ঢাকা , রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রতিনিধি নিয়োগ
দৈনিক সময়ের প্রত্যাশা পত্রিকার জন্য সারা দেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ করা হচ্ছে। আপনি আপনার এলাকায় সাংবাদিকতা পেশায় আগ্রহী হলে যোগাযোগ করুন।

বাড়ি থেকে আধা কিলোমিটার দূরে যুবকের গলিত মরদেহ

রংপুরের পীরগাছায় নিখোঁজের ৪ দিন পর ফিরোজ মিয়া (২২) নামে এক যুবকের অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বাড়ি থেকে প্রায় আধা কিলোমিটার দূরে একটি নির্মাণাধীন গুচ্ছগ্রাম থেকে সোমবার সকালে মাটিচাপা অবস্থায় মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

নিহত ফিরোজ উপজেলার কান্দি ইউনিয়নের কাবিলাপাড়া গ্রামের আমির উদ্দিনের ছেলে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে পুলিশ ৪ জনকে আটক করেছে।

আটকরা হলেন, উপজেলার কাবিলাপাড়া গ্রামের শফিকুল ইসলামের ছেলে টিপু (২৬), মৃত আওয়াল মিয়ার ছেলে শাহিন মিয়া (২৫), মতিল চৌকিদারের ছেলে সুলতান হোসেন ও পার্শ্ববর্তী দোয়ানী গ্রামের নুর মোহাম্মদের ছেলে জাহিদুল ইসলাম (২৪)।

এলাকাবাসী ও স্বজনরা জানায়, গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর থেকে ফিরোজের কোনো খোঁজ পাচ্ছিলেন না পরিবারের লোকজন। অনেক খোঁজাখুঁজির পর কোথাও না পেয়ে শনিবার পীরগাছা থানায় একটি সাধারণ ডায়রি (জিডি) করেন তার বাবা। সোমবার সকালে বাড়ি থেকে প্রায় আধা কিলোমিটার দূরে স্থানীয়রা একটি নির্মাণাধীন গুচ্ছগ্রামে মাটিচাপা অবস্থায় মরদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহটি উদ্ধার করে।

নিহত ফিরোজের সঙ্গে আটকদের স্থানীয় কান্দি বাজারের একটি চায়ের দোকানে বৃহস্পতিবার শেষবার দেখা গেছে বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়।

নিহতের বাবা আমির উদ্দিন জানান, আমার ছেলের সঙ্গে কারও শত্রুতা নেই। তবে নিখোঁজের দিন তার সঙ্গে প্রায় লক্ষাধিক টাকা ছিল। ওই টাকা হাতিয়ে নিতেই তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে।

পীরগাছা থানার ওসি রেজাউল করিম জানান, নিখোঁজের পর পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় জিডি করা হয়েছে। পুলিশ মরদেহের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করছে। এ ঘটনায় ৪ জনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

Tag :
এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

জনপ্রিয় সংবাদ
error: Content is protected !!

বাড়ি থেকে আধা কিলোমিটার দূরে যুবকের গলিত মরদেহ

আপডেট টাইম : ০১:০৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ১১ ফেব্রুয়ারী ২০১৯

রংপুরের পীরগাছায় নিখোঁজের ৪ দিন পর ফিরোজ মিয়া (২২) নামে এক যুবকের অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বাড়ি থেকে প্রায় আধা কিলোমিটার দূরে একটি নির্মাণাধীন গুচ্ছগ্রাম থেকে সোমবার সকালে মাটিচাপা অবস্থায় মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

নিহত ফিরোজ উপজেলার কান্দি ইউনিয়নের কাবিলাপাড়া গ্রামের আমির উদ্দিনের ছেলে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে পুলিশ ৪ জনকে আটক করেছে।

আটকরা হলেন, উপজেলার কাবিলাপাড়া গ্রামের শফিকুল ইসলামের ছেলে টিপু (২৬), মৃত আওয়াল মিয়ার ছেলে শাহিন মিয়া (২৫), মতিল চৌকিদারের ছেলে সুলতান হোসেন ও পার্শ্ববর্তী দোয়ানী গ্রামের নুর মোহাম্মদের ছেলে জাহিদুল ইসলাম (২৪)।

এলাকাবাসী ও স্বজনরা জানায়, গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর থেকে ফিরোজের কোনো খোঁজ পাচ্ছিলেন না পরিবারের লোকজন। অনেক খোঁজাখুঁজির পর কোথাও না পেয়ে শনিবার পীরগাছা থানায় একটি সাধারণ ডায়রি (জিডি) করেন তার বাবা। সোমবার সকালে বাড়ি থেকে প্রায় আধা কিলোমিটার দূরে স্থানীয়রা একটি নির্মাণাধীন গুচ্ছগ্রামে মাটিচাপা অবস্থায় মরদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহটি উদ্ধার করে।

নিহত ফিরোজের সঙ্গে আটকদের স্থানীয় কান্দি বাজারের একটি চায়ের দোকানে বৃহস্পতিবার শেষবার দেখা গেছে বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়।

নিহতের বাবা আমির উদ্দিন জানান, আমার ছেলের সঙ্গে কারও শত্রুতা নেই। তবে নিখোঁজের দিন তার সঙ্গে প্রায় লক্ষাধিক টাকা ছিল। ওই টাকা হাতিয়ে নিতেই তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে।

পীরগাছা থানার ওসি রেজাউল করিম জানান, নিখোঁজের পর পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় জিডি করা হয়েছে। পুলিশ মরদেহের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করছে। এ ঘটনায় ৪ জনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।