ঢাকা , সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২৪ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
খোকসায় অবশেষে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে অসহায় বৃদ্ধ হারুন-অর-রশিদ প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়নের ঘর ফিরে পেলেন ১ লক্ষ ২৯ হাজার টাকা পরিশোধ না করায় নড়াইলে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষন অধিদপ্তরে প্রতারনার অভিযোগ করে নিজেই প্রতারনায় ফেঁসে গেলেন জামী সাংবাদিক কৃষকের পেঁয়াজের ক্ষেত বিষ দিয়ে নষ্টের অভিযোগ নড়াইলের লোহাগড়ার দুই সন্তানের জননী কে গলা কেটে হত্যার অভিযোগ নড়াইলে দুগ্রুপের সংঘর্ষে অন্তত ১২জন আহত নগরকান্দায় শিশুর জন্ম হলেই উপহার ও মিষ্টি নিয়ে হাজির ইউএনও বাস্তব কাহিনীতে ইউএনও’র লেখায় নির্মিত হচ্ছে নাটক ‘স্বপ্নের ঠিকানা’ সালথায় ঘরের আড়ার সঙ্গে ঝুলছিল গৃহবধূর মরদেহ,পরিবারের দাবি হত্যা ভালোবাসা দিবসে উপহার নিয়ে এলো ইনফিনিক্স লাভ ফেস্ট জাতীয় গ্রন্থগার দিবস উপলক্ষে আলফাডাঙ্গায় গুণীজন সংবর্ধনা

রাখাইনে জাহাজডুবিতে অন্তত ১৮ জন নিহত

রাখাইন প্রদেশের মানাউং শহরে গত সোমবার মিয়ানমার বন্দর কর্তৃপক্ষের একটি জাহাজডুবিতে অন্তত ১৮ জন নিহত হওয়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে। দেশটির দমকল বাহিনী বিভাগের বরাত দিয়ে এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে মিয়ানমারের দৈনিক ইরাবতী।

ইরাবতীর প্রতিবেদেন বলা হচ্ছে, জাহাজডুবির ঘটনায় দমকল বাহিনীর ১০ সদস্যের সমন্বয়ে একটি উদ্ধারকারী দল গঠন করা হয়েছে। ‘বুল এলিফ্যান্ট’ নামের ওই জাহাজটিতে মোট ২৫ জন সদস্য ছিল বলেও জানিয়েছে তারা।

দমকল বাহিনীর প্রধান উ থ দার ইরাবতীকে বলেন, ‘বুল এলিফ্যান্ট নামের একটি জাহাজ ২৫ জন যাত্রী নিয়ে মানাউং শহরের লেট পেট তোয়া দ্বীপে একটি লাইট হাউস মেরামতের জন্য যাচ্ছিলেন। যাত্রাপথে জাহাজটি দুর্ঘটনার কবলে পড়ে।’

অন্যান্য কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে ইরাবতীর প্রতিবেদনে জানানো হচ্ছে, জাহাজডুবির ঘটনায় সাতজন মানুষকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। তবে তারা এ বিষয়ে বিস্তারিত কোনো তথ্য দিতে পারেন নি।

মিয়ানমার বন্দর কর্তৃপক্ষ বলছে, নিহতরা তাদের কর্মী কি-না তা এত দ্রুত নিশ্চিত হতে পারছেন না তারা। বন্দর কর্তৃপক্ষের এক কর্মকর্তা বলেন, ‘জাহাজডুবির কারণ আমরা এখনো জানতে পারিনি। আমাদের একটি দল উদ্ধার অভিযান অব্যাহত রেখেছে।’

রাখাইনের প্রদেশিক পরিষদের আইনপ্রণেতা উ বো নওয়ে বলেন, ‘আমরা শহরের বাসিন্দাদের কাছ থেকে এটা জানতে পেরেছি যে পানিতে ডুবে থাকা বরফখণ্ডের সঙ্গে ধাক্কা লেগে জাহাজটি ডুবে যায়। উপকূল থেকে চার মাইল দূরে জাহাজডুবির ঘটনাটি ঘটেছে।’

মানাউং শহরের প্রশাসক উ মিন্ট হ্লেইং বলেন, ‘আমি শুধু এটা জানতে পেরেছি ডুবে যাওয়া ওই জাহাজটিতে ২৫ জন যাত্রী ছিল।’

Tag :

এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

খোকসায় অবশেষে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে অসহায় বৃদ্ধ হারুন-অর-রশিদ প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়নের ঘর ফিরে পেলেন

error: Content is protected !!

রাখাইনে জাহাজডুবিতে অন্তত ১৮ জন নিহত

আপডেট টাইম : ১০:৪৬ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১১ ফেব্রুয়ারী ২০১৯

রাখাইন প্রদেশের মানাউং শহরে গত সোমবার মিয়ানমার বন্দর কর্তৃপক্ষের একটি জাহাজডুবিতে অন্তত ১৮ জন নিহত হওয়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে। দেশটির দমকল বাহিনী বিভাগের বরাত দিয়ে এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে মিয়ানমারের দৈনিক ইরাবতী।

ইরাবতীর প্রতিবেদেন বলা হচ্ছে, জাহাজডুবির ঘটনায় দমকল বাহিনীর ১০ সদস্যের সমন্বয়ে একটি উদ্ধারকারী দল গঠন করা হয়েছে। ‘বুল এলিফ্যান্ট’ নামের ওই জাহাজটিতে মোট ২৫ জন সদস্য ছিল বলেও জানিয়েছে তারা।

দমকল বাহিনীর প্রধান উ থ দার ইরাবতীকে বলেন, ‘বুল এলিফ্যান্ট নামের একটি জাহাজ ২৫ জন যাত্রী নিয়ে মানাউং শহরের লেট পেট তোয়া দ্বীপে একটি লাইট হাউস মেরামতের জন্য যাচ্ছিলেন। যাত্রাপথে জাহাজটি দুর্ঘটনার কবলে পড়ে।’

অন্যান্য কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে ইরাবতীর প্রতিবেদনে জানানো হচ্ছে, জাহাজডুবির ঘটনায় সাতজন মানুষকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। তবে তারা এ বিষয়ে বিস্তারিত কোনো তথ্য দিতে পারেন নি।

মিয়ানমার বন্দর কর্তৃপক্ষ বলছে, নিহতরা তাদের কর্মী কি-না তা এত দ্রুত নিশ্চিত হতে পারছেন না তারা। বন্দর কর্তৃপক্ষের এক কর্মকর্তা বলেন, ‘জাহাজডুবির কারণ আমরা এখনো জানতে পারিনি। আমাদের একটি দল উদ্ধার অভিযান অব্যাহত রেখেছে।’

রাখাইনের প্রদেশিক পরিষদের আইনপ্রণেতা উ বো নওয়ে বলেন, ‘আমরা শহরের বাসিন্দাদের কাছ থেকে এটা জানতে পেরেছি যে পানিতে ডুবে থাকা বরফখণ্ডের সঙ্গে ধাক্কা লেগে জাহাজটি ডুবে যায়। উপকূল থেকে চার মাইল দূরে জাহাজডুবির ঘটনাটি ঘটেছে।’

মানাউং শহরের প্রশাসক উ মিন্ট হ্লেইং বলেন, ‘আমি শুধু এটা জানতে পেরেছি ডুবে যাওয়া ওই জাহাজটিতে ২৫ জন যাত্রী ছিল।’