ঢাকা , শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
Logo ঢাকায় সংবাদ সম্মেলনে কান্নাজড়িত কণ্ঠে আঞ্জুমান আরা Logo দৌলতপুরে ব্র্যাক শাখা অফিসের উদ্বোধন Logo তানোরে ইউপি চেয়ারম্যানের মৃত্যুতে শোকসভা ও মিলাদ Logo তানোরে গরু মোটাতাজা করণে নিষিদ্ধ ওষুধের রমরমা বাণিজ্যে Logo উচ্চ আদালতে রিট পিটিশন দায়েরঃ ভোট গ্রহণের ৫ দিন আগে যশোর সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন স্থগিত Logo যশোরে ৭০ লাখ টাকা ফেরত না দিয়ে প্রতারণার অভিযোগে আদালতে মামলা Logo তানোর পোস্ট অফিস থেকে টাকা গায়েবঃ ফেরত পেতে গ্রাহকের আত্মহত্যার হুমকি Logo নড়াইল সদর উপজেলা নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ ও বিতর্কিত করার চেষ্টার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন Logo বোয়ালমারীতে চেয়ারম্যান প্রার্থী লিটু শরীফের গণমাধ্যম কর্মীদের সাথে মতবিনিময় Logo প্রেম প্রস্তাবে ব্যর্থ হয়ে এডিস নিক্ষেপকারী যুবকের যাবজ্জীবন কারাদন্ড
প্রতিনিধি নিয়োগ
দৈনিক সময়ের প্রত্যাশা পত্রিকার জন্য সারা দেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ করা হচ্ছে। আপনি আপনার এলাকায় সাংবাদিকতা পেশায় আগ্রহী হলে যোগাযোগ করুন।

লালপুর উপজেলা নির্বাচন প্রচারণায় এগিয়ে শহীদ মমতাজ উদ্দিনের পুত্র শামীম আহমেদ সাগর

নাটোরের লালপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনী প্রচারণা জমে উঠেছে। বিএনপি ও আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা রাত-দিন ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে ভোট চাচ্ছেন। নবীন ও প্রবীণ মিলে চেয়ারম্যান পদে ৬ জন প্রার্থী মাঠে লড়ছেন। এর মধ্যে এগিয়ে আছেন কাপ পিরিচ প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তরুণ নেতা আলহাজ শামীম আহমেদ সাগর। তিনি সাবেক সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা একুশে পদকপ্রাপ্ত শহীদ মমতাজ উদ্দিন ও সাবেক সংসদ সদস্য শেফালী মমতাজের পুত্র।
এদিকে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে জেলা আওয়ামী লীগ, উপজেলা আওয়ামী লীগ, উপজেলা যুবলীগ, ছাত্রলীগ, কৃষকলীগ, শ্রমিক লীগের মধ্যে বিভিন্ন দলে বিভক্ত হয়েছে। উপজেলা ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা শামীম আহমেদ সাগরের পক্ষে প্রচারণা চালাচ্ছেন। তাছাড়া সাধারণ ভোটাররা বলছেন শহীদ মমতাজ উদ্দিনের রক্তের ঋণ শোধ করার সময় এসেছে।
লালপুর উপজেলার দশটি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভার সাবেক ও বর্তমান মিলে আটজন ইউপি চেয়ারম্যান শামীম আহমেদ সাগরের পক্ষে কাজ করায় কাপ পিরিচ মার্কার ভোটারদের মাঝে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে বলে মনে করছেন সাধারণ ভোটাররা।
বিলমাড়িয়া ইউনিয়নের বাসিন্দা মো. সাহাবুল হোসেন বলেন, গত নির্বাচনের চেয়ে এবার নির্বাচনে প্রার্থীদের যোগ্যতা অনেক বেশি। এবার আমাদের জন্য যোগ্য প্রার্থী নির্বাচন করা অনেক সহজ। আশা করছি সুষ্ঠু নির্বাচন হলে পছন্দের প্রার্থীকে নির্বাচিত করতে পারবো। যিনি জনগণের পাশে থাকবেন আমরা তাকেই নির্বাচিত করব।
ওয়ালিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নুরে আলম সিদ্দিক ও আড়বাব ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রভাষক মকলেছুর রহমান বলেন, উপজেলা নির্বাচনে যিনি আমাদের খুব কাছাকাছি থাকেন আমরা তার পক্ষে নির্বাচন করব। এখন পর্যন্ত কাপ পিরিচ প্রার্থী অনেকবার আমাদের কাছে এসেছেন। সেজন্য আমরা সবাই তার নির্বাচনী প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছি। আশা করছি তিনি এবার উপজেলা চেয়ারম্যান হবেন।
লালপুর উপজেলা বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক মরহুম আব্দুর রাজ্জাক মাস্টারের পুত্র উপজেলা বিএনপি যুগ্ন আহ্বায়ক আরিফুর রহমান কৈ মাছ মার্কা প্রতীকে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করছেন। বিএনপির কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করায় তাকে বহিষ্কার করা হয়েছে।
এছাড়া চেয়ারম্যান পদে প্রচারণা চালাচ্ছেন আফতাব হোসেন ঝুলফু (দোয়াত কলম), মো. ইসাহাক আলী (আনারস), আমিনুল ইসলাম জয় (ঘোড়া) ও মো. হাসেম আলী (মোটরসাইকেল)। ভাইস চেয়ারম্যান পদে মো. মনোয়ার হোসেন (উড়োজাহাজ), মো. কামরুল ইসলাম (তালা), মো. তৌহিদুল ইসলাম (টিউবয়েল)। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে মোছা. পারভীন আক্তার বানু (ফুটবল), মোছা. লাবনী সুলতানা (কলস), মোছা. মাহাফুজা খাতুন (বৈদ্যুতিক পাখা)।
উল্লেখ্য, আগামী ২১ মে ২য় ধাপে লালপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। উপজেলার ১০টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভায় মোট ৮৪টি কেন্দ্র রয়েছে। ভোটার সংখ্যা পুরুষ –  ১,২৫,৭৯০ জন, মহিলা – ১,১৬,৮৫৫ জন।
Tag :
এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

ঢাকায় সংবাদ সম্মেলনে কান্নাজড়িত কণ্ঠে আঞ্জুমান আরা

error: Content is protected !!

লালপুর উপজেলা নির্বাচন প্রচারণায় এগিয়ে শহীদ মমতাজ উদ্দিনের পুত্র শামীম আহমেদ সাগর

আপডেট টাইম : ০৬:১৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ মে ২০২৪
নাটোরের লালপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনী প্রচারণা জমে উঠেছে। বিএনপি ও আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা রাত-দিন ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে ভোট চাচ্ছেন। নবীন ও প্রবীণ মিলে চেয়ারম্যান পদে ৬ জন প্রার্থী মাঠে লড়ছেন। এর মধ্যে এগিয়ে আছেন কাপ পিরিচ প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তরুণ নেতা আলহাজ শামীম আহমেদ সাগর। তিনি সাবেক সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা একুশে পদকপ্রাপ্ত শহীদ মমতাজ উদ্দিন ও সাবেক সংসদ সদস্য শেফালী মমতাজের পুত্র।
এদিকে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে জেলা আওয়ামী লীগ, উপজেলা আওয়ামী লীগ, উপজেলা যুবলীগ, ছাত্রলীগ, কৃষকলীগ, শ্রমিক লীগের মধ্যে বিভিন্ন দলে বিভক্ত হয়েছে। উপজেলা ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা শামীম আহমেদ সাগরের পক্ষে প্রচারণা চালাচ্ছেন। তাছাড়া সাধারণ ভোটাররা বলছেন শহীদ মমতাজ উদ্দিনের রক্তের ঋণ শোধ করার সময় এসেছে।
লালপুর উপজেলার দশটি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভার সাবেক ও বর্তমান মিলে আটজন ইউপি চেয়ারম্যান শামীম আহমেদ সাগরের পক্ষে কাজ করায় কাপ পিরিচ মার্কার ভোটারদের মাঝে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে বলে মনে করছেন সাধারণ ভোটাররা।
বিলমাড়িয়া ইউনিয়নের বাসিন্দা মো. সাহাবুল হোসেন বলেন, গত নির্বাচনের চেয়ে এবার নির্বাচনে প্রার্থীদের যোগ্যতা অনেক বেশি। এবার আমাদের জন্য যোগ্য প্রার্থী নির্বাচন করা অনেক সহজ। আশা করছি সুষ্ঠু নির্বাচন হলে পছন্দের প্রার্থীকে নির্বাচিত করতে পারবো। যিনি জনগণের পাশে থাকবেন আমরা তাকেই নির্বাচিত করব।
ওয়ালিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নুরে আলম সিদ্দিক ও আড়বাব ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রভাষক মকলেছুর রহমান বলেন, উপজেলা নির্বাচনে যিনি আমাদের খুব কাছাকাছি থাকেন আমরা তার পক্ষে নির্বাচন করব। এখন পর্যন্ত কাপ পিরিচ প্রার্থী অনেকবার আমাদের কাছে এসেছেন। সেজন্য আমরা সবাই তার নির্বাচনী প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছি। আশা করছি তিনি এবার উপজেলা চেয়ারম্যান হবেন।
লালপুর উপজেলা বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক মরহুম আব্দুর রাজ্জাক মাস্টারের পুত্র উপজেলা বিএনপি যুগ্ন আহ্বায়ক আরিফুর রহমান কৈ মাছ মার্কা প্রতীকে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করছেন। বিএনপির কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করায় তাকে বহিষ্কার করা হয়েছে।
এছাড়া চেয়ারম্যান পদে প্রচারণা চালাচ্ছেন আফতাব হোসেন ঝুলফু (দোয়াত কলম), মো. ইসাহাক আলী (আনারস), আমিনুল ইসলাম জয় (ঘোড়া) ও মো. হাসেম আলী (মোটরসাইকেল)। ভাইস চেয়ারম্যান পদে মো. মনোয়ার হোসেন (উড়োজাহাজ), মো. কামরুল ইসলাম (তালা), মো. তৌহিদুল ইসলাম (টিউবয়েল)। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে মোছা. পারভীন আক্তার বানু (ফুটবল), মোছা. লাবনী সুলতানা (কলস), মোছা. মাহাফুজা খাতুন (বৈদ্যুতিক পাখা)।
উল্লেখ্য, আগামী ২১ মে ২য় ধাপে লালপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। উপজেলার ১০টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভায় মোট ৮৪টি কেন্দ্র রয়েছে। ভোটার সংখ্যা পুরুষ –  ১,২৫,৭৯০ জন, মহিলা – ১,১৬,৮৫৫ জন।