ঢাকা , শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
Logo সরকারি হালটে পাকা ঘর উত্তোলণ, প্রভাব খাটিয়ে মালিকানা জমিতে রাস্তা নেয়ার অভিযোগ Logo বালিয়াকান্দি উপজেলা প্রেসক্লাবের দ্বি-বার্ষিক কমিটি গঠন Logo ফরিদপুর জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান Logo কোটা আন্দোলন : শিবগঞ্জে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ-সমাবেশ Logo মাগুরায় চাকরির প্রলোভনে টাকা হাতিয়ে উল্টো ভুক্তভোগীর বিরুদ্ধেই মামলার অভিযোগ Logo খোকসায় উপজেলা ছাত্র কল্যাণ পরিষদ মেধাবী শিক্ষার্থী মারিয়াকে সংবর্ধনা প্রদান Logo চাঁপাইনবাবগঞ্জে বজ্রপাতে দুই কৃষক নিহত Logo কালুখালীতে ফুটবল টুর্ণামেন্টের ফাইনাল খেলা Logo ১২০ কেজি অবৈধ পলিথিন জব্দ, ১২ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত Logo তানোরে সড়ক দূর্ঘটনায় শোডাউনের এক মাইক্রোবাস চালক নিহত
প্রতিনিধি নিয়োগ
দৈনিক সময়ের প্রত্যাশা পত্রিকার জন্য সারা দেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ করা হচ্ছে। আপনি আপনার এলাকায় সাংবাদিকতা পেশায় আগ্রহী হলে যোগাযোগ করুন।

দৌলতপুরে গৃহবধূর মিম আড়াই মাসের বেশি সময় ধরে নিখোঁজ

নিখোঁজ রয়েছেন ২৩ বছর বয়সী মিম আরা। রেখে গেছেন তিন বছরের এক কন্যা সন্তান। মিমের খোঁজে দিশেহারা পরিবার। কুষ্টিয়ার দৌলতপুরের আনোয়ারুল ইসলামের মেয়ে, একই গ্রামের রেজাউলের স্ত্রী মিম নিখোঁজ রয়েছেন আড়াই মাসের বেশি।

চলতি মাসের এপ্রিলের ১০ তারিখ দৌলতপুর থানায় নিখোঁজ মর্মে আইনী সহায়তা চান মিমের দাদা। প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত গেলো ৮০ দিনে নিজেরাও খোঁজাখুঁজি করেন অনেক। কিন্তু, খোঁজ মিলেনি মিমের।

জানা গেছে, দৌলতপুরে হোগলবাড়িয়া ইউনিয়নের বৈদ্যনাথতলা বিসিকে গ্রামে নিজ বাবার বাড়িতে কন্যা সন্তানকে রেখে কুষ্টিয়া শহরে একটি বেসরকারি চাকরির পরীক্ষা দিতে যান মিম। পরদিন তার সাথে কথা হলে চাকরি হয়েছে বলে জানায় পরিবারকে। বাড়ি থেকে বের হওয়ার তৃতীয় দিন থেকে শশুর বাড়ি কিংবা বাবার বাড়ির কেউই যোগাযোগ করতে পারেনি মিমের সাথে।

নিখোঁজ নারীর স্বামী একটি বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক রেজাউল হক জানান, চাকরির পরীক্ষার কথা বলে বাবার বাড়ি থেকে আমার স্ত্রী বের হয়, এরপর তার বাবার বাড়ির সাথে কয়েকবার যোগাযোগ হলেও আমার সাথে যোগাযোগ হয়নি, শিশু বাচ্চা নিয়ে আমরা এবং আমার শশুরের পরিবার সবাই দিশেহারা হয়ে খুঁজছি মিমকে।

মিমের মা শ্যামলী আক্তার বলেন, চাকরি হয়েছে পর্যন্ত জানিয়েছে মিম। এরপর আর ফোনে তাকে পাওয়া যায়নি। মাঝেমধ্যে ফোনটি খোলা পাওয়া গেলেও কল রিসিভ হয় না।

এবিষয়ে তদন্ত সংশ্লিষ্ট দৌলতপুর থানার এসআই চাঁদ আলী বলেন, আমরা মিমের ব্যবহৃত মোবাইল ফোন সহ বিভিন্ন সুত্র ধরে তাকে খুঁজে পাওয়ার সর্বাত্মক চেষ্টা চালাচ্ছি। মেয়েটি তার পরিবারের সাথে শেষ কথায় বলেছিলো– ‘যেখানে আছি ভালো আছি’।

Tag :
এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

জনপ্রিয় সংবাদ

সরকারি হালটে পাকা ঘর উত্তোলণ, প্রভাব খাটিয়ে মালিকানা জমিতে রাস্তা নেয়ার অভিযোগ

error: Content is protected !!

দৌলতপুরে গৃহবধূর মিম আড়াই মাসের বেশি সময় ধরে নিখোঁজ

আপডেট টাইম : ০৮:২১ অপরাহ্ন, সোমবার, ১ জুলাই ২০২৪

নিখোঁজ রয়েছেন ২৩ বছর বয়সী মিম আরা। রেখে গেছেন তিন বছরের এক কন্যা সন্তান। মিমের খোঁজে দিশেহারা পরিবার। কুষ্টিয়ার দৌলতপুরের আনোয়ারুল ইসলামের মেয়ে, একই গ্রামের রেজাউলের স্ত্রী মিম নিখোঁজ রয়েছেন আড়াই মাসের বেশি।

চলতি মাসের এপ্রিলের ১০ তারিখ দৌলতপুর থানায় নিখোঁজ মর্মে আইনী সহায়তা চান মিমের দাদা। প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত গেলো ৮০ দিনে নিজেরাও খোঁজাখুঁজি করেন অনেক। কিন্তু, খোঁজ মিলেনি মিমের।

জানা গেছে, দৌলতপুরে হোগলবাড়িয়া ইউনিয়নের বৈদ্যনাথতলা বিসিকে গ্রামে নিজ বাবার বাড়িতে কন্যা সন্তানকে রেখে কুষ্টিয়া শহরে একটি বেসরকারি চাকরির পরীক্ষা দিতে যান মিম। পরদিন তার সাথে কথা হলে চাকরি হয়েছে বলে জানায় পরিবারকে। বাড়ি থেকে বের হওয়ার তৃতীয় দিন থেকে শশুর বাড়ি কিংবা বাবার বাড়ির কেউই যোগাযোগ করতে পারেনি মিমের সাথে।

নিখোঁজ নারীর স্বামী একটি বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক রেজাউল হক জানান, চাকরির পরীক্ষার কথা বলে বাবার বাড়ি থেকে আমার স্ত্রী বের হয়, এরপর তার বাবার বাড়ির সাথে কয়েকবার যোগাযোগ হলেও আমার সাথে যোগাযোগ হয়নি, শিশু বাচ্চা নিয়ে আমরা এবং আমার শশুরের পরিবার সবাই দিশেহারা হয়ে খুঁজছি মিমকে।

মিমের মা শ্যামলী আক্তার বলেন, চাকরি হয়েছে পর্যন্ত জানিয়েছে মিম। এরপর আর ফোনে তাকে পাওয়া যায়নি। মাঝেমধ্যে ফোনটি খোলা পাওয়া গেলেও কল রিসিভ হয় না।

এবিষয়ে তদন্ত সংশ্লিষ্ট দৌলতপুর থানার এসআই চাঁদ আলী বলেন, আমরা মিমের ব্যবহৃত মোবাইল ফোন সহ বিভিন্ন সুত্র ধরে তাকে খুঁজে পাওয়ার সর্বাত্মক চেষ্টা চালাচ্ছি। মেয়েটি তার পরিবারের সাথে শেষ কথায় বলেছিলো– ‘যেখানে আছি ভালো আছি’।