1. somoyerprotyasha@gmail.com : A.S.M. Murshid :
  2. letusikder@gmail.com : Litu Sikder : Litu Sikder
  3. mokterreporter@gmail.com : Mokter Hossain : Mokter Hossain
  4. tussharpress@gmail.com : Tusshar Bhattacharjee : Tusshar Bhattacharjee
বোয়ালমারীতে কিটনাশক বিক্রেতার ভুলে দেড় বিঘা জমির ধান ধ্বংস - দৈনিক সময়ের প্রত্যাশা ডটকম
শুক্রবার, ১৯ অগাস্ট ২০২২, ০৯:০২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
কানাইপুরে শ্রমিকদের যাতায়াতের পথ উন্মুক্ত করা ও এসিড কারখানা বন্ধের দাবিতে  মানববন্ধন ও বিক্ষোভ পাংশার বাবুপাড়া ইউপি আওয়ামী লীগের উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবস পালিত বোয়ালমারীতে রাগীব-দিয়ান ফাউন্ডেশনের নলকূপ পেল দরিদ্ররা পাংশায় আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিল-সমাবেশ অনুষ্ঠিত ফরিদপুরে জন্মাষ্টমী উৎসব পালন ভেড়ামারায় চাঞ্চল্যকর সিদ্দিক হত্যা মামলার বাদী প্রেসক্লাবে সাংবাদিক সন্মেলনে অভিযোগ ফরিদপুরে পবিত্র মনসা পূজা অনুষ্ঠিত খোকসায় ১৭ আগস্ট জেএমবির সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত ফরিদপুর পৌর আওয়ামী লীগের উদ্যোগ  বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত আলফাডাঙ্গায় ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী আশিকের নির্বাচনী আলোচনা সভা

বোয়ালমারীতে কিটনাশক বিক্রেতার ভুলে দেড় বিঘা জমির ধান ধ্বংস

এস. এম. রুবেল, বিশেষ প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১৩ মার্চ, ২০২১
  • ২৭ বার পঠিত

ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলায় কিটনাশক বিক্রেতার ভূলে দেড় বিঘা জমির ধান পুড়ে ধ্বংস হওয়ার ঘটনা ঘটেছে।

গতকাল শনিবার সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, সাতৈর ইউনিয়নের কাদরদী মৌজায় কাদিরদী মাঠে দেড় বিঘা জমিতে দুই মাস আগে ধান রোপণ করেন কামালদিয়া গ্রামের মোঃ মুতালেব শেখ(৬৫)।

ব্যাপক ফসলের গঠন নিয়ে দাড়িয়ে ছিল ধানের ক্ষেত। ধানের সাথে কিছু আগাছা হওয়ার কারণে তা ভেনিষ করার জন্য গত বুধবার(০৩.০৩.২১) তারিখে জেলার বৃহত্ত শিল্প নগরী কানাইপুর বাজরে মেসার্স পদ্মা এন্টারপ্রাইজ সারের দোকান থেকে এসিআই কম্পানির উইডনীল নামের একটি ঔষুধ নিয়ে প্রয়োগ করেন।

সপ্তাহ না পেরুতেই ধান ক্ষেত লাল বর্ণের হয়ে যায়। এখন তা পুড়ে ধ্বংস হয়ে গেছে। কৃষক মুতালেবের ছেলে হেমায়েত হেসেন হিমু বলেন, আমাদের ১৮০ শতাংশ ধান ক্ষেতে ছেচি নামের আগাছা হয়ে ছিল প্রচুর আকারে। আগাছা মারতে সার ব্যবসায়ী সুনিল দত্তের সাথে পরামর্শ করি। তখন তিনি আমাকে উইডনীল নামের ৫ ফাইল ঔষুধ নিয়ে প্রয়োগ করতে বলেন। পরে সে ঔষুধ ধান ক্ষেতে ছিটিয়ে দেয়।

একদিন পরেই ধান ক্ষেতের জোড় কমতে থাকে। আমি তখন সার ব্যবসায়ী সুনিল দত্তকে সব কথা খুলে বলি তখন তিনি আমাকে বলেন,ঔষুধ দিলে ধান ক্ষেত একটু লাল বর্ণের হয় এতে কোন প্রকার সমস্যা না। আস্তে আস্তে ঠিক হয়ে যাবে সে জন্য আমি তার কথায় বিশ্বাস করে আর কারো কাছে পরামর্শ করিনি। তাই আজ আমাদের সোনার মত ধান ক্ষেত পুড়ে ধ্বংস হয়েছে।

এ ঘটনায় সব দোষ সার ব্যবসায়ীর এমনটিই অভিযোগ করেন কৃষক মুতালেবের ছেলে হেমায়েত। তিনি আরো বলেন, প্রায় ২লাক্ষ টাকার ফসল নষ্ট হল ।

এসব সার ব্যবসায়ীর কারণে সাধারণ কৃষকের মৃত্যু ছাড়া উপায় নেই। এ বিষয় নিয়ে উপজেলা কৃষি অফিসার প্রীতম কুমার হোড় বলেন, আমাদের কাছে এখনো কোন লিখিত অভিযোগ আসেনি। তবে অভিযোগ আসলে বিষয়টা নিয়ে গুরুত্ব সহকারে খতিয়ে দেখা হবে।

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..

 

 

Copyright August, 2020-2022 @ somoyerprotyasha.com
Website Hosted by: Bdwebs.com
themesbazarsomoyerpr1
error: Content is protected !!