ঢাকা , শনিবার, ২৫ মার্চ ২০২৩, ১১ চৈত্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
সালথায় বজ্রপাতে যুবকের মৃত্যু সালথায় গণহত্যা দিবস উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত ফরিদপুরের সালথা উপজেলার বল্লভদী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কর্মী সভা অনুষ্ঠিত খোকসায় ২৫ মার্চ গণহত্যা দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত ফরিদপুর জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ২৫ মার্চ গণহত্যা দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত গণহত্যা দিবসে টুঙ্গিপাড়া বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধা সদরপুরে জমে উঠেছে লালমীর হাটঃ দাম বেসী পাওয়ায় কৃষকের মুখে হাসি কাশিয়ানীতে ১৬ কেজি গাঁজাসহ যুবক আটক ভাঙ্গায় ২৫ মার্চ গনহত্যা দিবস স্মরণে আলোচনা সভা পাঠক হতে পারে একাধিকঃ বীর মুক্তিযুদ্ধা ও প্রেসিডিয়াম সদস্য ডা. জালাল মহিউদ্দিন

নগরকান্দায় জনগনের রোষানলে উপজেলা চেয়ারম্যানের ভাই

ফরিদপুরের নগরকান্দায় জনগনের রোষানলে পড়ে আহত হয়েছেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান সরদারের ছোট ভাই ডাঙ্গী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান সাইফুজ্জামান বুলবুল সরদার।
বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ফরিদপুর-বরিশাল মহাসড়কের উপজেলার শংকরপাশা ব্রীজের উপর এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে থানা পুলিশ উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। তবে বুলবুল সরদার সামান্য আহত হলে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।
এলাকাবাসি জানায় ক্ষুদ্র পানি সম্পদ দপ্তরের অধীনে কৃঞ্চনগর শংকরপাশা খালের ৫ কিলোমিটার এলাকা পুনঃখননের জন্য প্রায় ২ কোটি ৬৩ লাখ টাকা বরাদ্দ হয়। কাজটি বাস্তবায়ন করছেন বিলগোবিন্দপুর ক্ষুদ্র পানি সম্পদ সমবায় সমিতির সভাপতি সাইফুজ্জামান বুলবুল সরদার।
ভেকু মেশিন দিয়ে খাল পুনঃখননের কাজ চলা কালীন খালের পাশে মালিকানা গাছ ভেঙ্গে তার উপর মাটি ফেলা হচ্ছে। এ ব্যাপারে ভুক্তভোগীরা ডাঙ্গী ইউপি চেয়ারম্যানকে অবহিত করেন। চেয়ারম্যান কাজী আবুল কালাম ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে গাছ ভাংতে নিষেধ করেন।
এতে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে বুলবুল সরদার চেয়ারম্যান কাজী আবুল কালামকে থাপ্পড় মারে। এমন খবর পেয়ে এলাকাবাসি সংঘবদ্ধ হয়ে বুলবুল সরদারের উপর হামলা চালায়।
সাইফুজ্জামান বুলবুল সরদার অভিযোগ করে বলেন, কালাম কাজী প্রথমে আমাকে কিল ঘুষি মারে পরে উনার সাথে থাকা ৩/৪ জন সন্ত্রাসী লোক আমাকে আঘাত করে।
ইউপি চেয়ারম্যান কাজী আবুল কালাম বলেন, এলাকাবাসি আমার নিকট অভিযোগ করেন যে তাদের গাছগুলো ভ্যেকুদিয়ে ভেঙ্গে তার উপর মাটি ফেলা হচ্ছে। তাই আমি ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে বুলবুল সরদারকে বলছি ওরা গরীব মানুষ। ওদের একটু সময় দিন গাছগুলো কেটে বিক্রি করে দিবে। তখন বুলবুল সরদার আমার উপর চড়াও হয়।
আমাকে গালি দিয়ে বলে তুই এখানে এসেছিস কেন? এই বলেই আমার মুখে সজোরে থাপ্পড় মারে। এখবর শুনে এলাকার লোকজন ছুটে এসে তাকে ঘন ধোলাই দেয়। আমি নিজেই তাকে জনগনের হাত থেকে রক্ষা করে সরিয়ে দিয়েছি।
থানা ওসি তদন্ত মিরাজ হোসেন বলেন, সংবাদ পেয়ে পুলিশ উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে। এ ব্যাপারে বুলবুল সরদার থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে। তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
Tag :

এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

সালথায় বজ্রপাতে যুবকের মৃত্যু

error: Content is protected !!

নগরকান্দায় জনগনের রোষানলে উপজেলা চেয়ারম্যানের ভাই

আপডেট টাইম : ০৩:৫৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ মার্চ ২০২১
ফরিদপুরের নগরকান্দায় জনগনের রোষানলে পড়ে আহত হয়েছেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান সরদারের ছোট ভাই ডাঙ্গী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান সাইফুজ্জামান বুলবুল সরদার।
বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ফরিদপুর-বরিশাল মহাসড়কের উপজেলার শংকরপাশা ব্রীজের উপর এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে থানা পুলিশ উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। তবে বুলবুল সরদার সামান্য আহত হলে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।
এলাকাবাসি জানায় ক্ষুদ্র পানি সম্পদ দপ্তরের অধীনে কৃঞ্চনগর শংকরপাশা খালের ৫ কিলোমিটার এলাকা পুনঃখননের জন্য প্রায় ২ কোটি ৬৩ লাখ টাকা বরাদ্দ হয়। কাজটি বাস্তবায়ন করছেন বিলগোবিন্দপুর ক্ষুদ্র পানি সম্পদ সমবায় সমিতির সভাপতি সাইফুজ্জামান বুলবুল সরদার।
ভেকু মেশিন দিয়ে খাল পুনঃখননের কাজ চলা কালীন খালের পাশে মালিকানা গাছ ভেঙ্গে তার উপর মাটি ফেলা হচ্ছে। এ ব্যাপারে ভুক্তভোগীরা ডাঙ্গী ইউপি চেয়ারম্যানকে অবহিত করেন। চেয়ারম্যান কাজী আবুল কালাম ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে গাছ ভাংতে নিষেধ করেন।
এতে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে বুলবুল সরদার চেয়ারম্যান কাজী আবুল কালামকে থাপ্পড় মারে। এমন খবর পেয়ে এলাকাবাসি সংঘবদ্ধ হয়ে বুলবুল সরদারের উপর হামলা চালায়।
সাইফুজ্জামান বুলবুল সরদার অভিযোগ করে বলেন, কালাম কাজী প্রথমে আমাকে কিল ঘুষি মারে পরে উনার সাথে থাকা ৩/৪ জন সন্ত্রাসী লোক আমাকে আঘাত করে।
ইউপি চেয়ারম্যান কাজী আবুল কালাম বলেন, এলাকাবাসি আমার নিকট অভিযোগ করেন যে তাদের গাছগুলো ভ্যেকুদিয়ে ভেঙ্গে তার উপর মাটি ফেলা হচ্ছে। তাই আমি ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে বুলবুল সরদারকে বলছি ওরা গরীব মানুষ। ওদের একটু সময় দিন গাছগুলো কেটে বিক্রি করে দিবে। তখন বুলবুল সরদার আমার উপর চড়াও হয়।
আমাকে গালি দিয়ে বলে তুই এখানে এসেছিস কেন? এই বলেই আমার মুখে সজোরে থাপ্পড় মারে। এখবর শুনে এলাকার লোকজন ছুটে এসে তাকে ঘন ধোলাই দেয়। আমি নিজেই তাকে জনগনের হাত থেকে রক্ষা করে সরিয়ে দিয়েছি।
থানা ওসি তদন্ত মিরাজ হোসেন বলেন, সংবাদ পেয়ে পুলিশ উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে। এ ব্যাপারে বুলবুল সরদার থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে। তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।