ঢাকা , শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রতিনিধি নিয়োগ
দৈনিক সময়ের প্রত্যাশা পত্রিকার জন্য সারা দেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ করা হচ্ছে। আপনি আপনার এলাকায় সাংবাদিকতা পেশায় আগ্রহী হলে যোগাযোগ করুন।

ঝিনাইদহে বাড়ছে ডায়রিয়া আক্রান্ত শিশু রোগীর সংখ্যা

ঝিনাইদহে গত কয়েদিনে ঠান্ডাজনিত কারণে শিশু রোগীর সংখ্যা বেড়েছে। প্রতিদিনই সদর হাসপাতালে নতুন নতুন রোগী ভর্তি হচ্ছে। এদের মধ্যে বেশিরভাগ শিশু নিউমোনিয়া ও ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে আসছে।

বর্তমানে শিশু বিভাগে আট শয্যার বিপরীতে ভর্তি রয়েছে ৫৯ জন। এরমধ্যে ডায়রিয়া আক্রান্ত ২৫ এবং বাকি ৩৪ শিশু নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত প্রতিদিনই গড়ে ২৫ জন ভর্তি হচ্ছে আর ২০ শিশু ছাড়পত্র নিয়ে বাড়িতে ফিরছে।

এ ছাড়া প্রতিদিনই বহি:বিভাগও জরুরী বিভাগের মাধ্যমেও দেড়শতাধীক শিশু চিকিৎসা সেবা নিচ্ছে বলে জানিয়ে হাসপালটির শিশু বিভাগের চিকিৎসকরা। ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালের শিশু বিশেষজ্ঞ ডা: আনোয়ারুল ইসলাম জানান, বর্তমানে শিশুদের মধ্যে ঠান্ডা জনিত কারণে ডায়রিয়া রোগটা বেশী বেড়েছে।

সাথে রয়েছে নিউমোনিয়া। এমন অবস্থায় তাদের সাধ্যমত চিকিৎসা সেবা দেওয়া হচ্ছে। তবে শয্যার তুলনায় রোগী বেশী থাকায় একটু সমস্যা হচ্ছে। তবে শিশুদের শারীরিক ভাবে স্বুস্থ রাখতে হাসি, কাশি, ঠান্ডা থেকে দুরে রাখতে অভিভাবকদের নানা পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।

Tag :
এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

জনপ্রিয় সংবাদ
error: Content is protected !!

ঝিনাইদহে বাড়ছে ডায়রিয়া আক্রান্ত শিশু রোগীর সংখ্যা

আপডেট টাইম : ১১:২৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২ ফেব্রুয়ারী ২০২১

ঝিনাইদহে গত কয়েদিনে ঠান্ডাজনিত কারণে শিশু রোগীর সংখ্যা বেড়েছে। প্রতিদিনই সদর হাসপাতালে নতুন নতুন রোগী ভর্তি হচ্ছে। এদের মধ্যে বেশিরভাগ শিশু নিউমোনিয়া ও ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে আসছে।

বর্তমানে শিশু বিভাগে আট শয্যার বিপরীতে ভর্তি রয়েছে ৫৯ জন। এরমধ্যে ডায়রিয়া আক্রান্ত ২৫ এবং বাকি ৩৪ শিশু নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত প্রতিদিনই গড়ে ২৫ জন ভর্তি হচ্ছে আর ২০ শিশু ছাড়পত্র নিয়ে বাড়িতে ফিরছে।

এ ছাড়া প্রতিদিনই বহি:বিভাগও জরুরী বিভাগের মাধ্যমেও দেড়শতাধীক শিশু চিকিৎসা সেবা নিচ্ছে বলে জানিয়ে হাসপালটির শিশু বিভাগের চিকিৎসকরা। ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালের শিশু বিশেষজ্ঞ ডা: আনোয়ারুল ইসলাম জানান, বর্তমানে শিশুদের মধ্যে ঠান্ডা জনিত কারণে ডায়রিয়া রোগটা বেশী বেড়েছে।

সাথে রয়েছে নিউমোনিয়া। এমন অবস্থায় তাদের সাধ্যমত চিকিৎসা সেবা দেওয়া হচ্ছে। তবে শয্যার তুলনায় রোগী বেশী থাকায় একটু সমস্যা হচ্ছে। তবে শিশুদের শারীরিক ভাবে স্বুস্থ রাখতে হাসি, কাশি, ঠান্ডা থেকে দুরে রাখতে অভিভাবকদের নানা পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।