ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ৫ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রতিনিধি নিয়োগ
দৈনিক সময়ের প্রত্যাশা পত্রিকার জন্য সারা দেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ করা হচ্ছে। আপনি আপনার এলাকায় সাংবাদিকতা পেশায় আগ্রহী হলে যোগাযোগ করুন।

হাটবাড়ীয়ায় হাইকোর্টের রায় অগ্রাহ্য করে জমি দখল

রাজবাড়ী জেলা সদরের খানগঞ্জ  ইউনিয়নের হাটবাড়ী এলাকায়  মহামান্য হাইকোর্টের আদেশ অমান্য করে জমি দখল করেছে একদল দূর্বত্ত। দখলের সময় দুর্বৃত্তরা কৃষকের পাকা গমে আগুন দিয়েছে বলেও অভিযোগ উঠেছে।  শুক্রবার সকালে এই ঘটনা ঘটেছে।
ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকের নাম আলামিন  ওরফে মন্টু (৫৫)। সে হাটবাড়ীয়া গ্রামের ছকির উদ্দিনের ছেলে।
আলামিন  ওরফে মন্টু জানায়, সে দরিদ্র কৃষক। জেলা সদরের হাটবাড়ী মৌজার  ৪২৫ নং খতিয়ানের  ৪৯ নং দাগের ৫৭ শতাংশ, খোশবাড়ী মৌজার ২২৯, ২৭৮, ২৭৯, ৩১৪ নং খতিয়ানের ৪৯৯, ৫৩১, ৫০৪, ৫২২, ৫২৩, ৫২৪, ৫২৫, ৫২৬, ৫৩০ নং দাগের ২৪০ শতাংশ  এবং ঘুঘুশাইল মৌজার ১৬, ৬৬, ৬৭, ৬৯ নং খতিয়ানের ১০, ১৫, ১৬, ১৭, ২৭, ২৩, ২৫, ১৪, ৪৮, ৪৯, ৫০, ৫১ ও ৪৪ নং দাগের ২৩২ শতাংশ  জমি তার পৈতৃিক ও ক্রয়কৃত।
ইতিপূর্বে জমি সমূহ নিয়ে হাইকোর্টে একটি মামলাও ছিলো। ইতিমধ্যে হাইকোর্টের মামলাটির আমার পক্ষে রায় হয়েছে।  সেই অনুযায়ী দেওয়ানী কার্যবিধি আইনের ২০ অর্ডার ৬ ও ৭ নং রুল অনুসারে রাজবাড়ী জেলা বিজ্ঞ আদালত আমার জমি পরিমাপ করে বুঝে দেয়।
এরই মাঝে  শুক্রবার সকালে  হারুন, মামুন, সূর্য, রমজান, বারেক, আফজাল, সজিব, আইনদ্দিন, জহির ও লালচাদ সহ ৩০/৪০ জন দুর্বত্ত আমার জমিতে প্রবেশ করে বপনকৃত ফসল ভাংচুর ও পাকা গমে আগুন জ্বালিয়ে দেয়। দেশি অস্ত্র সজ্জিত এই দুর্বত্তরা আমার বাড়ীর মেয়েদের জীবন নাশের ভয় দেখায়।
আলামিনের মেয়ে জান্নাতী জানায়, দুর্বত্তরা আমাকে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করে। তারা আমার মেরে ফেলার হুমকি দেয়।
এ ব্যাপারে আলামিন ওরফে মন্টু রাজবাড়ী সদর থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে।
Tag :
এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

জনপ্রিয় সংবাদ
error: Content is protected !!

হাটবাড়ীয়ায় হাইকোর্টের রায় অগ্রাহ্য করে জমি দখল

আপডেট টাইম : ০৬:৪৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৯ মার্চ ২০২৪
রাজবাড়ী জেলা সদরের খানগঞ্জ  ইউনিয়নের হাটবাড়ী এলাকায়  মহামান্য হাইকোর্টের আদেশ অমান্য করে জমি দখল করেছে একদল দূর্বত্ত। দখলের সময় দুর্বৃত্তরা কৃষকের পাকা গমে আগুন দিয়েছে বলেও অভিযোগ উঠেছে।  শুক্রবার সকালে এই ঘটনা ঘটেছে।
ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকের নাম আলামিন  ওরফে মন্টু (৫৫)। সে হাটবাড়ীয়া গ্রামের ছকির উদ্দিনের ছেলে।
আলামিন  ওরফে মন্টু জানায়, সে দরিদ্র কৃষক। জেলা সদরের হাটবাড়ী মৌজার  ৪২৫ নং খতিয়ানের  ৪৯ নং দাগের ৫৭ শতাংশ, খোশবাড়ী মৌজার ২২৯, ২৭৮, ২৭৯, ৩১৪ নং খতিয়ানের ৪৯৯, ৫৩১, ৫০৪, ৫২২, ৫২৩, ৫২৪, ৫২৫, ৫২৬, ৫৩০ নং দাগের ২৪০ শতাংশ  এবং ঘুঘুশাইল মৌজার ১৬, ৬৬, ৬৭, ৬৯ নং খতিয়ানের ১০, ১৫, ১৬, ১৭, ২৭, ২৩, ২৫, ১৪, ৪৮, ৪৯, ৫০, ৫১ ও ৪৪ নং দাগের ২৩২ শতাংশ  জমি তার পৈতৃিক ও ক্রয়কৃত।
ইতিপূর্বে জমি সমূহ নিয়ে হাইকোর্টে একটি মামলাও ছিলো। ইতিমধ্যে হাইকোর্টের মামলাটির আমার পক্ষে রায় হয়েছে।  সেই অনুযায়ী দেওয়ানী কার্যবিধি আইনের ২০ অর্ডার ৬ ও ৭ নং রুল অনুসারে রাজবাড়ী জেলা বিজ্ঞ আদালত আমার জমি পরিমাপ করে বুঝে দেয়।
এরই মাঝে  শুক্রবার সকালে  হারুন, মামুন, সূর্য, রমজান, বারেক, আফজাল, সজিব, আইনদ্দিন, জহির ও লালচাদ সহ ৩০/৪০ জন দুর্বত্ত আমার জমিতে প্রবেশ করে বপনকৃত ফসল ভাংচুর ও পাকা গমে আগুন জ্বালিয়ে দেয়। দেশি অস্ত্র সজ্জিত এই দুর্বত্তরা আমার বাড়ীর মেয়েদের জীবন নাশের ভয় দেখায়।
আলামিনের মেয়ে জান্নাতী জানায়, দুর্বত্তরা আমাকে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করে। তারা আমার মেরে ফেলার হুমকি দেয়।
এ ব্যাপারে আলামিন ওরফে মন্টু রাজবাড়ী সদর থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে।