ঢাকা , মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
Logo খোকসায় প্রাণিসেবা সপ্তাহ সমাপনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত Logo তানোরে জমি জবর দখলের অভিযোগ Logo বাঘায় আগুনে ছাগল, টাকা–ঘর পুড়ে ১০ লক্ষ টাকার ক্ষতি Logo ভেড়ামারায় ক্ষতিগ্রস্থ পানবরজ এলাকা পরিদর্শন করলেন : এমপি কামারুল Logo ভেড়ামারায় জাইকা ও সরকারী অর্থায়নে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বেঞ্চ বিতরণ Logo নাটোরের সিংড়ায় কিশোরীকে হত্যার দায়ে এক ব্যক্তির মৃত্যুদন্ড Logo স্মার্ট গোপালগঞ্জ বিনির্মানে মুকসুদপুর পৌর এলাকার সার্বিক উন্নয়নের লক্ষ্যে ফোকাস গ্রুপ ডিসকাশনের আয়োজন Logo কুষ্টিয়ায় বৃষ্টির জন্য ইসতিসকার নামাজ আদায় Logo বালিয়াকান্দিতে মোটর সাইকেল মেকারের মরদেহ উদ্ধার Logo আমতলী সরকারী কলেজ ও উপজেলা পরিষদের সামনের ঘর অপসারনের দাবী !
প্রতিনিধি নিয়োগ
দৈনিক সময়ের প্রত্যাশা পত্রিকার জন্য সারা দেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ করা হচ্ছে। আপনি আপনার এলাকায় সাংবাদিকতা পেশায় আগ্রহী হলে যোগাযোগ করুন।

সভাপতির হস্তক্ষেপে প্রবেশপত্র পেল এসএসসি পরীক্ষার্থী

রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার আড়কান্দি উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি অলোক কুমার ঘোষের হস্তক্ষেপে এসএসসি পরীক্ষার প্রবেশপত্র হাতে পেয়েছে হুমায়ন আজাদ নামের এক  পরীক্ষার্থী।
রোববার (১০ মার্চ) বেলা ১২ টার দিকে ওই শিক্ষার্থীর মা ঝর্ণা খাতুনের কাছে সোমবারে (১১ মার্চ) সকাল ১০টায় অনুষ্ঠিতব্য হিসাববিজ্ঞান  পরীক্ষার প্রবেশপত্র বুঝিয়ে দেন অত্র বিদ্যালয়ের  সভাপতি।
ওই শিক্ষার্থীর মা ঝর্ণা খাতুন  বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, তার ছেলে ২০২২ সালের বাণিজ্য বিভাগ থেকে এসএসসি পরীক্ষা দিয়ে এক বিষয়ে (হিসাববিজ্ঞান) অকৃতকার্য হয়েছিল। ২০২৩ সালে তার ছেলে অসুস্থ থাকায় সে আবারও অকৃতকার্য হয়। এবার ২০২৪ সালে তার ছেলের রেজিস্ট্রেশন অনুযায়ী পরীক্ষা দেবার  শেষ সুযোগ।
তাই তিনি ছেলের জন্য বিদ্যালয়ের ১২ মাসের বেতন পরিশোধ করে ফরম ফিলাপ করেন। কিন্তু ২০২৪ সালের অত্র বিদ্যালয়ের সকল পরীক্ষার্থীদের প্রবেশপত্র আসলেও তার ছেলের প্রবেশপত্র আসেনি। ১১ মার্চ হিসাব বিজ্ঞান পরীক্ষা হবে। তাই তিনি এক সপ্তাহ আগে বিদ্যালয়ে গেলে প্রধান শিক্ষক নানা ধরণের টালবাহানা করতে থাকেন এবং এক পর্যায়ে বাজে ব্যবহার করতে শুরু করেন। বেতন ও ফরম ফিলাপের টাকা নেওয়ার বিষয়টিও প্রধান শিক্ষক অস্বীকার করেন বলে তিনি  জানান।
অবস্থা অন্যরকম দেখে আমি ছেলের প্রবেশপত্র না পেলে বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে আত্নহত্যার হুমকি দেই। এরপর বিষয়টি বিদ্যালয়ের সভাপতি জানার পর দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য প্রধান শিক্ষককে নির্দেশ প্রদান করেন। এরপরেই নড়েচড়ে বসেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। অবশেষে রোববার (১০ মার্চ) দুপুরে সভাপতি ও বিদ্যালয়ের শিক্ষকবৃন্দ আমার হাতে প্রবেশপত্রের একটি ফটোকপি তুলে দেন। তবে এখনো মূল প্রবেশপত্র হাতে পাইনি। আর অনলাইনের উপস্থিতির স্বাক্ষরলিপির কাগজ এখনো আপ হয়নি। তবে কোন সমস্যা হবেনা বলে জানিয়েছেন সভাপতি। অনলাইনে ছাত্রের উপস্থিতির বিষয়ে কাজ চলছে বলে তিনি জানান।
বিদ্যালয়ের সভাপতি অলোক কুমার ঘোষ বলেন, বিষয়টি দু:খজনক। হুমায়ন আজাদ আমাদের বিদ্যালয়েরই ছাত্র। তার কোন সমস্যা হলে সেটা দেখার দায়িত্ব আমাদের। আমি যখন বিষয়টি শুনেছি তখনই ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রধান শিক্ষককে নির্দেশ দিয়েছি। এটা আমার দায়িত্ব। দায়িত্ববোধের জায়গা থেকেই এটা করেছি।
প্রবেশপত্র বুঝিয়ে দেওয়ার সময় উপস্থিত ছিলেন বিদ্যালয়ের সহকারি প্রধান শিক্ষক তাপস কুমার দাস, শিক্ষক প্রতিনিধি বিলকিস খাতুন, বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সাবেক সদস্য শুকুর আলী মিয়াসহ প্রমূখ।
Tag :
এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

জনপ্রিয় সংবাদ

খোকসায় প্রাণিসেবা সপ্তাহ সমাপনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত

error: Content is protected !!

সভাপতির হস্তক্ষেপে প্রবেশপত্র পেল এসএসসি পরীক্ষার্থী

আপডেট টাইম : ০৪:৪১ অপরাহ্ন, রবিবার, ১০ মার্চ ২০২৪
রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার আড়কান্দি উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি অলোক কুমার ঘোষের হস্তক্ষেপে এসএসসি পরীক্ষার প্রবেশপত্র হাতে পেয়েছে হুমায়ন আজাদ নামের এক  পরীক্ষার্থী।
রোববার (১০ মার্চ) বেলা ১২ টার দিকে ওই শিক্ষার্থীর মা ঝর্ণা খাতুনের কাছে সোমবারে (১১ মার্চ) সকাল ১০টায় অনুষ্ঠিতব্য হিসাববিজ্ঞান  পরীক্ষার প্রবেশপত্র বুঝিয়ে দেন অত্র বিদ্যালয়ের  সভাপতি।
ওই শিক্ষার্থীর মা ঝর্ণা খাতুন  বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, তার ছেলে ২০২২ সালের বাণিজ্য বিভাগ থেকে এসএসসি পরীক্ষা দিয়ে এক বিষয়ে (হিসাববিজ্ঞান) অকৃতকার্য হয়েছিল। ২০২৩ সালে তার ছেলে অসুস্থ থাকায় সে আবারও অকৃতকার্য হয়। এবার ২০২৪ সালে তার ছেলের রেজিস্ট্রেশন অনুযায়ী পরীক্ষা দেবার  শেষ সুযোগ।
তাই তিনি ছেলের জন্য বিদ্যালয়ের ১২ মাসের বেতন পরিশোধ করে ফরম ফিলাপ করেন। কিন্তু ২০২৪ সালের অত্র বিদ্যালয়ের সকল পরীক্ষার্থীদের প্রবেশপত্র আসলেও তার ছেলের প্রবেশপত্র আসেনি। ১১ মার্চ হিসাব বিজ্ঞান পরীক্ষা হবে। তাই তিনি এক সপ্তাহ আগে বিদ্যালয়ে গেলে প্রধান শিক্ষক নানা ধরণের টালবাহানা করতে থাকেন এবং এক পর্যায়ে বাজে ব্যবহার করতে শুরু করেন। বেতন ও ফরম ফিলাপের টাকা নেওয়ার বিষয়টিও প্রধান শিক্ষক অস্বীকার করেন বলে তিনি  জানান।
অবস্থা অন্যরকম দেখে আমি ছেলের প্রবেশপত্র না পেলে বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে আত্নহত্যার হুমকি দেই। এরপর বিষয়টি বিদ্যালয়ের সভাপতি জানার পর দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য প্রধান শিক্ষককে নির্দেশ প্রদান করেন। এরপরেই নড়েচড়ে বসেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। অবশেষে রোববার (১০ মার্চ) দুপুরে সভাপতি ও বিদ্যালয়ের শিক্ষকবৃন্দ আমার হাতে প্রবেশপত্রের একটি ফটোকপি তুলে দেন। তবে এখনো মূল প্রবেশপত্র হাতে পাইনি। আর অনলাইনের উপস্থিতির স্বাক্ষরলিপির কাগজ এখনো আপ হয়নি। তবে কোন সমস্যা হবেনা বলে জানিয়েছেন সভাপতি। অনলাইনে ছাত্রের উপস্থিতির বিষয়ে কাজ চলছে বলে তিনি জানান।
বিদ্যালয়ের সভাপতি অলোক কুমার ঘোষ বলেন, বিষয়টি দু:খজনক। হুমায়ন আজাদ আমাদের বিদ্যালয়েরই ছাত্র। তার কোন সমস্যা হলে সেটা দেখার দায়িত্ব আমাদের। আমি যখন বিষয়টি শুনেছি তখনই ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রধান শিক্ষককে নির্দেশ দিয়েছি। এটা আমার দায়িত্ব। দায়িত্ববোধের জায়গা থেকেই এটা করেছি।
প্রবেশপত্র বুঝিয়ে দেওয়ার সময় উপস্থিত ছিলেন বিদ্যালয়ের সহকারি প্রধান শিক্ষক তাপস কুমার দাস, শিক্ষক প্রতিনিধি বিলকিস খাতুন, বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সাবেক সদস্য শুকুর আলী মিয়াসহ প্রমূখ।