ঢাকা , রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
প্রতিনিধি নিয়োগ
দৈনিক সময়ের প্রত্যাশা পত্রিকার জন্য সারা দেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ করা হচ্ছে। আপনি আপনার এলাকায় সাংবাদিকতা পেশায় আগ্রহী হলে যোগাযোগ করুন।

আলফাডাঙ্গায় নৌকার প্রার্থীকে পরাজিত করে মেয়র হলেন স্বতন্ত্র প্রার্থী

পাঁচ বছর পর অনুষ্ঠিত ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা পৌরসভার নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থীকে পরাজিত হয়েছে। ৪৯৪২ ভোট পেয়ে মেয়র হয়েছেন আলী আকসাদ ঝন্টু। তিনি নারকেল গাছ প্রাতীক নিয়ে ৪৯৪২ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী ও সাবেক মেয়র সাইফুর রহমান পেয়েছেন ৩৬৬০।

বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮ টায় উপজেলা হলরুমেফলাফল ঘোষণা করেন ফরিদপুর জেলা সিনিয়র নির্বাচন অফিসার হাবিবুর রহমান।
বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৮ টায় পৌরসভার ৯ টি কেন্দ্রে ইভিএমের মাধ্যমে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই ভোটগ্রহণ শেষ হয়।

শৈত্যপ্রাহের ও ঘন কুয়াশার মধ্যে ভোটারদের কেন্দ্রে এসে ভোট দিতে দেখা যায়। রাতে ফলাফল ঘোষণার পর জগ প্রতীকের সামর্থকরা আনন্দে ফেটে পড়েন।

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা শামীম আহমাদ জানান, পৌরসভার মোট ভোটার ১৩ হাজার ৮৪৯ জন এর মধ্যে পুরুষ ৬ হাজার ৮৬৮ ও নারী ভোটার ৬ হাজার ৯৬৩ জন। ৪২ টি বুথে ভোটগ্রহণ হয়। মেয়র পদে চার প্রার্থী ছাড়াও সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩৪ ও সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ১০ প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেন। নির্বাহী ১২ জন ও দুই জনজুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোতায়েন ছিলেন। ৪৪০ জন পুলিশ, বিজিবি ৮৫ জন ও ৬১২ জন আনসার সদস্যও দায়িত্ব পালন করেন।

Tag :
এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

জনপ্রিয় সংবাদ

খেলাধুলা মানসিক বিকাশ ও শরীর গঠনে সহায়তা করেঃ -লিয়াকত সিকদার

error: Content is protected !!

আলফাডাঙ্গায় নৌকার প্রার্থীকে পরাজিত করে মেয়র হলেন স্বতন্ত্র প্রার্থী

আপডেট টাইম : ০৯:৩৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ডিসেম্বর ২০২২

পাঁচ বছর পর অনুষ্ঠিত ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা পৌরসভার নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থীকে পরাজিত হয়েছে। ৪৯৪২ ভোট পেয়ে মেয়র হয়েছেন আলী আকসাদ ঝন্টু। তিনি নারকেল গাছ প্রাতীক নিয়ে ৪৯৪২ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী ও সাবেক মেয়র সাইফুর রহমান পেয়েছেন ৩৬৬০।

বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮ টায় উপজেলা হলরুমেফলাফল ঘোষণা করেন ফরিদপুর জেলা সিনিয়র নির্বাচন অফিসার হাবিবুর রহমান।
বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৮ টায় পৌরসভার ৯ টি কেন্দ্রে ইভিএমের মাধ্যমে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই ভোটগ্রহণ শেষ হয়।

শৈত্যপ্রাহের ও ঘন কুয়াশার মধ্যে ভোটারদের কেন্দ্রে এসে ভোট দিতে দেখা যায়। রাতে ফলাফল ঘোষণার পর জগ প্রতীকের সামর্থকরা আনন্দে ফেটে পড়েন।

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা শামীম আহমাদ জানান, পৌরসভার মোট ভোটার ১৩ হাজার ৮৪৯ জন এর মধ্যে পুরুষ ৬ হাজার ৮৬৮ ও নারী ভোটার ৬ হাজার ৯৬৩ জন। ৪২ টি বুথে ভোটগ্রহণ হয়। মেয়র পদে চার প্রার্থী ছাড়াও সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩৪ ও সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ১০ প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেন। নির্বাহী ১২ জন ও দুই জনজুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোতায়েন ছিলেন। ৪৪০ জন পুলিশ, বিজিবি ৮৫ জন ও ৬১২ জন আনসার সদস্যও দায়িত্ব পালন করেন।