ঢাকা , রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
Logo উপজেলা নির্বাচন পরবর্তী হামলা-ভাংচুরের অভিযোগ, আসামী গ্রেপ্তারের দাবি Logo খাগড়াছড়িতে জেলা পুলিশের উদ্যোগে বৃক্ষরোপন কর্মসূচী উদ্বোধন Logo ঈদকে সামনে রেখে হাতিয়ার গুরুত্বপূর্ণ ঘাটে কোস্টগার্ডের নিরাপত্তার জোরদার Logo সদরপুর ক্যাডেট স্কিম মাদরাসায় কুরআনের সবক Logo বোয়ালমারীতে ট্রাকের সংঘর্ষে মোটরসাইকেল চালক নিহত Logo জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা নাগরপুর উপজেলা ইউনিটের নতুন কার্যালয় উদ্বোধন Logo সদরপুরে ঠেঙ্গামারী আলিয়া মাদরাসা ও এতিমখানার শুভ উদ্বোধন Logo ডাকাত সর্দারকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব Logo নড়াইলে মোটরসাইকেলের বেপরোয়া গতি কেঁড়ে নিলো কিশোরের প্রাণ Logo ভুয়া পরিচয়ে চার বছর ধরে দন্ত চিকিৎসকের জেল ও জরিমানা
প্রতিনিধি নিয়োগ
দৈনিক সময়ের প্রত্যাশা পত্রিকার জন্য সারা দেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ করা হচ্ছে। আপনি আপনার এলাকায় সাংবাদিকতা পেশায় আগ্রহী হলে যোগাযোগ করুন।

কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সদর খানকে শোকজ

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দলীয় ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন, সংগঠন বিরোধী রীতিনীতি ও আদর্শ পরিপন্থি কার্যকলাপের অভিযোগে কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. সদর উদ্দিন খানকে কেন্দ্রীয় কমিটি কারণ দর্শানোর নোটিশ ইস্যু করেছে।

 

গত ১১ মে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেদ্রীয় কমিটির দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া স্বাক্ষরিত নোটিশে অভিযোগের ব্যাখ্যাসহ লিখিত জবাব আগামী ১৫ দিনের মধ্যে প্রেরণের জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হয়েছে।

 

শোকজ নোটিশে আরও উল্লেখ করা হয় যে, সম্প্রতি গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রচারিত আপনার বক্তব্যে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হয়েছে এবং তা সংগঠনের রীতিনীতি ও আদর্শ পরিপন্থি। আপনার বক্তব্য সংগঠনের শৃঙ্খলাবিরোধী এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী শাস্তিযোগ্য অপরাধ। এমতাবস্থায় আপনার বিরুদ্ধে কেনো শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে না, সে বিষয়ে ব্যাখ্যাসহ লিখিত জবাব দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনা এমপির রাজনৈতিক কার্যালয়ে প্রেরণের জন্য সাংগঠনিক নির্দেশক্রমে কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতিকে অনুরোধ জানানো হচ্ছে বলে নোটিশে উল্লেখ করা হয়।

 

 

গত ৭ জানুয়ারী অনুষ্ঠিত দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে কুষ্টিয়া-৪ আসনে দল মনোনীত এমপি প্রার্থীর বিপক্ষে অবস্থান, বিতর্কিত বক্তব্যসহ দলীয় বিভক্তি সৃষ্টি করে সদর খান সমালোচিত হন। এছাড়া গত ৪ মে প্রথম ধাপে অনুষ্ঠিত উপজেলা নির্বাচনে তার আপন ভাইকে খোকসা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে জেতাতে মরিয়া হয়েও চরমভাবে ধরাশায়ী হন সদর খান। উপজেলা নির্বাচনের আগে একটি নির্বাচনি সভায় সদর খান তার বক্তব্যে বলেছিলেন, ‘আমার সাথে যারা বিরোধিতা করবে, তারা স্বয়ং আল্লার সাথে বিরোধিতা করবে।’ তার এই বক্তব্যে ওই সময় জেলা জুড়ে নিন্দার চরম ঝড় উঠে।

Tag :
এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

জনপ্রিয় সংবাদ

উপজেলা নির্বাচন পরবর্তী হামলা-ভাংচুরের অভিযোগ, আসামী গ্রেপ্তারের দাবি

error: Content is protected !!

কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সদর খানকে শোকজ

আপডেট টাইম : ০৫:১৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দলীয় ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন, সংগঠন বিরোধী রীতিনীতি ও আদর্শ পরিপন্থি কার্যকলাপের অভিযোগে কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. সদর উদ্দিন খানকে কেন্দ্রীয় কমিটি কারণ দর্শানোর নোটিশ ইস্যু করেছে।

 

গত ১১ মে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেদ্রীয় কমিটির দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া স্বাক্ষরিত নোটিশে অভিযোগের ব্যাখ্যাসহ লিখিত জবাব আগামী ১৫ দিনের মধ্যে প্রেরণের জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হয়েছে।

 

শোকজ নোটিশে আরও উল্লেখ করা হয় যে, সম্প্রতি গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রচারিত আপনার বক্তব্যে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হয়েছে এবং তা সংগঠনের রীতিনীতি ও আদর্শ পরিপন্থি। আপনার বক্তব্য সংগঠনের শৃঙ্খলাবিরোধী এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী শাস্তিযোগ্য অপরাধ। এমতাবস্থায় আপনার বিরুদ্ধে কেনো শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে না, সে বিষয়ে ব্যাখ্যাসহ লিখিত জবাব দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনা এমপির রাজনৈতিক কার্যালয়ে প্রেরণের জন্য সাংগঠনিক নির্দেশক্রমে কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতিকে অনুরোধ জানানো হচ্ছে বলে নোটিশে উল্লেখ করা হয়।

 

 

গত ৭ জানুয়ারী অনুষ্ঠিত দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে কুষ্টিয়া-৪ আসনে দল মনোনীত এমপি প্রার্থীর বিপক্ষে অবস্থান, বিতর্কিত বক্তব্যসহ দলীয় বিভক্তি সৃষ্টি করে সদর খান সমালোচিত হন। এছাড়া গত ৪ মে প্রথম ধাপে অনুষ্ঠিত উপজেলা নির্বাচনে তার আপন ভাইকে খোকসা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে জেতাতে মরিয়া হয়েও চরমভাবে ধরাশায়ী হন সদর খান। উপজেলা নির্বাচনের আগে একটি নির্বাচনি সভায় সদর খান তার বক্তব্যে বলেছিলেন, ‘আমার সাথে যারা বিরোধিতা করবে, তারা স্বয়ং আল্লার সাথে বিরোধিতা করবে।’ তার এই বক্তব্যে ওই সময় জেলা জুড়ে নিন্দার চরম ঝড় উঠে।