ঢাকা , রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
প্রতিনিধি নিয়োগ
দৈনিক সময়ের প্রত্যাশা পত্রিকার জন্য সারা দেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ করা হচ্ছে। আপনি আপনার এলাকায় সাংবাদিকতা পেশায় আগ্রহী হলে যোগাযোগ করুন।

বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান তরুণীর

পাবনার চাটমোহরে বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান করছেন এক তরুণী। শনিবার (৪ নভেম্বর) সকালে উপজেলার মথুরাপুর ইউনিয়নের উথুলী দক্ষিণপাড়া গ্রামে সেনাবাহিনীর সদস্য মোঃ নাহিদ হোসেনের বাড়িতে এসে অবস্থান নেন প্রেমিকা উর্মিলা আকতার বৃষ্টি। নাহিদ উথুলী দক্সিণপাড়া গ্রামের মোঃ আনসার আলীর ছেলে। সে সেনাবাহিনীতে কর্মরত।
উর্মিলা পাশের গ্রাম খড়বাড়িয়ার নজরুল ইসলামের মেয়ে এবং বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালের ল্যাব টেকনিশিয়ান পদে কর্মরত।
শনিবার (৪ নভেম্বর) সন্ধ্যায় ঘটনাস্থলে গেলে উর্মিলা জানান,নাহিদের সাথে তার ৩ বছরের প্রেম। বিয়ের প্রলোভনে সে একাধিকবার শারিরীক সম্পর্ক স্থাপন করেছে। গত ১২ অক্টোবর থেকে নাহিদ তার সাথে যোগাযোগ বন্ধ করে দিয়েছে। তাকে না পেয়ে তার বাড়ির লোকজনকেও বিষয়টি জানিয়েছি। কিন্তু কোন সুরাহা না পেয়ে প্রমাণাদিসহ আজ (শনিবার) এই বাড়িতে এসেছি। উর্মিলার দাবি বাড়ির লোকজন ও প্রতিবেশীরা তাকে রাস্তায় বের করে দিয়েছে। বাড়ির লোকজন ঘরে তালা দিয়ে চলে গেছে।
উর্মিলা বাড়ির সামনের রাস্তায় অবস্থানকালে নাহিদের বিচার দাবি করেন। রাতে সে নিজ বাড়িতে চলে গেছে। আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে জানান।
এদিকে নাহিদের বাড়িতে কাউকে পাওয়া যায়নি। উর্মিলার কাছ থেকে নাহিদের মোবাইল নম্বর নিয়ে যোগাযোগ করা হলে মোবাইল ফোনের সুইচ বন্ধ পাওয়া যায়।
মথুরাপুর ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ শাহ আলম জানান, এ বিষয়ে আমার কাছে কেউ আসেননি। তবে নাহিদের বাবা তাকে বলেছেন, তার ছেলের সাথে মেয়েটির কোন সম্পর্ক নেই। মেয়েটি তার বাবার বাড়িতে চলে গেছে বলে জেনেছি।
Tag :
এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

জনপ্রিয় সংবাদ

খেলাধুলা মানসিক বিকাশ ও শরীর গঠনে সহায়তা করেঃ -লিয়াকত সিকদার

error: Content is protected !!

বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান তরুণীর

আপডেট টাইম : ০৫:১৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ৫ নভেম্বর ২০২৩
পাবনার চাটমোহরে বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান করছেন এক তরুণী। শনিবার (৪ নভেম্বর) সকালে উপজেলার মথুরাপুর ইউনিয়নের উথুলী দক্ষিণপাড়া গ্রামে সেনাবাহিনীর সদস্য মোঃ নাহিদ হোসেনের বাড়িতে এসে অবস্থান নেন প্রেমিকা উর্মিলা আকতার বৃষ্টি। নাহিদ উথুলী দক্সিণপাড়া গ্রামের মোঃ আনসার আলীর ছেলে। সে সেনাবাহিনীতে কর্মরত।
উর্মিলা পাশের গ্রাম খড়বাড়িয়ার নজরুল ইসলামের মেয়ে এবং বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালের ল্যাব টেকনিশিয়ান পদে কর্মরত।
শনিবার (৪ নভেম্বর) সন্ধ্যায় ঘটনাস্থলে গেলে উর্মিলা জানান,নাহিদের সাথে তার ৩ বছরের প্রেম। বিয়ের প্রলোভনে সে একাধিকবার শারিরীক সম্পর্ক স্থাপন করেছে। গত ১২ অক্টোবর থেকে নাহিদ তার সাথে যোগাযোগ বন্ধ করে দিয়েছে। তাকে না পেয়ে তার বাড়ির লোকজনকেও বিষয়টি জানিয়েছি। কিন্তু কোন সুরাহা না পেয়ে প্রমাণাদিসহ আজ (শনিবার) এই বাড়িতে এসেছি। উর্মিলার দাবি বাড়ির লোকজন ও প্রতিবেশীরা তাকে রাস্তায় বের করে দিয়েছে। বাড়ির লোকজন ঘরে তালা দিয়ে চলে গেছে।
উর্মিলা বাড়ির সামনের রাস্তায় অবস্থানকালে নাহিদের বিচার দাবি করেন। রাতে সে নিজ বাড়িতে চলে গেছে। আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে জানান।
এদিকে নাহিদের বাড়িতে কাউকে পাওয়া যায়নি। উর্মিলার কাছ থেকে নাহিদের মোবাইল নম্বর নিয়ে যোগাযোগ করা হলে মোবাইল ফোনের সুইচ বন্ধ পাওয়া যায়।
মথুরাপুর ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ শাহ আলম জানান, এ বিষয়ে আমার কাছে কেউ আসেননি। তবে নাহিদের বাবা তাকে বলেছেন, তার ছেলের সাথে মেয়েটির কোন সম্পর্ক নেই। মেয়েটি তার বাবার বাড়িতে চলে গেছে বলে জেনেছি।