ঢাকা , সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
Logo ফরিদপুর সদর উপজেলার শিবরামপুর এলাকায় অনুমোদনহীন ভেজাল গুড় কারখানায় অভিযান Logo কুমারখালীতে ভোটের দিনে প্রতিপক্ষের হামলা, আহত ব্যাক্তির মৃত্যু Logo কুষ্টিয়ায় হাতের রগ কাটা যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার Logo ফরিদপুরে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ‌১২৫ তম জন্মবার্ষিকী পালিত Logo কুষ্টিয়ায় শ্যালকের বিয়েতে গিয়ে দুলাভাইয়ের কারাদণ্ড Logo তানোরে কনিষ্ঠ প্রার্থীর সর্ববৃহৎ জয়, রাজনৈতিক অঙ্গনে চাঞ্চল্য Logo যশোরে পৃথক দুটি সড়ক দুর্ঘটনায় দুইজন নিহত Logo আমতলী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে জনপ্রিয়তায় এগিয়ে যুথী Logo হাতিয়ার সাবেক সংসদ সদস্য অধ্যাপক ওয়ালী উল্যাহর মৃত্যুতে স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত Logo সুন্দরবন, বেনাপুল ও চিত্রা বন্ধ ট্রেন চালুর দাবিতে ভেড়ামারায় মানববন্ধন
প্রতিনিধি নিয়োগ
দৈনিক সময়ের প্রত্যাশা পত্রিকার জন্য সারা দেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ করা হচ্ছে। আপনি আপনার এলাকায় সাংবাদিকতা পেশায় আগ্রহী হলে যোগাযোগ করুন।

কুষ্টিয়ায় দুজনকে গুলি করার ঘটনায় মামলা, আ.লীগ নেতা কারাগারে

কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলায় চায়ের দোকানে দুজনকে গুলি করার ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। রোববার সন্ধ্যায় মিরপুর থানায় গুলিতে আহত হাসেম গাজীর ভাতিজা সেন্টু গাজী বাদী হয়ে মামলা করেন। ওই মামলায় আওয়ামী লীগের নেতা আতাহার আলীসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

মিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোস্তফা হাবিবুল্লাহ  মামলা হওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ওই মামলায় মিরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আতাহার আলীকে প্রধান আসামি করা হয়েছে। ১৫ জনের নাম উল্লেখ করে ও অজ্ঞাতনামা আরও ২০–২৫ জনকে ওই মামলার আসামি করা হয়েছে।

শনিবার সন্ধ্যা সাতটার দিকে উপজেলার ফুলবাড়ী ইউনিয়নের শিমুলিয়া গ্রামে গুলি ছোড়ার ঘটনা ঘটে। আতাহার আলী পিস্তল দিয়ে গুলি ছুড়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় তাঁকেসহ দুজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানা হেফাজতে নিয়েছিল পুলিশ। পরে আরও একজনকে আটক করা হয়।

মিরপুর থানা–পুলিশ সূত্র জানায়, আতাহারের ব্যবহৃত পিস্তল ও শটগান উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার দিবাগত গভীর রাতে তাঁর বাড়িতে অভিযান চালিয়ে পুলিশ ওই দুটি আগ্নেয়াস্ত্রের সঙ্গে গুলিও উদ্ধার করে। ওই পিস্তল ও শটগানের লাইসেন্স রয়েছে।

গুলিবিদ্ধ দুই ব্যক্তি হলেন উপজেলার ফুলবাড়ীর শিমুলিয়া এলাকার হাসেম গাজী (৫৫) ও বহলবাড়ি সাতবাড়িয়া এলাকার রেজাউল ইসলাম (৫০)। তাঁদের উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

কুষ্টিয়া অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন, ক্রাইম ও মিডিয়া) পলাশ কান্তি নাথ বলেন, রাতেই আতাহার আলীকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। একপর্যায়ে তিনি পিস্তল দিয়ে গুলি করার কথা স্বীকার করেন। আতাহার জানিয়েছেন, এলাকার লোকজন তাঁকে মারার উদ্দেশ্যে ঘিরে ধরেন। প্রাণ বাঁচতে তিনি গুলি ছুড়েছেন। রাতেই তাঁকে নিয়ে তাঁর বাড়িতে যাওয়া হয়। বাড়িতে তাঁর দেখানো জায়গা থেকে একটি পিস্তল ও একটি শটগান উদ্ধার করা হয়েছে। সেখানে বেশ কয়েকটি তাজা গুলিও পাওয়া গেছে।

এলাকায় খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আওয়ামী লীগের নেতা আতাহার দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কুষ্টিয়া-২ (মিরপুর-ভেড়ামারা) আসনে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) সভাপতি হাসানুল হক ইনুর পক্ষে কাজ করেছিলেন। এই আসনে জয়ী হন ট্রাক প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী মিরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কামারুল আরেফিন।

আহত হাসেম গাজীর ভাতিজা সেন্টু গাজী বলেন, ‘আমরা কৃষিকাজ করে সংসার চালাই। গত সংসদ নির্বাচনে আমিসহ আমার পরিবারের লোকজন আওয়ামী লীগের নেতা কামারুল আরেফিনের ট্রাক প্রতীকের পক্ষে নির্বাচন করি। এতে আতাহার ক্ষুব্ধ হন। এ নিয়ে আমাদের বিভিন্ন সময় ভয়ভীতি দেখানো হয়েছে। আজ (গতকাল শনিবার) আতাহার নিজে অস্ত্র নিয়ে এসে গুলি করেছেন। আমি এর বিচার চাই।

Tag :
এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

ফরিদপুর সদর উপজেলার শিবরামপুর এলাকায় অনুমোদনহীন ভেজাল গুড় কারখানায় অভিযান

error: Content is protected !!

কুষ্টিয়ায় দুজনকে গুলি করার ঘটনায় মামলা, আ.লীগ নেতা কারাগারে

আপডেট টাইম : ০৩:৪২ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪
কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলায় চায়ের দোকানে দুজনকে গুলি করার ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। রোববার সন্ধ্যায় মিরপুর থানায় গুলিতে আহত হাসেম গাজীর ভাতিজা সেন্টু গাজী বাদী হয়ে মামলা করেন। ওই মামলায় আওয়ামী লীগের নেতা আতাহার আলীসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

মিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোস্তফা হাবিবুল্লাহ  মামলা হওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ওই মামলায় মিরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আতাহার আলীকে প্রধান আসামি করা হয়েছে। ১৫ জনের নাম উল্লেখ করে ও অজ্ঞাতনামা আরও ২০–২৫ জনকে ওই মামলার আসামি করা হয়েছে।

শনিবার সন্ধ্যা সাতটার দিকে উপজেলার ফুলবাড়ী ইউনিয়নের শিমুলিয়া গ্রামে গুলি ছোড়ার ঘটনা ঘটে। আতাহার আলী পিস্তল দিয়ে গুলি ছুড়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় তাঁকেসহ দুজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানা হেফাজতে নিয়েছিল পুলিশ। পরে আরও একজনকে আটক করা হয়।

মিরপুর থানা–পুলিশ সূত্র জানায়, আতাহারের ব্যবহৃত পিস্তল ও শটগান উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার দিবাগত গভীর রাতে তাঁর বাড়িতে অভিযান চালিয়ে পুলিশ ওই দুটি আগ্নেয়াস্ত্রের সঙ্গে গুলিও উদ্ধার করে। ওই পিস্তল ও শটগানের লাইসেন্স রয়েছে।

গুলিবিদ্ধ দুই ব্যক্তি হলেন উপজেলার ফুলবাড়ীর শিমুলিয়া এলাকার হাসেম গাজী (৫৫) ও বহলবাড়ি সাতবাড়িয়া এলাকার রেজাউল ইসলাম (৫০)। তাঁদের উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

কুষ্টিয়া অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন, ক্রাইম ও মিডিয়া) পলাশ কান্তি নাথ বলেন, রাতেই আতাহার আলীকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। একপর্যায়ে তিনি পিস্তল দিয়ে গুলি করার কথা স্বীকার করেন। আতাহার জানিয়েছেন, এলাকার লোকজন তাঁকে মারার উদ্দেশ্যে ঘিরে ধরেন। প্রাণ বাঁচতে তিনি গুলি ছুড়েছেন। রাতেই তাঁকে নিয়ে তাঁর বাড়িতে যাওয়া হয়। বাড়িতে তাঁর দেখানো জায়গা থেকে একটি পিস্তল ও একটি শটগান উদ্ধার করা হয়েছে। সেখানে বেশ কয়েকটি তাজা গুলিও পাওয়া গেছে।

এলাকায় খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আওয়ামী লীগের নেতা আতাহার দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কুষ্টিয়া-২ (মিরপুর-ভেড়ামারা) আসনে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) সভাপতি হাসানুল হক ইনুর পক্ষে কাজ করেছিলেন। এই আসনে জয়ী হন ট্রাক প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী মিরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কামারুল আরেফিন।

আহত হাসেম গাজীর ভাতিজা সেন্টু গাজী বলেন, ‘আমরা কৃষিকাজ করে সংসার চালাই। গত সংসদ নির্বাচনে আমিসহ আমার পরিবারের লোকজন আওয়ামী লীগের নেতা কামারুল আরেফিনের ট্রাক প্রতীকের পক্ষে নির্বাচন করি। এতে আতাহার ক্ষুব্ধ হন। এ নিয়ে আমাদের বিভিন্ন সময় ভয়ভীতি দেখানো হয়েছে। আজ (গতকাল শনিবার) আতাহার নিজে অস্ত্র নিয়ে এসে গুলি করেছেন। আমি এর বিচার চাই।