ঢাকা , সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
Logo ফরিদপুর সদর উপজেলার শিবরামপুর এলাকায় অনুমোদনহীন ভেজাল গুড় কারখানায় অভিযান Logo কুমারখালীতে ভোটের দিনে প্রতিপক্ষের হামলা, আহত ব্যাক্তির মৃত্যু Logo কুষ্টিয়ায় হাতের রগ কাটা যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার Logo ফরিদপুরে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ‌১২৫ তম জন্মবার্ষিকী পালিত Logo কুষ্টিয়ায় শ্যালকের বিয়েতে গিয়ে দুলাভাইয়ের কারাদণ্ড Logo তানোরে কনিষ্ঠ প্রার্থীর সর্ববৃহৎ জয়, রাজনৈতিক অঙ্গনে চাঞ্চল্য Logo যশোরে পৃথক দুটি সড়ক দুর্ঘটনায় দুইজন নিহত Logo আমতলী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে জনপ্রিয়তায় এগিয়ে যুথী Logo হাতিয়ার সাবেক সংসদ সদস্য অধ্যাপক ওয়ালী উল্যাহর মৃত্যুতে স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত Logo সুন্দরবন, বেনাপুল ও চিত্রা বন্ধ ট্রেন চালুর দাবিতে ভেড়ামারায় মানববন্ধন
প্রতিনিধি নিয়োগ
দৈনিক সময়ের প্রত্যাশা পত্রিকার জন্য সারা দেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ করা হচ্ছে। আপনি আপনার এলাকায় সাংবাদিকতা পেশায় আগ্রহী হলে যোগাযোগ করুন।

বোয়ালমারীতে মিথ্যা মামলার বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন

ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে আবু শেখ ও বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. সিরাজুল ইসলাম ছিরুর নামে জমি নিয়ে আদালতে মিথ্যা হয়রানি মূলক মামলা দায়ের ও থানায় লিখিত অভিযোগের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।
বুধবার (২৪ এপ্রিল) সকাল সাড়ে দশটায় উপজেলার শেখর ইউনিয়নের শেখর গ্রামে আবু শেখের নিজ বাড়িতে এ সংবাদ সম্মেলন করেন।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানান, আমার ও বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. সিরাজুল ইসলাম ছিরু শেখের নামে আদালতে জমি-জমা নিয়ে মিথ্যা মামলা করে হয়রানি করেন গোলাম রসুল নামে এক মুক্তিযোদ্ধা। তার বাবা মান্দারে শেখ ১৫ শতাংশ জমি ১৯৭১ সনে বিক্রি করেন এলেম বিশ্বাসের কাছে। তিনি ৭৩ সনে বিক্রি করেন উজ্জল নেছার কাছে। তিনি আবার ৭৭ সনে বিক্রি করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম ছিরু মেম্বরের কাছে। সর্বশেষ ছিরু মেম্বর ২০০১ সনে আমার কাছে ১০ শতাংশ জমি বিক্রি করেন।
একই সময় ৫ শতাংশ জমি ক্রয় করেন মিথ্যা মামলা দেয়া বাদী মো. গোলাম রসুল শেখ।
তিনি আরও বলেন, আমার নামে বিভিন্ন স্থানে ৫-৬ টা মিথ্যা মামলা দায়ের করেন। আমি এখন এ মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করে হয়রানি থেকে মুক্তি চাই।
বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. সিরাজুল ইসলাম ছিরু বলেন, গোলাম রসুল আমার ও আবু শেখের নামে থানায় যে অভিযোগ দায়ের করেছে। তা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট। ও চায় শুধু মানুষকে হয়রানি করতে। আবু শেখ একজন সাদাসিধে মনের মানুষ। তাকে হেয় প্রতিপন্ন করতে উঠে পড়ে লেগেছে গোলাম রসুল। আর তার বাবা মান্দারে ১৫ শতাংশ জমি বিক্রি করে চার হাত বদল হয়ে যায়। সেও আমার কাছ থেকে ওই জমির ৫ শতাংশ ক্রয় করে। এখন সে আদালতে ভূয়া মামলা দায়ের করেছে।
সেদিন রাতে ঘটনা স্থলের স্থানীয় লোকজন বলেন, ১৬ এপ্রিল রাতে শেখর বাজারে গোলাম রসুলের সাথে আবু শেখের কথা কাটাকাটি হয়। তবে তাকে হুমকি বা ধামকি দেয়া হয়েছে এমনটি আমরা শুনিনি।
শেখর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. কামাল আহমেদ বলেন, আমি ২২ সালে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে গোলাম রসুল তার বাবার মৃত্যুর তারিখ হেরফের করে মৃত্যু সনদ নিতে চায়। তার মতের বিরুদ্ধে সনদ না দিতে চাইলে আমাকেও মামলা দেয়ার হুমকি দেন।
এ সময় সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম ছিরু শেখ, শেখর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. কামাল আহমেদ, আবু শেখ, শেখর ইউনিয়ন পরিষদের ৫ নং ওয়ার্ডের সদস্য মো. মিজান শেখ, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি খন্দকার মোহন আলী, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য ফাতেমা বেগমসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।
এ বিষয়ে গোলাম রসুল বলেন, আমি জমি নিয়ে আদালতে মামলা দায়ের করেছি। আদালত যে রায় দিবে সেটা মেনে নেবো। জমি পেলে নেব না পেলে না নেবো। তবে আমাকে ১৬ এপ্রিল শেখর বাজার থেকে তারা দু’ জন হুমকি ধামকি দিয়েছিল। এজন্য থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছিলাম।
Tag :
এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

ফরিদপুর সদর উপজেলার শিবরামপুর এলাকায় অনুমোদনহীন ভেজাল গুড় কারখানায় অভিযান

error: Content is protected !!

বোয়ালমারীতে মিথ্যা মামলার বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন

আপডেট টাইম : ০৩:০০ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪
ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে আবু শেখ ও বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. সিরাজুল ইসলাম ছিরুর নামে জমি নিয়ে আদালতে মিথ্যা হয়রানি মূলক মামলা দায়ের ও থানায় লিখিত অভিযোগের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।
বুধবার (২৪ এপ্রিল) সকাল সাড়ে দশটায় উপজেলার শেখর ইউনিয়নের শেখর গ্রামে আবু শেখের নিজ বাড়িতে এ সংবাদ সম্মেলন করেন।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানান, আমার ও বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. সিরাজুল ইসলাম ছিরু শেখের নামে আদালতে জমি-জমা নিয়ে মিথ্যা মামলা করে হয়রানি করেন গোলাম রসুল নামে এক মুক্তিযোদ্ধা। তার বাবা মান্দারে শেখ ১৫ শতাংশ জমি ১৯৭১ সনে বিক্রি করেন এলেম বিশ্বাসের কাছে। তিনি ৭৩ সনে বিক্রি করেন উজ্জল নেছার কাছে। তিনি আবার ৭৭ সনে বিক্রি করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম ছিরু মেম্বরের কাছে। সর্বশেষ ছিরু মেম্বর ২০০১ সনে আমার কাছে ১০ শতাংশ জমি বিক্রি করেন।
একই সময় ৫ শতাংশ জমি ক্রয় করেন মিথ্যা মামলা দেয়া বাদী মো. গোলাম রসুল শেখ।
তিনি আরও বলেন, আমার নামে বিভিন্ন স্থানে ৫-৬ টা মিথ্যা মামলা দায়ের করেন। আমি এখন এ মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করে হয়রানি থেকে মুক্তি চাই।
বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. সিরাজুল ইসলাম ছিরু বলেন, গোলাম রসুল আমার ও আবু শেখের নামে থানায় যে অভিযোগ দায়ের করেছে। তা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট। ও চায় শুধু মানুষকে হয়রানি করতে। আবু শেখ একজন সাদাসিধে মনের মানুষ। তাকে হেয় প্রতিপন্ন করতে উঠে পড়ে লেগেছে গোলাম রসুল। আর তার বাবা মান্দারে ১৫ শতাংশ জমি বিক্রি করে চার হাত বদল হয়ে যায়। সেও আমার কাছ থেকে ওই জমির ৫ শতাংশ ক্রয় করে। এখন সে আদালতে ভূয়া মামলা দায়ের করেছে।
সেদিন রাতে ঘটনা স্থলের স্থানীয় লোকজন বলেন, ১৬ এপ্রিল রাতে শেখর বাজারে গোলাম রসুলের সাথে আবু শেখের কথা কাটাকাটি হয়। তবে তাকে হুমকি বা ধামকি দেয়া হয়েছে এমনটি আমরা শুনিনি।
শেখর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. কামাল আহমেদ বলেন, আমি ২২ সালে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে গোলাম রসুল তার বাবার মৃত্যুর তারিখ হেরফের করে মৃত্যু সনদ নিতে চায়। তার মতের বিরুদ্ধে সনদ না দিতে চাইলে আমাকেও মামলা দেয়ার হুমকি দেন।
এ সময় সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম ছিরু শেখ, শেখর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. কামাল আহমেদ, আবু শেখ, শেখর ইউনিয়ন পরিষদের ৫ নং ওয়ার্ডের সদস্য মো. মিজান শেখ, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি খন্দকার মোহন আলী, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য ফাতেমা বেগমসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।
এ বিষয়ে গোলাম রসুল বলেন, আমি জমি নিয়ে আদালতে মামলা দায়ের করেছি। আদালত যে রায় দিবে সেটা মেনে নেবো। জমি পেলে নেব না পেলে না নেবো। তবে আমাকে ১৬ এপ্রিল শেখর বাজার থেকে তারা দু’ জন হুমকি ধামকি দিয়েছিল। এজন্য থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছিলাম।