ঢাকা , সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২৪ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
খোকসায় অবশেষে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে অসহায় বৃদ্ধ হারুন-অর-রশিদ প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়নের ঘর ফিরে পেলেন চলেন গেলেন দক্ষিণের অভিভাবক বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ বীর মুক্তিযোদ্বা মোছলেম উদ্দিন আহমদ এমপি ১ লক্ষ ২৯ হাজার টাকা পরিশোধ না করায় নড়াইলে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষন অধিদপ্তরে প্রতারনার অভিযোগ করে নিজেই প্রতারনায় ফেঁসে গেলেন জামী সাংবাদিক কৃষকের পেঁয়াজের ক্ষেত বিষ দিয়ে নষ্টের অভিযোগ নড়াইলের লোহাগড়ার দুই সন্তানের জননী কে গলা কেটে হত্যার অভিযোগ নড়াইলে দুগ্রুপের সংঘর্ষে অন্তত ১২জন আহত নগরকান্দায় শিশুর জন্ম হলেই উপহার ও মিষ্টি নিয়ে হাজির ইউএনও বাস্তব কাহিনীতে ইউএনও’র লেখায় নির্মিত হচ্ছে নাটক ‘স্বপ্নের ঠিকানা’ সালথায় ঘরের আড়ার সঙ্গে ঝুলছিল গৃহবধূর মরদেহ,পরিবারের দাবি হত্যা ভালোবাসা দিবসে উপহার নিয়ে এলো ইনফিনিক্স লাভ ফেস্ট

পাংশায় ৪টি মসজিদে প্রফেসর ডঃ কে.এম মহসীনের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনায় মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত

পাংশা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে শুক্রবার জুম্মার নামাজের পর ডঃ কে.এম মহসীনের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

পাংশার কৃতী সন্তান, ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ভাইস চ্যান্সেলর, গুণী ব্যক্তিত্ব ইতিহাসবিদ ডঃ কে.এম মহসীনের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করে শুক্রবার ২৬ ফেব্রæয়ারী জুম্মার নামাজের পর পাংশা শহরের কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ, পাংশা মডেল থানা মসজিদ, হাবাসপুর মিয়াপাড়া জামে মসজিদ ও বাহাদুরপুর জামে মসজিদে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।
পাংশা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল পরিচালনা করেন মসজিদের খতিব ও পাংশা শাহজুঁই কামিল মাদরাসার অধ্যক্ষ আলহাজ্ব মাওলানা মুহাঃ আবু মুছা আশয়ারী। অনুষ্ঠানে রাজবাড়ী-২ আসনের সাবেক জাতীয় সংসদ সদস্য নাসিরুল হক সাবু ও মসলেম উদ্দিন মোমেন, পাংশা পৌরসভার সাবেক মেয়র আব্দুল আল মাসুদসহ মসজিদের মুসল্লী ও স্থানীয় বিভিন্ন শ্রেণি পেশার লোকজন উপস্থিত ছিলেন। ডঃ কে.এম মহসীনের ভাতিজা পারভেজ খান সোহেলের সার্বিক তত্ত¡াবধানে মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

ডঃ কে.এম মহসীনের জন্মস্থান পাংশার হাবাসপুর ইউপির হাবাসপুর মিয়া পাড়া গ্রামে। তিনি হাবাসপুর ডঃ কাজী মোতাহার হোসেন কলেজের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা ও পৃষ্ঠপোষক। এছাড়া তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান ও কলা অনুষদের সাবেক ডীন, ঢাকাস্থ হাবাসপুর-বাহাদুরপুর প্রাক্তন ছাত্র সমিতির উপদেষ্টা, ঢাকাস্থ রাজবাড়ী জেলা সমিতির উপদেষ্টা, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের সাবেক সদস্য ছিলেন।

গত ২২ ফেব্রæয়ারী সকাল ৯টার দিকে বার্ধক্যজনিত কারণে ঢাকায় ইন্তেকাল করেন তিনি। তার মৃত্যুতে হাবাসপুর ডঃ কাজী মোতাহার হোসেন কলেজসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও বিশিষ্ট ব্যক্তিরা গভীর শোক এবং শোক সন্তপ্ত পরিবারকে সমবেদনা প্রকাশ করে।

Tag :

এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

খোকসায় অবশেষে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে অসহায় বৃদ্ধ হারুন-অর-রশিদ প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়নের ঘর ফিরে পেলেন

error: Content is protected !!

পাংশায় ৪টি মসজিদে প্রফেসর ডঃ কে.এম মহসীনের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনায় মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত

আপডেট টাইম : ০৬:৫২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১

পাংশার কৃতী সন্তান, ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ভাইস চ্যান্সেলর, গুণী ব্যক্তিত্ব ইতিহাসবিদ ডঃ কে.এম মহসীনের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করে শুক্রবার ২৬ ফেব্রæয়ারী জুম্মার নামাজের পর পাংশা শহরের কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ, পাংশা মডেল থানা মসজিদ, হাবাসপুর মিয়াপাড়া জামে মসজিদ ও বাহাদুরপুর জামে মসজিদে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।
পাংশা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল পরিচালনা করেন মসজিদের খতিব ও পাংশা শাহজুঁই কামিল মাদরাসার অধ্যক্ষ আলহাজ্ব মাওলানা মুহাঃ আবু মুছা আশয়ারী। অনুষ্ঠানে রাজবাড়ী-২ আসনের সাবেক জাতীয় সংসদ সদস্য নাসিরুল হক সাবু ও মসলেম উদ্দিন মোমেন, পাংশা পৌরসভার সাবেক মেয়র আব্দুল আল মাসুদসহ মসজিদের মুসল্লী ও স্থানীয় বিভিন্ন শ্রেণি পেশার লোকজন উপস্থিত ছিলেন। ডঃ কে.এম মহসীনের ভাতিজা পারভেজ খান সোহেলের সার্বিক তত্ত¡াবধানে মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

ডঃ কে.এম মহসীনের জন্মস্থান পাংশার হাবাসপুর ইউপির হাবাসপুর মিয়া পাড়া গ্রামে। তিনি হাবাসপুর ডঃ কাজী মোতাহার হোসেন কলেজের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা ও পৃষ্ঠপোষক। এছাড়া তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান ও কলা অনুষদের সাবেক ডীন, ঢাকাস্থ হাবাসপুর-বাহাদুরপুর প্রাক্তন ছাত্র সমিতির উপদেষ্টা, ঢাকাস্থ রাজবাড়ী জেলা সমিতির উপদেষ্টা, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের সাবেক সদস্য ছিলেন।

গত ২২ ফেব্রæয়ারী সকাল ৯টার দিকে বার্ধক্যজনিত কারণে ঢাকায় ইন্তেকাল করেন তিনি। তার মৃত্যুতে হাবাসপুর ডঃ কাজী মোতাহার হোসেন কলেজসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও বিশিষ্ট ব্যক্তিরা গভীর শোক এবং শোক সন্তপ্ত পরিবারকে সমবেদনা প্রকাশ করে।