ঢাকা , শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
Logo ঢাকায় সংবাদ সম্মেলনে কান্নাজড়িত কণ্ঠে আঞ্জুমান আরা Logo দৌলতপুরে ব্র্যাক শাখা অফিসের উদ্বোধন Logo তানোরে ইউপি চেয়ারম্যানের মৃত্যুতে শোকসভা ও মিলাদ Logo তানোরে গরু মোটাতাজা করণে নিষিদ্ধ ওষুধের রমরমা বাণিজ্যে Logo উচ্চ আদালতে রিট পিটিশন দায়েরঃ ভোট গ্রহণের ৫ দিন আগে যশোর সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন স্থগিত Logo যশোরে ৭০ লাখ টাকা ফেরত না দিয়ে প্রতারণার অভিযোগে আদালতে মামলা Logo তানোর পোস্ট অফিস থেকে টাকা গায়েবঃ ফেরত পেতে গ্রাহকের আত্মহত্যার হুমকি Logo নড়াইল সদর উপজেলা নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ ও বিতর্কিত করার চেষ্টার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন Logo বোয়ালমারীতে চেয়ারম্যান প্রার্থী লিটু শরীফের গণমাধ্যম কর্মীদের সাথে মতবিনিময় Logo প্রেম প্রস্তাবে ব্যর্থ হয়ে এডিস নিক্ষেপকারী যুবকের যাবজ্জীবন কারাদন্ড
প্রতিনিধি নিয়োগ
দৈনিক সময়ের প্রত্যাশা পত্রিকার জন্য সারা দেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ করা হচ্ছে। আপনি আপনার এলাকায় সাংবাদিকতা পেশায় আগ্রহী হলে যোগাযোগ করুন।

ফরিদপুরে পুণ্যস্নানে হাজারো মানুষের ঢল

ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে পুণ্যস্নান অনুষ্ঠিত হয়েছে। এখানকার পূর্ণস্নান শত বছরের পুরোনো ঐতিহ্য। ফরিদপুর সহ বিভিন্ন জেলা থেকে আসেন পূন্যার্থীরা।

রোববার (০৫ ফেব্রুয়ারি) উপজেলার সাতৈর ইউনিয়নের জয়নগরে অবস্থিত কয়ড়া কালীমন্দির ঘেঁষে প্রবাহিত চন্দনা-বারাসিয়া নদীতে এ পুণ্যস্নান অনুষ্ঠিত হয়।

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের পুণ্যস্নান ও নানা আয়োজনের পাশাপাশি বসেছে ঐতিহ্যবাহী মেলা। তিন দিন ব্যাপী অনুষ্ঠিত হবে এ মেলা। প্রতি বছরের মতো এবারও নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের ধর্মীয় উৎসবের অন্যতম পুণ্যস্নান অনুষ্ঠিত হয়।

মাঘীপূর্ণিমা তিথিতে এ পুণ্যস্নানের মাধ্যমে মায়ের কাছে প্রার্থনা করে নিজেদের পাপ মোচন করেন। ভোরের আলো ফোটার সঙ্গে সঙ্গেই দূর-দূরান্ত থেকে আসা সনাতন ধর্মাবলম্বী পুণ্যার্থীদের ঢল নামে। এই তীর্থস্নানে হাজারো ভক্তবৃন্দ অংশ নেন।

গঙ্গাস্নান এর অংশ হিসেবে কুমার নদের এ ঘাটে পবিত্র হতে এ স্নান করা হয়। মা গঙ্গা মন্ত্র, আসমান, সূর্যাগ্য মন্ত্র এরকম নানা মন্ত্র পাঠ করা হয়।

মাগুরা থেকে আসা আরতি রানী মন্ডল জানান, দীর্ঘদিন যাবত এখানে আসি আমি। স্নান করে মন্ত্র পাঠ করে প্রসাদ গ্রহন করি। এবছর পরিবারের অন্যান্য সদস্যদেরও সাথে নিয়ে এসেছি।

শহরের টেপাখোলা থেকে আসা কৃষ্ণা রানী দাস বলেন, মাঘীপূর্ণিমা তিথিতে এ পুণ্যস্নানের মাধ্যমে মায়ের কাছে প্রার্থনা করে নিজেদের পাপ মোচন কিছুটা মোচনের চেষ্টা করি।

কয়রা কালী মন্দির কমিটির সভাপতি সুভাষ চন্দ্র সাহা জানান, শত বছর ধরে কয়রা কালিমন্দির সংলগ্ন কুমার নদে গঙ্গাস্নান অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। দেশের বাইরে থেকে ভক্তবৃন্দ আসেন এখানে।

তিনি আরো জানান, স্নান শেষে সকলকে প্রসাদ দেওয়া হয়। এছাড়া সপ্তাহব্যাপী মেলার আয়োজন করা হয়েছে।

Tag :
এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

ঢাকায় সংবাদ সম্মেলনে কান্নাজড়িত কণ্ঠে আঞ্জুমান আরা

error: Content is protected !!

ফরিদপুরে পুণ্যস্নানে হাজারো মানুষের ঢল

আপডেট টাইম : ০২:৪৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে পুণ্যস্নান অনুষ্ঠিত হয়েছে। এখানকার পূর্ণস্নান শত বছরের পুরোনো ঐতিহ্য। ফরিদপুর সহ বিভিন্ন জেলা থেকে আসেন পূন্যার্থীরা।

রোববার (০৫ ফেব্রুয়ারি) উপজেলার সাতৈর ইউনিয়নের জয়নগরে অবস্থিত কয়ড়া কালীমন্দির ঘেঁষে প্রবাহিত চন্দনা-বারাসিয়া নদীতে এ পুণ্যস্নান অনুষ্ঠিত হয়।

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের পুণ্যস্নান ও নানা আয়োজনের পাশাপাশি বসেছে ঐতিহ্যবাহী মেলা। তিন দিন ব্যাপী অনুষ্ঠিত হবে এ মেলা। প্রতি বছরের মতো এবারও নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের ধর্মীয় উৎসবের অন্যতম পুণ্যস্নান অনুষ্ঠিত হয়।

মাঘীপূর্ণিমা তিথিতে এ পুণ্যস্নানের মাধ্যমে মায়ের কাছে প্রার্থনা করে নিজেদের পাপ মোচন করেন। ভোরের আলো ফোটার সঙ্গে সঙ্গেই দূর-দূরান্ত থেকে আসা সনাতন ধর্মাবলম্বী পুণ্যার্থীদের ঢল নামে। এই তীর্থস্নানে হাজারো ভক্তবৃন্দ অংশ নেন।

গঙ্গাস্নান এর অংশ হিসেবে কুমার নদের এ ঘাটে পবিত্র হতে এ স্নান করা হয়। মা গঙ্গা মন্ত্র, আসমান, সূর্যাগ্য মন্ত্র এরকম নানা মন্ত্র পাঠ করা হয়।

মাগুরা থেকে আসা আরতি রানী মন্ডল জানান, দীর্ঘদিন যাবত এখানে আসি আমি। স্নান করে মন্ত্র পাঠ করে প্রসাদ গ্রহন করি। এবছর পরিবারের অন্যান্য সদস্যদেরও সাথে নিয়ে এসেছি।

শহরের টেপাখোলা থেকে আসা কৃষ্ণা রানী দাস বলেন, মাঘীপূর্ণিমা তিথিতে এ পুণ্যস্নানের মাধ্যমে মায়ের কাছে প্রার্থনা করে নিজেদের পাপ মোচন কিছুটা মোচনের চেষ্টা করি।

কয়রা কালী মন্দির কমিটির সভাপতি সুভাষ চন্দ্র সাহা জানান, শত বছর ধরে কয়রা কালিমন্দির সংলগ্ন কুমার নদে গঙ্গাস্নান অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। দেশের বাইরে থেকে ভক্তবৃন্দ আসেন এখানে।

তিনি আরো জানান, স্নান শেষে সকলকে প্রসাদ দেওয়া হয়। এছাড়া সপ্তাহব্যাপী মেলার আয়োজন করা হয়েছে।