ঢাকা , রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রতিনিধি নিয়োগ
দৈনিক সময়ের প্রত্যাশা পত্রিকার জন্য সারা দেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ করা হচ্ছে। আপনি আপনার এলাকায় সাংবাদিকতা পেশায় আগ্রহী হলে যোগাযোগ করুন।

পাবনার ফরিদপুরে শিশুর বস্তাবন্দী মরদেহ উদ্ধার

পাবনার ফরিদপুর উপজেলার বড়াল নদী থেকে শুক্রবার (১৫ জানুয়ারি) সকালে আলী হোসেন (৮) নামে এক শিশুর বস্তাবন্দি মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
মৃত শিশু উপজেলার পুঙ্গলী ইউনিয়নের দিঘুলিয়া দাবাড়িয়া গ্রামের আতাউর রহমানের ছেলে।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, বৃহস্পতিবার (১৪ জানুযারি) রাতে বাড়ি থেকে পাশেই জালসা শুনতে যায় আলী হোসেন। জালসা শেষ হলেও শিশু আলী বাড়ি ফিরে আসেনি। বাড়ির লোকজন অনেক খোঁজ করে পায়নি।
শুক্রবার সকালে স্থানীয়রা বাড়ির পাশে বড়াল নদীর মধ্যে ডালপালার উপর একটি বস্তা পড়ে থাকতে দেখে এগিয়ে গিয়ে বস্তা খুলে একটি শিশুর মরদেহ দেখতে পায়। খবর পেয়ে স্বজনরা গিয়ে মরদেহটি আলী হোসেন বলে সনাক্ত করে।
ফরিদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুদ রানা বলেন, পুলিশ খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। শিশুটির মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যায়নি। তবে শিশুটির কানে ও গলায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। প্রাথমিকভাবে শিশুটিকে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।
Tag :
এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

জনপ্রিয় সংবাদ
error: Content is protected !!

পাবনার ফরিদপুরে শিশুর বস্তাবন্দী মরদেহ উদ্ধার

আপডেট টাইম : ০২:১০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৫ জানুয়ারী ২০২১
পাবনার ফরিদপুর উপজেলার বড়াল নদী থেকে শুক্রবার (১৫ জানুয়ারি) সকালে আলী হোসেন (৮) নামে এক শিশুর বস্তাবন্দি মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
মৃত শিশু উপজেলার পুঙ্গলী ইউনিয়নের দিঘুলিয়া দাবাড়িয়া গ্রামের আতাউর রহমানের ছেলে।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, বৃহস্পতিবার (১৪ জানুযারি) রাতে বাড়ি থেকে পাশেই জালসা শুনতে যায় আলী হোসেন। জালসা শেষ হলেও শিশু আলী বাড়ি ফিরে আসেনি। বাড়ির লোকজন অনেক খোঁজ করে পায়নি।
শুক্রবার সকালে স্থানীয়রা বাড়ির পাশে বড়াল নদীর মধ্যে ডালপালার উপর একটি বস্তা পড়ে থাকতে দেখে এগিয়ে গিয়ে বস্তা খুলে একটি শিশুর মরদেহ দেখতে পায়। খবর পেয়ে স্বজনরা গিয়ে মরদেহটি আলী হোসেন বলে সনাক্ত করে।
ফরিদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুদ রানা বলেন, পুলিশ খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। শিশুটির মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যায়নি। তবে শিশুটির কানে ও গলায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। প্রাথমিকভাবে শিশুটিকে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।