ঢাকা , শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
Logo ফরিদপুর জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান Logo কোটা আন্দোলন : শিবগঞ্জে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ-সমাবেশ Logo মাগুরায় চাকরির প্রলোভনে টাকা হাতিয়ে উল্টো ভুক্তভোগীর বিরুদ্ধেই মামলার অভিযোগ Logo খোকসায় উপজেলা ছাত্র কল্যাণ পরিষদ মেধাবী শিক্ষার্থী মারিয়াকে সংবর্ধনা প্রদান Logo চাঁপাইনবাবগঞ্জে বজ্রপাতে দুই কৃষক নিহত Logo কালুখালীতে ফুটবল টুর্ণামেন্টের ফাইনাল খেলা Logo ১২০ কেজি অবৈধ পলিথিন জব্দ, ১২ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত Logo তানোরে সড়ক দূর্ঘটনায় শোডাউনের এক মাইক্রোবাস চালক নিহত Logo যৌতুকের দাবিতে কলেজছাত্রীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ Logo সদরপুরে ৪ কেজি গাঁজা সহ ব্যবসায়ী কে আটক করেছে ডি বি পুলিশ
প্রতিনিধি নিয়োগ
দৈনিক সময়ের প্রত্যাশা পত্রিকার জন্য সারা দেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ করা হচ্ছে। আপনি আপনার এলাকায় সাংবাদিকতা পেশায় আগ্রহী হলে যোগাযোগ করুন।

ধান ক্ষেতে মিলল বৃদ্ধার মরদেহ

-ছবিঃ প্রতীকী।

দুর্গম চতল বিলের মধ্যে এক নারীর মরদেহ উদ্ধারের ২দিন পর আবারো ভাঙ্গা উপজেলার কালামৃধা ইউনিয়নের নয়াকান্দা বিলের মধ্যে ধান ক্ষেতে মিললো এক বৃদ্ধার মরদেহ (কঙ্কাল)। ঐ বৃদ্ধ পাশ্ববর্তী আজিমনগর ইউনিয়নের ঘোষ গ্রামের মৃত রহম হাওলাদারের পুত্র মোতালেব হাওলাদার (৭৫)। শুক্রবার দুপুরে ভাঙ্গা থানা পুলিশ হাড়গোড় (কঙ্কাল) সহ পচা মৃত দেহ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরন করেছে ।

 

লাশের পরিচয় সনাক্তের জন্য ফরিদপুর থেকে সিআইডি ও পি,বি,আই দুইটি টিম ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। পরপর ২টি লাশ উদ্ধারের ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যর সৃষ্টি হয়েছে।

এ ব্যাপারে ভাঙ্গা থানার এস, আই জয়ন্ত মজুমদার জানান, সংবাদ পেয়ে আমি ঘটনাস্থলে পৌঁছাই। বৃদ্ধর মরদেহ (কঙ্কাল) উদ্ধার করি। লাশের ময়না তদন্তের জন্য ফরিদপুর মর্গে প্রেরন করা হয়েছে।

এ ঘটনায় বৃদ্ধর ছেলে মিজানুর রহমান হাওলাদার জানান, ১ মাস আগে আমার বাবা শিবচর উপজেলার সোলাপুর গ্রামে এক আত্মীয়র বাড়ি গিয়েছিল। সেখান থেকে বাড়ি ফেরার পথে হয়তো সে পথ হারিয়ে বিলের মধ্যে চলে গিয়েছিল এবং সেখানে হয়তো অসুস্থ হয়ে আমার বাবা মারা যেতে পারে । লুঙ্গি গামছা দেখে আমার বাবার লাশ শনাক্ত করি।

 

এ ব্যাপারে ভাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মামুন আল ইসলাম জানান, কিছুদিন আগে ওই বৃদ্ধ পার্শ্ববর্তী শিবচর এক আত্মীয়র বাসায় গিয়েছিল। সেখান থেকে বাড়ি ফেরার উদ্দেশ্যে রওনা দিয়ে আর বাড়ি ফিরে নাই। এ ঘটনার দুদিন পর নিখোঁজের ছেলে ভাঙ্গা থানায় একটা সাধারণ ডায়রি করেন। আজ শুক্রবার সকালে সংবাদ পাই, ঐ বৃদ্ধর মরদেহ ধান খেতে পাওয়া গেছে। আমাদের পুলিশ বিলের মধ্যে ধান ক্ষেত থেকে বৃদ্ধর হাড়গোড় মাথার খুলি সহ পচা লাশ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত পরিবারের পক্ষ থেকে কোন অভিযোগ পাই নাই। অভিযোগ পেলে পরবর্তীতে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Tag :
এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

জনপ্রিয় সংবাদ

ফরিদপুর জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান

error: Content is protected !!

ধান ক্ষেতে মিলল বৃদ্ধার মরদেহ

আপডেট টাইম : ০৩:০৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৮ জুন ২০২৪

দুর্গম চতল বিলের মধ্যে এক নারীর মরদেহ উদ্ধারের ২দিন পর আবারো ভাঙ্গা উপজেলার কালামৃধা ইউনিয়নের নয়াকান্দা বিলের মধ্যে ধান ক্ষেতে মিললো এক বৃদ্ধার মরদেহ (কঙ্কাল)। ঐ বৃদ্ধ পাশ্ববর্তী আজিমনগর ইউনিয়নের ঘোষ গ্রামের মৃত রহম হাওলাদারের পুত্র মোতালেব হাওলাদার (৭৫)। শুক্রবার দুপুরে ভাঙ্গা থানা পুলিশ হাড়গোড় (কঙ্কাল) সহ পচা মৃত দেহ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরন করেছে ।

 

লাশের পরিচয় সনাক্তের জন্য ফরিদপুর থেকে সিআইডি ও পি,বি,আই দুইটি টিম ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। পরপর ২টি লাশ উদ্ধারের ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যর সৃষ্টি হয়েছে।

এ ব্যাপারে ভাঙ্গা থানার এস, আই জয়ন্ত মজুমদার জানান, সংবাদ পেয়ে আমি ঘটনাস্থলে পৌঁছাই। বৃদ্ধর মরদেহ (কঙ্কাল) উদ্ধার করি। লাশের ময়না তদন্তের জন্য ফরিদপুর মর্গে প্রেরন করা হয়েছে।

এ ঘটনায় বৃদ্ধর ছেলে মিজানুর রহমান হাওলাদার জানান, ১ মাস আগে আমার বাবা শিবচর উপজেলার সোলাপুর গ্রামে এক আত্মীয়র বাড়ি গিয়েছিল। সেখান থেকে বাড়ি ফেরার পথে হয়তো সে পথ হারিয়ে বিলের মধ্যে চলে গিয়েছিল এবং সেখানে হয়তো অসুস্থ হয়ে আমার বাবা মারা যেতে পারে । লুঙ্গি গামছা দেখে আমার বাবার লাশ শনাক্ত করি।

 

এ ব্যাপারে ভাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মামুন আল ইসলাম জানান, কিছুদিন আগে ওই বৃদ্ধ পার্শ্ববর্তী শিবচর এক আত্মীয়র বাসায় গিয়েছিল। সেখান থেকে বাড়ি ফেরার উদ্দেশ্যে রওনা দিয়ে আর বাড়ি ফিরে নাই। এ ঘটনার দুদিন পর নিখোঁজের ছেলে ভাঙ্গা থানায় একটা সাধারণ ডায়রি করেন। আজ শুক্রবার সকালে সংবাদ পাই, ঐ বৃদ্ধর মরদেহ ধান খেতে পাওয়া গেছে। আমাদের পুলিশ বিলের মধ্যে ধান ক্ষেত থেকে বৃদ্ধর হাড়গোড় মাথার খুলি সহ পচা লাশ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত পরিবারের পক্ষ থেকে কোন অভিযোগ পাই নাই। অভিযোগ পেলে পরবর্তীতে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।