ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ৫ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রতিনিধি নিয়োগ
দৈনিক সময়ের প্রত্যাশা পত্রিকার জন্য সারা দেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ করা হচ্ছে। আপনি আপনার এলাকায় সাংবাদিকতা পেশায় আগ্রহী হলে যোগাযোগ করুন।

কুষ্টিয়ায় তরমুজ বেশি দামে বিক্রি করায় জরিমানা আদায়

কুষ্টিয়ায় বেশি দামে তরমুজ বিক্রি করায় এক ব্যবসায়ীকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। বুধবার (২০ মার্চ) দুপুরে শহরের ছয় রাস্তা মোড়, এনএস রোডের পৌরবাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে এ জরিমানা করেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জিল্লুর রহমান।

 

এ সময় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জানান, ক্রেতাদের সঙ্গে প্রতারণা করে কেজি দরে বেশি দামে তরমুজ বিক্রি করছিলেন ব্যবসায়ীরা। কেজি প্রতি ২০ টাকাও লাভ করছেন কেউ কেউ। এমন অভিযোগে শহরের ছয়রাস্তা মোড় এলাকায় অভিযান চালিয়ে তরমুজ ব্যবসায়ী গড়াই ফল ভান্ডারের মালিক মো. তজরুল ইসলামকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

 

তিনি আরও জানান, কৃষি বিপণন আইন ২০১৮ অনুযায়ী ফলের ক্ষেত্রে কেজিতে ব্যবসায়ীরা ১০ টাকা লাভ করতে পারবেন- এমন বিধান রয়েছে। তবে তরমুজের ক্ষেত্রে রয়েছে বিশেষ নির্দেশনা। কেজিতে তিন থেকে পাঁচ টাকার বেশি লাভ করা যাবে না। আর কেজি বা পিস যেভাবে কিনবে সেভাবেই বিক্রি করতে হবে। অভিযানে কৃষি বিপণন কর্মকর্তা সুজাত খানসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

 

 

কৃষি বিপণন কর্মকর্তা সুজাত খান জানান, বড় বড় ফলের আমদানিকারকরা বলছেন ফলমূল আসছে ইন্ডিয়া থেকে কিন্তু ক্রয় রসিদ নেই। কিন্তু আইন অনুসারে ক্রয় রসিদ থাকা বাধ্যতামূলক। না হলে সেগুলো চোরাচালানের সামিল। এতে সর্বোচ্চ ২ লাখ টাকা বা ২ বছরের কারাদণ্ড বা উভয় দণ্ড দেয়া যাবে।

Tag :
এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

জনপ্রিয় সংবাদ
error: Content is protected !!

কুষ্টিয়ায় তরমুজ বেশি দামে বিক্রি করায় জরিমানা আদায়

আপডেট টাইম : ০৯:২৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২১ মার্চ ২০২৪

কুষ্টিয়ায় বেশি দামে তরমুজ বিক্রি করায় এক ব্যবসায়ীকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। বুধবার (২০ মার্চ) দুপুরে শহরের ছয় রাস্তা মোড়, এনএস রোডের পৌরবাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে এ জরিমানা করেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জিল্লুর রহমান।

 

এ সময় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জানান, ক্রেতাদের সঙ্গে প্রতারণা করে কেজি দরে বেশি দামে তরমুজ বিক্রি করছিলেন ব্যবসায়ীরা। কেজি প্রতি ২০ টাকাও লাভ করছেন কেউ কেউ। এমন অভিযোগে শহরের ছয়রাস্তা মোড় এলাকায় অভিযান চালিয়ে তরমুজ ব্যবসায়ী গড়াই ফল ভান্ডারের মালিক মো. তজরুল ইসলামকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

 

তিনি আরও জানান, কৃষি বিপণন আইন ২০১৮ অনুযায়ী ফলের ক্ষেত্রে কেজিতে ব্যবসায়ীরা ১০ টাকা লাভ করতে পারবেন- এমন বিধান রয়েছে। তবে তরমুজের ক্ষেত্রে রয়েছে বিশেষ নির্দেশনা। কেজিতে তিন থেকে পাঁচ টাকার বেশি লাভ করা যাবে না। আর কেজি বা পিস যেভাবে কিনবে সেভাবেই বিক্রি করতে হবে। অভিযানে কৃষি বিপণন কর্মকর্তা সুজাত খানসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

 

 

কৃষি বিপণন কর্মকর্তা সুজাত খান জানান, বড় বড় ফলের আমদানিকারকরা বলছেন ফলমূল আসছে ইন্ডিয়া থেকে কিন্তু ক্রয় রসিদ নেই। কিন্তু আইন অনুসারে ক্রয় রসিদ থাকা বাধ্যতামূলক। না হলে সেগুলো চোরাচালানের সামিল। এতে সর্বোচ্চ ২ লাখ টাকা বা ২ বছরের কারাদণ্ড বা উভয় দণ্ড দেয়া যাবে।