ঢাকা , শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
প্রতিনিধি নিয়োগ
দৈনিক সময়ের প্রত্যাশা পত্রিকার জন্য সারা দেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ করা হচ্ছে। আপনি আপনার এলাকায় সাংবাদিকতা পেশায় আগ্রহী হলে যোগাযোগ করুন।

ফরিদপুর -২ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থীর মনোনয়নপত্র জমা দিলেন জামাল হোসেন মিয়া

আগামী ৭ জানুয়ারী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে ফরিদপুর-২ আসন থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ফরিদপুরের সালথায় মনোনয়নপত্র দাখিল করলেন ‌জেলা আওয়ামী লীগের শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক, নগরকান্দা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বসুন্ধরা গ্রুপের নির্বাহী পরিচালক এ্যাড: জামাল হোসেন মিয়া। বৃহস্পতিবার (৩০ নভেম্বর) দুপুরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আনিছুর রহমান বালীর নিকট মনোনয়নপত্র দাখিল করেন তিনি। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) শাহাদাৎ হোসেন, উপজেলা নির্বাচন অফিসার আব্দুর রশিদ মিয়া।
এসময় এ্যাডভোকেট জামাল হোসেন মিয়া বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ কে ধারণ করে বাংলাদেশের গণমানুষের নেত্রী আওয়ামী লীগের আস্থার শেষ ঠিকানা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমি আওয়ামী লীগ করি। আমি আওয়ামী লীগ ও বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তান। আমি মনে  প্রাণে আওয়ামী লীগকে ভালোবাসি। আমি নৌকার বিপক্ষে না কিন্তু ফরিদপুর -২ আসনে যাকে নৌকার মনোনয়ন দিয়েছেন উনাকে সালথা নগরকান্দার মানুষ প্রত্যাখ্যান করেছে। জনগণের ইচ্ছায় ও ভালোবাসায় আজকে আমি মনোনয়নপত্র দাখিল করেছি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে।
তিনি আরও বলেন, মাননীয় নেত্রী বলেছেন যে কেউ স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দাখিল করেন তার মধ্যে নির্বাচনের যিনি জয়লাভ করে আসবেন তিনি আমার প্রার্থী। এইজন্য নেত্রীর নির্দেশে সালথা নগরকান্দা ফরিদপুর ২ আসনের জনগণের ইচ্ছায় ও ভালোবাসায় আমি মনোনয়ন দাখিল করেছি। বিজয়ের ব্যাপারে আমি শতভাগ আশাবাদী। আমি বিশ্বাস করি সালথা নগরকান্দার প্রিয় জনগণ আমাকে বিপুল ভোটের মাধ্যমে জয়লাভ করে এই সীট প্রধানমন্ত্রীকে উপহার দিবেন।
সেই সাথে আমি নির্বাচিত হয়ে সালথা নগরকাদার অবহেলিত ত্যাগী নির্যাতিত যে নেতাকর্মী রয়েছে তাদেরকে সাথে নিয়ে ফরিদপুর -২ আসনের নগরকান্দা ও সালথার যে উন্নয়ন বাকী রয়েছে জননেত্রী শেখ হাসিনার রাস্ট্রের অংশীদার হিসেবে আগামীতে সেই উন্নয়ন করব ইনশাআল্লাহ। সালথা নগরকান্দাকে সন্ত্রাস মুক্ত, মাদক মুক্ত ও দূর্নীতি মুক্ত মডেল হিসেবে গড়ে তুলবো। নারী এবং যুবকদের কর্মসংস্থানের  প্রয়োজন এজন্য একটি নারী ট্রেনিং সেন্টার এবং যুবকদের জন্য কর্মসংস্থানের ব্যাবস্থা করব। আপনারা সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন।
মনোনয়ন জমাদান কালে আরও উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. দেলোয়ার হোসেন মিয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক চৌধুরী সাব্বির আলী, আনোয়ার হোসেন মিয়া, উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মো. ওহিদুজ্জামান মোল্লা, সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান লেবু মোল্লা, মাঝারদিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আফছার মাতুব্বর, রামকান্তপুর ইউপি চেয়ারম্যন মো. ইশারত হোসেন, যদুনন্দী ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম, আওয়ামীলীগ নেতা আব্দুল কাইয়ুম মোল্লা, কৃষকলীগ নেতা আবুল কালাম, ছাত্রলীগ নেতা হুসাইন আলী প্রমূখ। এছাড়াও আওয়ামীলীগ ও এর অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
Tag :
এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

জনপ্রিয় সংবাদ

খেলাধুলা মানসিক বিকাশ ও শরীর গঠনে সহায়তা করেঃ -লিয়াকত সিকদার

error: Content is protected !!

ফরিদপুর -২ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থীর মনোনয়নপত্র জমা দিলেন জামাল হোসেন মিয়া

আপডেট টাইম : ০২:৩৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১ ডিসেম্বর ২০২৩
আগামী ৭ জানুয়ারী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে ফরিদপুর-২ আসন থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ফরিদপুরের সালথায় মনোনয়নপত্র দাখিল করলেন ‌জেলা আওয়ামী লীগের শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক, নগরকান্দা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বসুন্ধরা গ্রুপের নির্বাহী পরিচালক এ্যাড: জামাল হোসেন মিয়া। বৃহস্পতিবার (৩০ নভেম্বর) দুপুরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আনিছুর রহমান বালীর নিকট মনোনয়নপত্র দাখিল করেন তিনি। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) শাহাদাৎ হোসেন, উপজেলা নির্বাচন অফিসার আব্দুর রশিদ মিয়া।
এসময় এ্যাডভোকেট জামাল হোসেন মিয়া বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ কে ধারণ করে বাংলাদেশের গণমানুষের নেত্রী আওয়ামী লীগের আস্থার শেষ ঠিকানা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমি আওয়ামী লীগ করি। আমি আওয়ামী লীগ ও বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তান। আমি মনে  প্রাণে আওয়ামী লীগকে ভালোবাসি। আমি নৌকার বিপক্ষে না কিন্তু ফরিদপুর -২ আসনে যাকে নৌকার মনোনয়ন দিয়েছেন উনাকে সালথা নগরকান্দার মানুষ প্রত্যাখ্যান করেছে। জনগণের ইচ্ছায় ও ভালোবাসায় আজকে আমি মনোনয়নপত্র দাখিল করেছি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে।
তিনি আরও বলেন, মাননীয় নেত্রী বলেছেন যে কেউ স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দাখিল করেন তার মধ্যে নির্বাচনের যিনি জয়লাভ করে আসবেন তিনি আমার প্রার্থী। এইজন্য নেত্রীর নির্দেশে সালথা নগরকান্দা ফরিদপুর ২ আসনের জনগণের ইচ্ছায় ও ভালোবাসায় আমি মনোনয়ন দাখিল করেছি। বিজয়ের ব্যাপারে আমি শতভাগ আশাবাদী। আমি বিশ্বাস করি সালথা নগরকান্দার প্রিয় জনগণ আমাকে বিপুল ভোটের মাধ্যমে জয়লাভ করে এই সীট প্রধানমন্ত্রীকে উপহার দিবেন।
সেই সাথে আমি নির্বাচিত হয়ে সালথা নগরকাদার অবহেলিত ত্যাগী নির্যাতিত যে নেতাকর্মী রয়েছে তাদেরকে সাথে নিয়ে ফরিদপুর -২ আসনের নগরকান্দা ও সালথার যে উন্নয়ন বাকী রয়েছে জননেত্রী শেখ হাসিনার রাস্ট্রের অংশীদার হিসেবে আগামীতে সেই উন্নয়ন করব ইনশাআল্লাহ। সালথা নগরকান্দাকে সন্ত্রাস মুক্ত, মাদক মুক্ত ও দূর্নীতি মুক্ত মডেল হিসেবে গড়ে তুলবো। নারী এবং যুবকদের কর্মসংস্থানের  প্রয়োজন এজন্য একটি নারী ট্রেনিং সেন্টার এবং যুবকদের জন্য কর্মসংস্থানের ব্যাবস্থা করব। আপনারা সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন।
মনোনয়ন জমাদান কালে আরও উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. দেলোয়ার হোসেন মিয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক চৌধুরী সাব্বির আলী, আনোয়ার হোসেন মিয়া, উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মো. ওহিদুজ্জামান মোল্লা, সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান লেবু মোল্লা, মাঝারদিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আফছার মাতুব্বর, রামকান্তপুর ইউপি চেয়ারম্যন মো. ইশারত হোসেন, যদুনন্দী ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম, আওয়ামীলীগ নেতা আব্দুল কাইয়ুম মোল্লা, কৃষকলীগ নেতা আবুল কালাম, ছাত্রলীগ নেতা হুসাইন আলী প্রমূখ। এছাড়াও আওয়ামীলীগ ও এর অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।