষকদের মাঝে তীব্র ক্ষোভ ও নানা গুঞ্জনের সৃষ্টি হয়। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও চলছে আলোচনা সমালোর ঝড়।

দৌলতপুর কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক কে এম ইকবাল হোসেন (হাবিব) অনার্স শিক্ষক হিসেবে দৌলতপুর কলেজে যোগদেন। তৃতীয় শিক্ষক নিয়োগ নীতিমালা না মেনে অবৈধভাবে তাকে ডিগ্রি পর্যায়ে নিয়োগ দেখিয়ে ২০২৩ সালে এমপিওভূক্ত করা হয়। শ্রেণীকক্ষে পাঠদানের ক্ষেত্রেও তার বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ রয়েছে শিক্ষার্থীদের।

এছাড়াও কে এম ইকবাল হোসেন (হাবিব) ৬টি বিয়ে করে দৌলতপুরে বহু বিবাহের নজির সৃষ্টিকারী হিসেবে চিহ্নিত হয়েছেন। শুধু তাই নয় একাধিক পরকীয়া সম্পর্কে জড়িয়েও তিনি সামাজিকভাবে ঘৃণিত ও নিন্দিত হয়েছেন বার বার। এতকিছুর পরও কে এম ইকবাল হোসেন (হাবিব) শ্রেষ্ঠ শ্রেণী শিক্ষক নির্বাচিত হওয়ায় শিক্ষক সমাজের জন্য চরম অপমানজনক বলে মন্তব্য করেছেন বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও সচেতনমহল।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে দৌলতপুর কলেজের একাধিক সিনিয়র ও গুনী শিক্ষক দুঃখ ও ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, দৌলতপুর কলেজে কি আর কোন শিক্ষক ছিলনা যে একজন চরিত্রহীন শিক্ষককে শ্রেষ্ঠ শিক্ষক নির্বাচিত করতে হবে। এটা গোটা শিক্ষক সমাজের জন্য লজ্বা ও অপমানের। একই অভিব্যক্তি দৌলতপুরের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকবৃন্দের।

শ্রেষ্ঠ শিক্ষক নির্বাচনের বিষয়ে দৌলতপুর মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. শফিউল আলম বলেন, জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ উপলক্ষ্যে শ্রেষ্ঠ শিক্ষক নির্বাচনের উপ-কমিটির মাধ্যমে কে এম ইকবাল হোসেন শ্রেষ্ঠ শ্রেণী শিক্ষক নির্বাচিত হয়েছেন।

তবে কোন আবেদনকারী না থাকায় তিনি নির্বাচিত হয়েছেন বলে তিনি উল্লেখ করেন।মানুষ গড়ার কারিগর ও জাতির বিবেক হলেন শিক্ষক সমাজ। আর এ সমাজের চরিত্রহীন ও বহুবিবাহের অধিকারী কোন ব্যক্তি শ্রেষ্ঠ হলে শিক্ষা দপ্তরের প্রতি আস্থা হারাবে শিক্ষক সমাজ। তাই সঠিক যাচাই বাছাই ও বিচার বিশ্লেণ করে শ্রেষ্ঠত্ব দেওয়ার দাবি শিক্ষকদের।

Tag :
এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

ঢাকায় সংবাদ সম্মেলনে কান্নাজড়িত কণ্ঠে আঞ্জুমান আরা

error: Content is protected !!

দৌলতপুরে শ্রেষ্ঠ শিক্ষক নির্বাচন নিয়ে নানা শুঞ্জন ও ক্ষোভ!

আপডেট টাইম : ০৫:২৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ৪ মে ২০২৪

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে শ্রেষ্ঠ শ্রেণী শিক্ষক নির্বাচন নিয়ে শিক্ষক মহলে নানা শুঞ্জন ও ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ-২০২৪ উপলক্ষ্যে উপজেলা পর্যায়ে দৌলতপুর কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের নতুন এমপিওভূক্ত প্রভাষক কে এম ইকবাল হোসেন (হাবিব) শ্রেষ্ঠ শ্রেণী শিক্ষক নির্বাচিত হওয়ায় খোদ দৌলতপুর কলেজের সিনিয়র শিক্ষকসহ দৌলতপুরের সর্বস্তরের শিক্ষকদের মাঝে তীব্র ক্ষোভ ও নানা গুঞ্জনের সৃষ্টি হয়। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও চলছে আলোচনা সমালোর ঝড়।

দৌলতপুর কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক কে এম ইকবাল হোসেন (হাবিব) অনার্স শিক্ষক হিসেবে দৌলতপুর কলেজে যোগদেন। তৃতীয় শিক্ষক নিয়োগ নীতিমালা না মেনে অবৈধভাবে তাকে ডিগ্রি পর্যায়ে নিয়োগ দেখিয়ে ২০২৩ সালে এমপিওভূক্ত করা হয়। শ্রেণীকক্ষে পাঠদানের ক্ষেত্রেও তার বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ রয়েছে শিক্ষার্থীদের।

এছাড়াও কে এম ইকবাল হোসেন (হাবিব) ৬টি বিয়ে করে দৌলতপুরে বহু বিবাহের নজির সৃষ্টিকারী হিসেবে চিহ্নিত হয়েছেন। শুধু তাই নয় একাধিক পরকীয়া সম্পর্কে জড়িয়েও তিনি সামাজিকভাবে ঘৃণিত ও নিন্দিত হয়েছেন বার বার। এতকিছুর পরও কে এম ইকবাল হোসেন (হাবিব) শ্রেষ্ঠ শ্রেণী শিক্ষক নির্বাচিত হওয়ায় শিক্ষক সমাজের জন্য চরম অপমানজনক বলে মন্তব্য করেছেন বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও সচেতনমহল।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে দৌলতপুর কলেজের একাধিক সিনিয়র ও গুনী শিক্ষক দুঃখ ও ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, দৌলতপুর কলেজে কি আর কোন শিক্ষক ছিলনা যে একজন চরিত্রহীন শিক্ষককে শ্রেষ্ঠ শিক্ষক নির্বাচিত করতে হবে। এটা গোটা শিক্ষক সমাজের জন্য লজ্বা ও অপমানের। একই অভিব্যক্তি দৌলতপুরের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকবৃন্দের।

শ্রেষ্ঠ শিক্ষক নির্বাচনের বিষয়ে দৌলতপুর মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. শফিউল আলম বলেন, জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ উপলক্ষ্যে শ্রেষ্ঠ শিক্ষক নির্বাচনের উপ-কমিটির মাধ্যমে কে এম ইকবাল হোসেন শ্রেষ্ঠ শ্রেণী শিক্ষক নির্বাচিত হয়েছেন।

তবে কোন আবেদনকারী না থাকায় তিনি নির্বাচিত হয়েছেন বলে তিনি উল্লেখ করেন।মানুষ গড়ার কারিগর ও জাতির বিবেক হলেন শিক্ষক সমাজ। আর এ সমাজের চরিত্রহীন ও বহুবিবাহের অধিকারী কোন ব্যক্তি শ্রেষ্ঠ হলে শিক্ষা দপ্তরের প্রতি আস্থা হারাবে শিক্ষক সমাজ। তাই সঠিক যাচাই বাছাই ও বিচার বিশ্লেণ করে শ্রেষ্ঠত্ব দেওয়ার দাবি শিক্ষকদের।