ঢাকা , শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
Logo কবরে শায়িত দুই বন্ধু, বিষাদে পরিনত হলো আনন্দ Logo মধুখালী প্রকৃতি গ্রুপের এডমিন-মডারেটর ১ম মিলন মেলা-২০২৪ অনুষ্ঠিত Logo নলছিটিতে পৃথকভাবে পানিতে ডুবে এক শিশুর মৃত্যু ও স্কুলছাত্র নিখোঁজ Logo ১৯৮৯-৯০ সালের এস.এস.সি. ব্যাচের ছাত্র-ছাত্রীদের পুনর্মিলনী ও জ্ঞাণীজন সংবর্ধনা Logo ফরিদপুরের চরভদ্রাসনে শিশু কন্যাকে ধর্ষণের অভিযোগে পিতাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ Logo উৎসবমুখর পরিবেশে মুসলমানদের ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর পালন করেছে ইতালির ভেনিস প্রবাসীরা Logo টাঙ্গাইলের সখীপুরে একসাথে ৬টি সন্তানের জন্ম দিলেন সুমনা আক্তার! Logo তানোরে ফসলের মাঠে ইঁদুরের উপদ্রব Logo মাগুরায় নাকোল ইউপি চেয়ারম্যানের নির্দেশে প্রতিপক্ষকে মেরে দাঁত ভেঙ্গে দেওয়ার অভিযোগ Logo ভেড়ামারায় যুগল সৌন্দর্য দেখতে হার্ডিঞ্জ ব্রিজের নিচে দর্শনার্থীদের ভিড় !
প্রতিনিধি নিয়োগ
দৈনিক সময়ের প্রত্যাশা পত্রিকার জন্য সারা দেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ করা হচ্ছে। আপনি আপনার এলাকায় সাংবাদিকতা পেশায় আগ্রহী হলে যোগাযোগ করুন।

বাঘায় অগ্নিকান্ডে ১০টি ঘর পুড়ে ২০ লক্ষ টাকার ক্ষতি

রাজশাহীর বাঘায় অগ্নিকান্ডে পাটের ঘরসহ ১০টি ঘর পুড়ে প্রায় ২০ লক্ষ টাকার ক্ষতি হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৮ মে) দুপুরে গড়গড়ি ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের আশরাফপুর গ্রামের মজিবর রহমানের বাড়িতে এই অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। বাড়ির মালিক জানান, রান্না ঘরের চুলা থেকে এই অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে বলে । স্থানীয়রাসহ বাঘা ও লালুপুর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা আগুন নিয়ন্ত্রণ করে।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার দুপুরে চুলায় রান্না করা অবস্থায় বাড়ির বাইরে কাজে যায় মজিবর রহমানের স্ত্রী । সেখান থেকে অগ্নিকান্ডের সুত্রপাত হয়। প্রথমে রান্না ঘরে পাশে ৩০০ মণ পাঠ রাখা একটি ঘরে আগুন লাগে। সেখান থেকে ছড়িয়ে পড়ে ১০টি ঘর পুড়ে যায়।

বাড়ির মালিকের দাবি,ঘরে রাখা নগদ টাকা ৭ লক্ষ টাকা,৩০০ মণ পাট, ২০ মণ ভূট্টা, ৫০ মণ গম, ৫০ মণ ধান, মোটরসাইকেল, ফ্রিজ, দুটি সেলাইমেশিন, আসবাবপত্র, জামাকাপড়সহ প্রায় ২০ লক্ষ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

উপজেলা সিভিল ডিফেন্স ও ফায়ার সার্ভিস কার্যালয়ের সিনিয়র ফায়ার ফাইটার আতিকুর রহমান জানান,১০টি কক্ষের মধ্যে ৭টি শয়ন ঘর,পাট ঘর ১টি,ষ্টোর রুম ১টি ও রান্না ঘর ১টি। ৩০০ মণ পাটসহ পুড়ে গেছে,১টি মোটরসাইকেল,৩টি টিভি,ফ্রিজ ১টি, ১টি ভটভটি মেশিনসহ আসবাবপত্র।

গড়গড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম রবি বলেন, খবর পেয়ে সেখানে যায় এবং ফায়ার সর্ভিসকে খবর দিই। তারা এসে আগুন নিয়ন্ত্রণ করেছে। এর আগে বাড়ি সমস্ত মালামাল পুড়ে গেছে। বিষয়টি উপজেলা প্রশাসনকে জানানো হলে তাৎক্ষনিক তারাও ঘটনাস্থলে এসে সহযোগিতা করেছেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শারমিন আখতার বলেন, খবর পেয়ে তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে গিয়েছিলাম। তাদের কিছু পোশাক ও খাদ্য সামগ্রী দেওয়া হয়েছে।

Tag :
এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

জনপ্রিয় সংবাদ

কবরে শায়িত দুই বন্ধু, বিষাদে পরিনত হলো আনন্দ

error: Content is protected !!

বাঘায় অগ্নিকান্ডে ১০টি ঘর পুড়ে ২০ লক্ষ টাকার ক্ষতি

আপডেট টাইম : ১০:৪১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ মে ২০২৩

রাজশাহীর বাঘায় অগ্নিকান্ডে পাটের ঘরসহ ১০টি ঘর পুড়ে প্রায় ২০ লক্ষ টাকার ক্ষতি হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৮ মে) দুপুরে গড়গড়ি ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের আশরাফপুর গ্রামের মজিবর রহমানের বাড়িতে এই অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। বাড়ির মালিক জানান, রান্না ঘরের চুলা থেকে এই অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে বলে । স্থানীয়রাসহ বাঘা ও লালুপুর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা আগুন নিয়ন্ত্রণ করে।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার দুপুরে চুলায় রান্না করা অবস্থায় বাড়ির বাইরে কাজে যায় মজিবর রহমানের স্ত্রী । সেখান থেকে অগ্নিকান্ডের সুত্রপাত হয়। প্রথমে রান্না ঘরে পাশে ৩০০ মণ পাঠ রাখা একটি ঘরে আগুন লাগে। সেখান থেকে ছড়িয়ে পড়ে ১০টি ঘর পুড়ে যায়।

বাড়ির মালিকের দাবি,ঘরে রাখা নগদ টাকা ৭ লক্ষ টাকা,৩০০ মণ পাট, ২০ মণ ভূট্টা, ৫০ মণ গম, ৫০ মণ ধান, মোটরসাইকেল, ফ্রিজ, দুটি সেলাইমেশিন, আসবাবপত্র, জামাকাপড়সহ প্রায় ২০ লক্ষ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

উপজেলা সিভিল ডিফেন্স ও ফায়ার সার্ভিস কার্যালয়ের সিনিয়র ফায়ার ফাইটার আতিকুর রহমান জানান,১০টি কক্ষের মধ্যে ৭টি শয়ন ঘর,পাট ঘর ১টি,ষ্টোর রুম ১টি ও রান্না ঘর ১টি। ৩০০ মণ পাটসহ পুড়ে গেছে,১টি মোটরসাইকেল,৩টি টিভি,ফ্রিজ ১টি, ১টি ভটভটি মেশিনসহ আসবাবপত্র।

গড়গড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম রবি বলেন, খবর পেয়ে সেখানে যায় এবং ফায়ার সর্ভিসকে খবর দিই। তারা এসে আগুন নিয়ন্ত্রণ করেছে। এর আগে বাড়ি সমস্ত মালামাল পুড়ে গেছে। বিষয়টি উপজেলা প্রশাসনকে জানানো হলে তাৎক্ষনিক তারাও ঘটনাস্থলে এসে সহযোগিতা করেছেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শারমিন আখতার বলেন, খবর পেয়ে তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে গিয়েছিলাম। তাদের কিছু পোশাক ও খাদ্য সামগ্রী দেওয়া হয়েছে।