ঢাকা , শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রতিনিধি নিয়োগ
দৈনিক সময়ের প্রত্যাশা পত্রিকার জন্য সারা দেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ করা হচ্ছে। আপনি আপনার এলাকায় সাংবাদিকতা পেশায় আগ্রহী হলে যোগাযোগ করুন।

নাটোরের বাগাতিপাড়ায় গলায় ফাঁস দিয়ে গৃহবধূর আত্মহত্যা

নাটোরের বাগাতিপাড়ায় অতিরিক্ত বিষন্নতায় শিউলি খাতুন নামে ৩০ বছরের এক গৃহবধূ গলায় রশি পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে। সোমবার ২২ এপ্রিল সকালে উপজেলার জামনগর ইউনিয়নের বাঁশবাড়িয়া বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। শিউলি খাতুন ওই এলাকার আব্দুল আজিজ মন্ডল শক্তির স্ত্রী। তার বাবার বাড়ি কুষ্টিয়া জেলায় বলে জানা গেছে।

 

পরিবারের বরাৎ দিয়ে পুলিশ জানায়, মৃত গৃহবধুর প্রথম পূত্র সন্তান হয়ে মারা যায়। পরে তার দুটি কণ্যা সন্তান হয়। দুটি কণ্যা সন্তান হলেও পূত্র সন্তান মারা যাওয়ার পর থেকেই সে বিষন্নতায় ভুগছিলেন। সে কারণে শশুর বাড়ি ও মায়ের বাড়ির সকলের সাথেই শিউলি খুব খারাপ আচরণ করতেন। ওই বিষন্নতা থেকেই তিনি আত্মহত্যা করেছেন বলে প্রথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ।

 

পুলিশ আরও জানান, ঘটনার দিন সকালে শিউলি সকলের অজান্তে ঘরের দরজা লাগিয়ে নিজের শয়নকক্ষের আড়ার সাথে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন। পরিবারের সদস্যরা দীর্ঘক্ষণ তাকে দেখতে না পেয়ে খোঁজাখুঁজির এক পর্যায়ে ঘরের দরজা লাগানো দেখে সন্দেহ হয় তাদের। পরে ঘরের জানালা দিয়ে তাকে ঝুলতে দেখে ঘরের দরজা ভেঙে তাকে ঝুলন্ত অবস্থা থেকে নামায়। পরে খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

 

বাগাতিপাড়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নান্নু খান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়। এ ঘটনায় থানায় একটি ইউডি মামলা রুজু করা হয়েছে।

 

 

এদিকে ময়নাতদন্তের পরে এদিন সন্ধ্যায় গৃহবধূ শিউলি খাতুনের লাশ তার মায়ের বাড়ি কুষ্টিয়ায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছে বলে একটি সূত্রে জানা গেছে।

Tag :
এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

জনপ্রিয় সংবাদ
error: Content is protected !!

নাটোরের বাগাতিপাড়ায় গলায় ফাঁস দিয়ে গৃহবধূর আত্মহত্যা

আপডেট টাইম : ০৯:৪২ অপরাহ্ন, সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪

নাটোরের বাগাতিপাড়ায় অতিরিক্ত বিষন্নতায় শিউলি খাতুন নামে ৩০ বছরের এক গৃহবধূ গলায় রশি পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে। সোমবার ২২ এপ্রিল সকালে উপজেলার জামনগর ইউনিয়নের বাঁশবাড়িয়া বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। শিউলি খাতুন ওই এলাকার আব্দুল আজিজ মন্ডল শক্তির স্ত্রী। তার বাবার বাড়ি কুষ্টিয়া জেলায় বলে জানা গেছে।

 

পরিবারের বরাৎ দিয়ে পুলিশ জানায়, মৃত গৃহবধুর প্রথম পূত্র সন্তান হয়ে মারা যায়। পরে তার দুটি কণ্যা সন্তান হয়। দুটি কণ্যা সন্তান হলেও পূত্র সন্তান মারা যাওয়ার পর থেকেই সে বিষন্নতায় ভুগছিলেন। সে কারণে শশুর বাড়ি ও মায়ের বাড়ির সকলের সাথেই শিউলি খুব খারাপ আচরণ করতেন। ওই বিষন্নতা থেকেই তিনি আত্মহত্যা করেছেন বলে প্রথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ।

 

পুলিশ আরও জানান, ঘটনার দিন সকালে শিউলি সকলের অজান্তে ঘরের দরজা লাগিয়ে নিজের শয়নকক্ষের আড়ার সাথে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন। পরিবারের সদস্যরা দীর্ঘক্ষণ তাকে দেখতে না পেয়ে খোঁজাখুঁজির এক পর্যায়ে ঘরের দরজা লাগানো দেখে সন্দেহ হয় তাদের। পরে ঘরের জানালা দিয়ে তাকে ঝুলতে দেখে ঘরের দরজা ভেঙে তাকে ঝুলন্ত অবস্থা থেকে নামায়। পরে খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

 

বাগাতিপাড়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নান্নু খান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়। এ ঘটনায় থানায় একটি ইউডি মামলা রুজু করা হয়েছে।

 

 

এদিকে ময়নাতদন্তের পরে এদিন সন্ধ্যায় গৃহবধূ শিউলি খাতুনের লাশ তার মায়ের বাড়ি কুষ্টিয়ায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছে বলে একটি সূত্রে জানা গেছে।