ঢাকা , সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২৪ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
খোকসায় অবশেষে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে অসহায় বৃদ্ধ হারুন-অর-রশিদ প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়নের ঘর ফিরে পেলেন ১ লক্ষ ২৯ হাজার টাকা পরিশোধ না করায় নড়াইলে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষন অধিদপ্তরে প্রতারনার অভিযোগ করে নিজেই প্রতারনায় ফেঁসে গেলেন জামী সাংবাদিক কৃষকের পেঁয়াজের ক্ষেত বিষ দিয়ে নষ্টের অভিযোগ নড়াইলের লোহাগড়ার দুই সন্তানের জননী কে গলা কেটে হত্যার অভিযোগ নড়াইলে দুগ্রুপের সংঘর্ষে অন্তত ১২জন আহত নগরকান্দায় শিশুর জন্ম হলেই উপহার ও মিষ্টি নিয়ে হাজির ইউএনও বাস্তব কাহিনীতে ইউএনও’র লেখায় নির্মিত হচ্ছে নাটক ‘স্বপ্নের ঠিকানা’ সালথায় ঘরের আড়ার সঙ্গে ঝুলছিল গৃহবধূর মরদেহ,পরিবারের দাবি হত্যা ভালোবাসা দিবসে উপহার নিয়ে এলো ইনফিনিক্স লাভ ফেস্ট জাতীয় গ্রন্থগার দিবস উপলক্ষে আলফাডাঙ্গায় গুণীজন সংবর্ধনা

নড়াইলের মাকড়াইলে নদী ভাঙ্গন প্রতিরাধের দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত

নড়াইলের লোহাগড়া উপজলার মাকড়াইল গ্রামে মধুমতি নদীর ভাঙ্গন প্রতিরাধের দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। ভূক্তভোগী এলাকাবাসীর আয়োজনে সোমবার (৭ ডিসেম্বর) সকাল ১০টার দিকে নদীর তীরে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।
এ সময় বক্তব্য রাখেন মাকড়াইল গ্রামের এ কে ফজলুল হক, কাজী মাশারফ হাসান মিটু, মুজিবার রহমান খান, জানাহারা বেগম, পলি সুলতানাসহ অনেকে।
ক্ষতিগ্রস্তরা জানান, দীর্ঘ ৩৫ বছর ধরে নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার মাকড়াইল গ্রামে মধুমতি নদীর ভাঙ্গন অব্যাহত রয়েছে। ভাঙ্গনের কারণে এই জনপদের শত শত বসতবাড়ি, ভিটামাটি, গাছপালা, মসজিদ, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, রাস্তাঘাটসহ ফসলি জমি নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে। এর মধ্যে গত দুই বছর ধরে নদী ভাঙ্গন তীব্র আকার ধারণ করেছে।
এতে মাকড়াইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভাঙ্গনের মুখে রয়েছে। ভাঙ্গন প্রতিরাধে গত বছর কিছু কাজ হলেও তা প্রয়োজনের তুলনায় বেশ কম। বর্তমানও ভাঙ্গন অব্যাহত রয়েছে। তাই ক্ষতিগ্রস্তদের দাবি, প্রায় তিন কিলোমিটার এলাকাজুড়ে ভাঙন প্রতিরাধে স্থায়ী বাঁধ নির্মাণ করতে হব।
Tag :

এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

খোকসায় অবশেষে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে অসহায় বৃদ্ধ হারুন-অর-রশিদ প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়নের ঘর ফিরে পেলেন

error: Content is protected !!

নড়াইলের মাকড়াইলে নদী ভাঙ্গন প্রতিরাধের দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত

আপডেট টাইম : ০৬:৩৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ৭ ডিসেম্বর ২০২০
নড়াইলের লোহাগড়া উপজলার মাকড়াইল গ্রামে মধুমতি নদীর ভাঙ্গন প্রতিরাধের দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। ভূক্তভোগী এলাকাবাসীর আয়োজনে সোমবার (৭ ডিসেম্বর) সকাল ১০টার দিকে নদীর তীরে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।
এ সময় বক্তব্য রাখেন মাকড়াইল গ্রামের এ কে ফজলুল হক, কাজী মাশারফ হাসান মিটু, মুজিবার রহমান খান, জানাহারা বেগম, পলি সুলতানাসহ অনেকে।
ক্ষতিগ্রস্তরা জানান, দীর্ঘ ৩৫ বছর ধরে নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার মাকড়াইল গ্রামে মধুমতি নদীর ভাঙ্গন অব্যাহত রয়েছে। ভাঙ্গনের কারণে এই জনপদের শত শত বসতবাড়ি, ভিটামাটি, গাছপালা, মসজিদ, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, রাস্তাঘাটসহ ফসলি জমি নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে। এর মধ্যে গত দুই বছর ধরে নদী ভাঙ্গন তীব্র আকার ধারণ করেছে।
এতে মাকড়াইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভাঙ্গনের মুখে রয়েছে। ভাঙ্গন প্রতিরাধে গত বছর কিছু কাজ হলেও তা প্রয়োজনের তুলনায় বেশ কম। বর্তমানও ভাঙ্গন অব্যাহত রয়েছে। তাই ক্ষতিগ্রস্তদের দাবি, প্রায় তিন কিলোমিটার এলাকাজুড়ে ভাঙন প্রতিরাধে স্থায়ী বাঁধ নির্মাণ করতে হব।