ঢাকা , বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
Logo পূর্বভাটদী মাদ্রাসার ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন বহাল রাখার দাবীতে সংবাদ সম্মেলন Logo বিভিন্ন অভিযোগ এনে ভোট বর্জন করলেন চেয়ারম্যান প্রার্থী Logo সালথা ও নগরকান্দা উপজেলা নির্বাচনী কেন্দ্র পরিদর্শন করলেন জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার Logo ভোটার ২৪৮০, এক ঘণ্টায় ভোট পড়েছে ১২টি, একটি বুথে শূন্য ভোট Logo নিরবছিন্ন বিদ্যুৎ নিশ্চিতে বিদ্যুৎ বিভাগের অনলাইন কর্মশালা Logo প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগঃ শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের বড় ব্যবধানে জয়লাভ Logo আলিপুরে আরসিসি ড্রেন নির্মাণ প্রকল্পের উদ্বোধন করলেন পৌর মেয়র Logo কেন্দ্রে শুধু ভোটার নেই, অন্য সব ঠিক আছে Logo নাটোরে চেয়ারম্যান প্রার্থীর প্রধান সমন্বয়কারীকে হাতুড়িপেটার অভিযোগ Logo ভূরুঙ্গামারীতে স্মার্টফোন কিনে না দেওয়ায় মাদ্রাসা ছাত্রীর আত্মহত্যা
প্রতিনিধি নিয়োগ
দৈনিক সময়ের প্রত্যাশা পত্রিকার জন্য সারা দেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ করা হচ্ছে। আপনি আপনার এলাকায় সাংবাদিকতা পেশায় আগ্রহী হলে যোগাযোগ করুন।

রাতের আঁধারে ফসলি জমির মাটি যাচ্ছে ইটভাটায়

ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে রাতের আঁধারে ফসলি জমির মাটি যাচ্ছে ‘আল আলী অটো ইটভাটা’ নামক একটি ইটভাটায়। প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দেয়ার জন্য দিনের পরিবর্তে রাত নয়টার পর থেকে সারা রাত মাটি কাটা ও পরিবহনের কাজ করা হচ্ছে।

শনিবার (২৭ এপ্রিল) রাত ১০টার দিকে ঘটনাস্থল ময়না ইউনিয়নের ঠাকুরপুর গ্রামের দ্বিতীয় ব্রিজ থেকে ২০০ গজ দূরে হঠাৎপাড়া গ্রামে সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, প্রধান সড়ক থেকে কমপক্ষে ২০০ গজ দূরে ফসলি জমি থেকে চলছে মাটি কাটার মহোৎসব। চারদিকে ফসলের ক্ষেত। ক্ষেতের মধ্য দিয়ে ফসল নষ্ট করেই ট্রাকগুলো অবাধে মাটি টেনে নিচ্ছে। দিনে সেখানে সুনসান নীরবতা থাকলেও রাতের আধারে চলে মাটি কাটার বিশাল কর্মযজ্ঞ।

 

মাস খানেক আগে থেকে কাটা শুরু করলেও কয়েক দিনের বিরতি দিয়ে গত তিন চারদিন ধরে আবার মাটি কাটা শুরু হয়েছে। সারারাত ট্রাক প্রতি সাড়ে সাত হাজার টাকায় ট্রাক সরবরাহ করেছেন মাটি টানার ড্রাম ট্রাক ব্যবসায়ী বোয়ালমারী সদর ইউনিয়নের সৈয়দপুর গ্রামের মনিরুল। আর মনিরুলের সাথে চুক্তি করেছে একই গ্রামের জামাল মেম্বার। ফসলী জমির মাটি বিক্রি করছেন ময়না গ্রামের জাকির হোসেন মোল্যা। পুকুর খননের কাজ দেখাশোনা করছেন ময়না গ্রামের বাচ্চু মোল্যা। বাচ্চু মোল্যা জানান, দুই পাখি জায়গায় পুকুর খনন করে দেবে উপজেলার চতুল ইউনিয়নের ভাটপাড়ায় অবস্থিত আল-আলী অটো ব্রিকস নামের একটি ইটভাটা। এ জন্য ভাটাটির মালিক জমির মাটি বাবদ ৭০ হাজার টাকা দেবে জমির মালিককে।

 

এ ব্যাপারে মাটি ব্যবসায়ী জামাল মেম্বার বলেন, জাকির মোল্যার ৫৬ শতাংশ জমির মাটি এক লাখ সতেরো হাজার টাকায় কিনে আমি বিক্রি করছি।
এ ব্যাপারে জমির মালিক জাকির মোল্যার বক্তব্য নেয়ার জন্য তার মোবাইল ফোনে একাধিকবার কল দেয়া হলেও মোবাইল বন্ধ থাকায় তার বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।

 

 

জানতে চাইলে বোয়ালমারী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট গোলাম রাব্বানী সোহেল বলেন, রাতের আঁধারে ফসলী জমি থেকে মাটি কেটে নেয়ার বিষয়টি আমার জানা নেই। তহশিলদারকে পাঠিয়ে এ বিষয়ে খোঁজখবর নিচ্ছি।

Tag :
এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

পূর্বভাটদী মাদ্রাসার ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন বহাল রাখার দাবীতে সংবাদ সম্মেলন

error: Content is protected !!

রাতের আঁধারে ফসলি জমির মাটি যাচ্ছে ইটভাটায়

আপডেট টাইম : ০৩:২৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৮ এপ্রিল ২০২৪

ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে রাতের আঁধারে ফসলি জমির মাটি যাচ্ছে ‘আল আলী অটো ইটভাটা’ নামক একটি ইটভাটায়। প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দেয়ার জন্য দিনের পরিবর্তে রাত নয়টার পর থেকে সারা রাত মাটি কাটা ও পরিবহনের কাজ করা হচ্ছে।

শনিবার (২৭ এপ্রিল) রাত ১০টার দিকে ঘটনাস্থল ময়না ইউনিয়নের ঠাকুরপুর গ্রামের দ্বিতীয় ব্রিজ থেকে ২০০ গজ দূরে হঠাৎপাড়া গ্রামে সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, প্রধান সড়ক থেকে কমপক্ষে ২০০ গজ দূরে ফসলি জমি থেকে চলছে মাটি কাটার মহোৎসব। চারদিকে ফসলের ক্ষেত। ক্ষেতের মধ্য দিয়ে ফসল নষ্ট করেই ট্রাকগুলো অবাধে মাটি টেনে নিচ্ছে। দিনে সেখানে সুনসান নীরবতা থাকলেও রাতের আধারে চলে মাটি কাটার বিশাল কর্মযজ্ঞ।

 

মাস খানেক আগে থেকে কাটা শুরু করলেও কয়েক দিনের বিরতি দিয়ে গত তিন চারদিন ধরে আবার মাটি কাটা শুরু হয়েছে। সারারাত ট্রাক প্রতি সাড়ে সাত হাজার টাকায় ট্রাক সরবরাহ করেছেন মাটি টানার ড্রাম ট্রাক ব্যবসায়ী বোয়ালমারী সদর ইউনিয়নের সৈয়দপুর গ্রামের মনিরুল। আর মনিরুলের সাথে চুক্তি করেছে একই গ্রামের জামাল মেম্বার। ফসলী জমির মাটি বিক্রি করছেন ময়না গ্রামের জাকির হোসেন মোল্যা। পুকুর খননের কাজ দেখাশোনা করছেন ময়না গ্রামের বাচ্চু মোল্যা। বাচ্চু মোল্যা জানান, দুই পাখি জায়গায় পুকুর খনন করে দেবে উপজেলার চতুল ইউনিয়নের ভাটপাড়ায় অবস্থিত আল-আলী অটো ব্রিকস নামের একটি ইটভাটা। এ জন্য ভাটাটির মালিক জমির মাটি বাবদ ৭০ হাজার টাকা দেবে জমির মালিককে।

 

এ ব্যাপারে মাটি ব্যবসায়ী জামাল মেম্বার বলেন, জাকির মোল্যার ৫৬ শতাংশ জমির মাটি এক লাখ সতেরো হাজার টাকায় কিনে আমি বিক্রি করছি।
এ ব্যাপারে জমির মালিক জাকির মোল্যার বক্তব্য নেয়ার জন্য তার মোবাইল ফোনে একাধিকবার কল দেয়া হলেও মোবাইল বন্ধ থাকায় তার বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।

 

 

জানতে চাইলে বোয়ালমারী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট গোলাম রাব্বানী সোহেল বলেন, রাতের আঁধারে ফসলী জমি থেকে মাটি কেটে নেয়ার বিষয়টি আমার জানা নেই। তহশিলদারকে পাঠিয়ে এ বিষয়ে খোঁজখবর নিচ্ছি।