ঢাকা , সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২৪ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
খোকসায় অবশেষে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে অসহায় বৃদ্ধ হারুন-অর-রশিদ প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়নের ঘর ফিরে পেলেন ১ লক্ষ ২৯ হাজার টাকা পরিশোধ না করায় নড়াইলে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষন অধিদপ্তরে প্রতারনার অভিযোগ করে নিজেই প্রতারনায় ফেঁসে গেলেন জামী সাংবাদিক নড়াইলের লোহাগড়ার দুই সন্তানের জননী কে গলা কেটে হত্যার অভিযোগ নড়াইলে দুগ্রুপের সংঘর্ষে অন্তত ১২জন আহত নগরকান্দায় শিশুর জন্ম হলেই উপহার ও মিষ্টি নিয়ে হাজির ইউএনও বাস্তব কাহিনীতে ইউএনও’র লেখায় নির্মিত হচ্ছে নাটক ‘স্বপ্নের ঠিকানা’ সালথায় ঘরের আড়ার সঙ্গে ঝুলছিল গৃহবধূর মরদেহ,পরিবারের দাবি হত্যা ভালোবাসা দিবসে উপহার নিয়ে এলো ইনফিনিক্স লাভ ফেস্ট জাতীয় গ্রন্থগার দিবস উপলক্ষে আলফাডাঙ্গায় গুণীজন সংবর্ধনা সক্ষম সবাইকে কর প্রদানের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

উদর পিন্ডি বুড়োর ঘাড়ে !

নড়াইলে স্বামী কারাগারে স্ত্রীর কান্না থামছে না,  প্রতিবাদে এলাকাবাসীর মানববন্ধন

উদর পিন্ডি বুড়োর ঘাড়ে ! একে তো স্বামীকে কারাগারে পাঠালো তারপরে ফসলী জমির ধান ফসল উপড়ে ফেললো, যে কারনে কান্না থামছেনা গীতা রানী বালার।
প্রতিবাদে ব্যাথিত হয়ে আজ সকালে ধানক্ষেতেই এলাকাবাসীর মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। ঘটনাটি ঘটেছে নড়াইল সদর উপজেলার আওড়িয়া ইউনিয়নের মুলদাইড় গ্রামে।
মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, মুলদাইড় গ্রামের মোঃ শহিদুল ইসলাম, সুরুচি রায়, বাসন্তী রানী, রেখা রানী বালা, প্রত্যশী বালা প্রমূখ।
বক্তারা বলেন, মুলদাইড় গ্রামের মৃৃত সুরেন বালার ছেলে শুনিল বালা অসহায় বর্গাচাষী। পরের জমি চাষ করে সংসার চলে তার। দিন আনে দিন খায় দীন মজুর
প্রকৃতির লোক। সে তালতলা গ্রামের জাহিদ মুন্সীর মুলদাইড় মাঠের ১৮ শতক জমিতে বোলাকে ইরিধান আবাদ করেছে এবংং ফসল ও ভালো হয়েছে ।
কিন্ত গতকাল তালতলা গ্রামের মাওলানা গোলাম মোস্তফার নেতৃত্বে একদল লোক এসে সেই ধান ফসল উপড়ে ফেলে ক্ষতি করে।
আরো বলেন, এই জমি বর্গাচাষ করার অপরাধে গত বুধবার রাত দেড়টার দিকে পুলিশ এসে থানায়  কথা বলার কথা বলে নিয়ে যেয়ে কোর্টে চালান করে। যে কারনে গীতা বালা সন্তান নিয়ে হতাশ হয়ে পড়ে আতঙ্কে কান্নাকাটি করছে। তাই আমরা এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই এবং অবিলম্বে শুষ্ঠু সমাধান চাই।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে মাওলানা গোলাম মোস্তফা বলেন,এটা আমার জমি এবং এ জমি নিয়ে আদালতে মামলা চলছে শুনিল বালা ও ডাবলু জবর দখল করে খাচ্ছিল। তাই আমি আ্ইনের আশ্রয় নিয়েছি। সেজন্য পুলিশ শুনিল বালাকে ধরে নিয়ে গেছে। এবং আমি থানা পুলিশকে জানিয়েই আমার জমি পরিস্কার করেছি।
এ বিষয়ে জাহিদ মুন্সি বলেন, মাওলানা গোলাম মোস্তফা আমার চাচাতো চাচা। অনুমান ৩৬ বছর পূর্বে আমার পিতার মৃত্যুর পর হতে যোগসাজশে জোর পূর্বক আমার পিতার জায়গা জমি ভোগ দখল করে আসছিল।

আমি ২০০১ সালে কর্মসংস্থানের উদ্দেশ্যে বিদেশ (কুয়েত) চলে যাই। আমি কুয়েতে থাকাকালীন সদর থানাধীন ১৩৭ নং তালতলা মৌজার খতিয়ান নং- ৮৫ এর সাবেক দাগ নং- ৪৪ এর অধীনে ১৮ শতাংশ ধানী জমি জোর পূর্বক ভোগ দখল করতে থাকে।

আমি ২০১৫ সালে বাড়ীতে আসার পর আমি আমার জমি ভোগ দখল করতে থাকি । এরপর থেকে আমার চাচা উক্ত জমি জোর পূর্বক ভোগ দখল করার জন্য আমাকে খুন জখম করার জন্য ষড়যন্ত্র করতে থাকে। যার কারনে আমি জমিটি সুনীল বালাকে বর্গা দেই। শুনিল বালা জমিতে অনুমান ০২মাস পূর্বে ইরি ধান বপন করে।
১২/০৩/২০২১ তারিখ সকাল অনুমান ১০.০০ ঘটিকায় বেআইনী ভাবে হাতে লাঠি সোটা সহ আমার জমিতে অনধিকার প্রবেশ করে জমিতে থাকা ধান উপড়ে ফেলে অনুমান ২৫,০০০/- টাকার ক্ষতি সাধন করে।
এ ব্যাপারে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ ইলিয়াস হোসেন বলেন, লিখিত অভিযোগ পেয়েিেছ এবং এসআই শোভনকে ঘটনার সত্যতা যাচাইয়ের জন্য দায়িত্ব
দেওয়া হয়েছে। এবং শুনিল বালার জামিনের জন্য সহযোগিতা করা হবে।
Tag :

এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

খোকসায় অবশেষে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে অসহায় বৃদ্ধ হারুন-অর-রশিদ প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়নের ঘর ফিরে পেলেন

error: Content is protected !!

উদর পিন্ডি বুড়োর ঘাড়ে !

নড়াইলে স্বামী কারাগারে স্ত্রীর কান্না থামছে না,  প্রতিবাদে এলাকাবাসীর মানববন্ধন

আপডেট টাইম : ০১:২১ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ মার্চ ২০২১
উদর পিন্ডি বুড়োর ঘাড়ে ! একে তো স্বামীকে কারাগারে পাঠালো তারপরে ফসলী জমির ধান ফসল উপড়ে ফেললো, যে কারনে কান্না থামছেনা গীতা রানী বালার।
প্রতিবাদে ব্যাথিত হয়ে আজ সকালে ধানক্ষেতেই এলাকাবাসীর মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। ঘটনাটি ঘটেছে নড়াইল সদর উপজেলার আওড়িয়া ইউনিয়নের মুলদাইড় গ্রামে।
মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, মুলদাইড় গ্রামের মোঃ শহিদুল ইসলাম, সুরুচি রায়, বাসন্তী রানী, রেখা রানী বালা, প্রত্যশী বালা প্রমূখ।
বক্তারা বলেন, মুলদাইড় গ্রামের মৃৃত সুরেন বালার ছেলে শুনিল বালা অসহায় বর্গাচাষী। পরের জমি চাষ করে সংসার চলে তার। দিন আনে দিন খায় দীন মজুর
প্রকৃতির লোক। সে তালতলা গ্রামের জাহিদ মুন্সীর মুলদাইড় মাঠের ১৮ শতক জমিতে বোলাকে ইরিধান আবাদ করেছে এবংং ফসল ও ভালো হয়েছে ।
কিন্ত গতকাল তালতলা গ্রামের মাওলানা গোলাম মোস্তফার নেতৃত্বে একদল লোক এসে সেই ধান ফসল উপড়ে ফেলে ক্ষতি করে।
আরো বলেন, এই জমি বর্গাচাষ করার অপরাধে গত বুধবার রাত দেড়টার দিকে পুলিশ এসে থানায়  কথা বলার কথা বলে নিয়ে যেয়ে কোর্টে চালান করে। যে কারনে গীতা বালা সন্তান নিয়ে হতাশ হয়ে পড়ে আতঙ্কে কান্নাকাটি করছে। তাই আমরা এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই এবং অবিলম্বে শুষ্ঠু সমাধান চাই।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে মাওলানা গোলাম মোস্তফা বলেন,এটা আমার জমি এবং এ জমি নিয়ে আদালতে মামলা চলছে শুনিল বালা ও ডাবলু জবর দখল করে খাচ্ছিল। তাই আমি আ্ইনের আশ্রয় নিয়েছি। সেজন্য পুলিশ শুনিল বালাকে ধরে নিয়ে গেছে। এবং আমি থানা পুলিশকে জানিয়েই আমার জমি পরিস্কার করেছি।
এ বিষয়ে জাহিদ মুন্সি বলেন, মাওলানা গোলাম মোস্তফা আমার চাচাতো চাচা। অনুমান ৩৬ বছর পূর্বে আমার পিতার মৃত্যুর পর হতে যোগসাজশে জোর পূর্বক আমার পিতার জায়গা জমি ভোগ দখল করে আসছিল।

আমি ২০০১ সালে কর্মসংস্থানের উদ্দেশ্যে বিদেশ (কুয়েত) চলে যাই। আমি কুয়েতে থাকাকালীন সদর থানাধীন ১৩৭ নং তালতলা মৌজার খতিয়ান নং- ৮৫ এর সাবেক দাগ নং- ৪৪ এর অধীনে ১৮ শতাংশ ধানী জমি জোর পূর্বক ভোগ দখল করতে থাকে।

আমি ২০১৫ সালে বাড়ীতে আসার পর আমি আমার জমি ভোগ দখল করতে থাকি । এরপর থেকে আমার চাচা উক্ত জমি জোর পূর্বক ভোগ দখল করার জন্য আমাকে খুন জখম করার জন্য ষড়যন্ত্র করতে থাকে। যার কারনে আমি জমিটি সুনীল বালাকে বর্গা দেই। শুনিল বালা জমিতে অনুমান ০২মাস পূর্বে ইরি ধান বপন করে।
১২/০৩/২০২১ তারিখ সকাল অনুমান ১০.০০ ঘটিকায় বেআইনী ভাবে হাতে লাঠি সোটা সহ আমার জমিতে অনধিকার প্রবেশ করে জমিতে থাকা ধান উপড়ে ফেলে অনুমান ২৫,০০০/- টাকার ক্ষতি সাধন করে।
এ ব্যাপারে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ ইলিয়াস হোসেন বলেন, লিখিত অভিযোগ পেয়েিেছ এবং এসআই শোভনকে ঘটনার সত্যতা যাচাইয়ের জন্য দায়িত্ব
দেওয়া হয়েছে। এবং শুনিল বালার জামিনের জন্য সহযোগিতা করা হবে।