ঢাকা , শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
Logo ফরিদপুর জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান Logo কোটা আন্দোলন : শিবগঞ্জে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ-সমাবেশ Logo মাগুরায় চাকরির প্রলোভনে টাকা হাতিয়ে উল্টো ভুক্তভোগীর বিরুদ্ধেই মামলার অভিযোগ Logo খোকসায় উপজেলা ছাত্র কল্যাণ পরিষদ মেধাবী শিক্ষার্থী মারিয়াকে সংবর্ধনা প্রদান Logo চাঁপাইনবাবগঞ্জে বজ্রপাতে দুই কৃষক নিহত Logo কালুখালীতে ফুটবল টুর্ণামেন্টের ফাইনাল খেলা Logo ১২০ কেজি অবৈধ পলিথিন জব্দ, ১২ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত Logo তানোরে সড়ক দূর্ঘটনায় শোডাউনের এক মাইক্রোবাস চালক নিহত Logo যৌতুকের দাবিতে কলেজছাত্রীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ Logo সদরপুরে ৪ কেজি গাঁজা সহ ব্যবসায়ী কে আটক করেছে ডি বি পুলিশ
প্রতিনিধি নিয়োগ
দৈনিক সময়ের প্রত্যাশা পত্রিকার জন্য সারা দেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ করা হচ্ছে। আপনি আপনার এলাকায় সাংবাদিকতা পেশায় আগ্রহী হলে যোগাযোগ করুন।

মাধবদীর ফুলতলা এলাকায় জোরপূর্বক সীমানা প্রাচীর নির্মাণের অভিযোগ

নরসিংদীর মাধবদীতে জোরপূর্বক সীমানা প্রাচীর নির্মাণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। স্থানীয় কমিশনার ও থানায় অভিযোগ করেও এ বিষয়ে কোনো সুরাহা পায়নি ভুক্তভোগী। পরবর্তীতে আদালতের শরণাপন্ন হলে, কাজ বন্ধ করলেও, প্রাচীর নির্মাণ করতে নানা অপকৌশল চালাচ্ছে ভূমিদস্যুরা।
জানা যায়, মাধবদী থানার আটপাইকা গ্রামের সিদ্দিক ভূঁইয়ার ছেলে মো: আশরাফ ভূঁইয়ার সাথে একই গ্রামের বাসিন্দা মৃত শফিউদ্দিন ভূইয়ার ছেলে হুমায়ুন কবির ভূঁইয়ার জমি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে দীর্ঘদিন যাবত বিরোধ রয়েছে। হুমায়ুন কবির ভূঁইয়া প্রতিপক্ষের ক্ষতি করতে সর্বদা সুযোগ খুঁজতে থাকে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে গত (৮ জুন) সোমবার সকালে হুমায়ুন নিজের জমির মৌজা সীমানা নির্ধারণ না করেই আশরাফ ভূঁইয়ার জমির সীমানায় জোরপূর্বক প্রাচীর নির্মাণের চেষ্টা চালায়।
এ বিষয়ে স্থানীয় কমিশনারের শরণাপন্ন হলে ঘটনাস্থলে এসে কমিশনার বাধা দিলেও কাজ বন্ধ করেনি প্রতিপক্ষ। পরবর্তীতে থানায় অভিযোগ করলেও কাজের কাজ কিছুই হয়নি। উপায় না পেয়ে আদালতের শরণাপন্ন হন আশরাফ ভূঁইয়া। নরসিংদী বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা করলে মাধবদী থানার অফিসার ইনচার্জকে নালিশা জমিতে শান্তি বজায় রাখতে নির্দেশনা প্রদান করেন। আদালতের নির্দেশে সাময়িকভাবে কাজ বন্ধ রাখলেও সীমানা প্রাচীর নির্মাণের নানা অপকৌশল চালাচ্ছেন হুমায়ুন এমনটাই জানান আশরাফ।
এ বিষয়ে মোবাইলে হুমায়ুন কবির ভূঁইয়া জানান, অভিযোগ করার আগেই আমি সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করেছি, অল্প একটু কাজ বাকি আছে, তাছাড়া দুটি আলাদা আলাদা মৌজার জমি।
এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে উভয় পক্ষের মধ্যে যে কোন সময় পরিস্থিতির অবনতি হয়ে ঘটতে পারে অপ্রীতিকর ঘটনা। তাই বিষয়টা নিয়ে স্থানীয় প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সর্বদা তৎপর থাকবেন এমনটাই প্রত্যাশা ভুক্তভোগী ও তার পরিবারের সদস্যদের।
Tag :
এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

জনপ্রিয় সংবাদ

ফরিদপুর জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান

error: Content is protected !!

মাধবদীর ফুলতলা এলাকায় জোরপূর্বক সীমানা প্রাচীর নির্মাণের অভিযোগ

আপডেট টাইম : ০২:৪৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ জুলাই ২০২৪
নরসিংদীর মাধবদীতে জোরপূর্বক সীমানা প্রাচীর নির্মাণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। স্থানীয় কমিশনার ও থানায় অভিযোগ করেও এ বিষয়ে কোনো সুরাহা পায়নি ভুক্তভোগী। পরবর্তীতে আদালতের শরণাপন্ন হলে, কাজ বন্ধ করলেও, প্রাচীর নির্মাণ করতে নানা অপকৌশল চালাচ্ছে ভূমিদস্যুরা।
জানা যায়, মাধবদী থানার আটপাইকা গ্রামের সিদ্দিক ভূঁইয়ার ছেলে মো: আশরাফ ভূঁইয়ার সাথে একই গ্রামের বাসিন্দা মৃত শফিউদ্দিন ভূইয়ার ছেলে হুমায়ুন কবির ভূঁইয়ার জমি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে দীর্ঘদিন যাবত বিরোধ রয়েছে। হুমায়ুন কবির ভূঁইয়া প্রতিপক্ষের ক্ষতি করতে সর্বদা সুযোগ খুঁজতে থাকে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে গত (৮ জুন) সোমবার সকালে হুমায়ুন নিজের জমির মৌজা সীমানা নির্ধারণ না করেই আশরাফ ভূঁইয়ার জমির সীমানায় জোরপূর্বক প্রাচীর নির্মাণের চেষ্টা চালায়।
এ বিষয়ে স্থানীয় কমিশনারের শরণাপন্ন হলে ঘটনাস্থলে এসে কমিশনার বাধা দিলেও কাজ বন্ধ করেনি প্রতিপক্ষ। পরবর্তীতে থানায় অভিযোগ করলেও কাজের কাজ কিছুই হয়নি। উপায় না পেয়ে আদালতের শরণাপন্ন হন আশরাফ ভূঁইয়া। নরসিংদী বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা করলে মাধবদী থানার অফিসার ইনচার্জকে নালিশা জমিতে শান্তি বজায় রাখতে নির্দেশনা প্রদান করেন। আদালতের নির্দেশে সাময়িকভাবে কাজ বন্ধ রাখলেও সীমানা প্রাচীর নির্মাণের নানা অপকৌশল চালাচ্ছেন হুমায়ুন এমনটাই জানান আশরাফ।
এ বিষয়ে মোবাইলে হুমায়ুন কবির ভূঁইয়া জানান, অভিযোগ করার আগেই আমি সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করেছি, অল্প একটু কাজ বাকি আছে, তাছাড়া দুটি আলাদা আলাদা মৌজার জমি।
এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে উভয় পক্ষের মধ্যে যে কোন সময় পরিস্থিতির অবনতি হয়ে ঘটতে পারে অপ্রীতিকর ঘটনা। তাই বিষয়টা নিয়ে স্থানীয় প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সর্বদা তৎপর থাকবেন এমনটাই প্রত্যাশা ভুক্তভোগী ও তার পরিবারের সদস্যদের।