ঢাকা , সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২৪ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
খোকসায় অবশেষে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে অসহায় বৃদ্ধ হারুন-অর-রশিদ প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়নের ঘর ফিরে পেলেন ১ লক্ষ ২৯ হাজার টাকা পরিশোধ না করায় নড়াইলে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষন অধিদপ্তরে প্রতারনার অভিযোগ করে নিজেই প্রতারনায় ফেঁসে গেলেন জামী সাংবাদিক নড়াইলের লোহাগড়ার দুই সন্তানের জননী কে গলা কেটে হত্যার অভিযোগ নড়াইলে দুগ্রুপের সংঘর্ষে অন্তত ১২জন আহত বাস্তব কাহিনীতে ইউএনও’র লেখায় নির্মিত হচ্ছে নাটক ‘স্বপ্নের ঠিকানা’ সালথায় ঘরের আড়ার সঙ্গে ঝুলছিল গৃহবধূর মরদেহ,পরিবারের দাবি হত্যা ভালোবাসা দিবসে উপহার নিয়ে এলো ইনফিনিক্স লাভ ফেস্ট জাতীয় গ্রন্থগার দিবস উপলক্ষে আলফাডাঙ্গায় গুণীজন সংবর্ধনা সক্ষম সবাইকে কর প্রদানের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর শ্রীলঙ্কাকে দেওয়া ঋণ সেপ্টেম্বরে ফেরত পাওয়ার আশায় মোমেন

কোটচাঁদপুরে একের পর এক চুরির ঘটনায় অতিষ্ট এলাকাবাসি, এবার এক রাতেই ৪ দোকানে চুরি!

ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর পৌর শহরে এক রাতেই ৪ দোকানে চুরির ঘটনা ঘটেছে। চোর চক্র এসময় ৪টি দোকান থেকে নগদ ২০ হাজার টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। রবিবার (১৩,০২,২০২১)) রাতে পৌর শহরের চৌগাছা বাসষ্টান্ডের মুনিয়া ভ্যারাইটিস ষ্টোর, বিদ্যুৎ অফিস সংলগ্ন এলাকায় খন্দকার ষ্টোর ও টেলিকম , হাইস্কুল রোড এলাকায় সোনালী প্রেস ও মেইন বাসষ্টান্ড এলাকায় সনি আবাসিক মার্কেটের নিলিমা ইলেকট্রনিক্সে এই চুরির ঘটনা ঘটে।

ধারণা করা হচ্ছে রাতের কোন এক সময় সংঘবদ্ধ চোর চক্র দোকানের শাটার ও দেয়ালের ভেন্টিলেটার ভেঙ্গে চুরি করে পালিয়ে যায়। বিভিন্ন সময়ে চুরির ঘটনায় ধরা ছোয়ার বাহিরে চক্রের সদস্যরা. অভিযোগ করেও মিলছে না কোন প্রতিকার।

ফলে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে ব্যবসায়ী ও সাধারণ মানুষের মাঝে। ভুক্তভোগী ব্যবসায়ীরা জানায়, প্রতিদিনের ন্যায় শনিবার দিনগত রাতে দোকান বন্ধ করে বাড়িতে যায়। রবিবার সকালে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে এসেই দেখতে পায় ক্যাশ বাক্স ভাঙা অবস্থায় পড়ে আছে।

চোর চক্র একই রাতে শহরের মুনিয়া ভ্যারাইটিস ষ্টোর, খন্দকার ষ্টোর ও টেলিকম, সোনালী প্রেস এবং নিলিমা ইলেকট্রনিক্সে চুরি সংঘটিত করে নগদ ২০ হাজার টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়।

স্থানীয়রা অভিযোগ করে বলেন, বিভিন্ন সময় সড়ক-বাসা-বাড়ি ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে চুরি-ছিনতাই সংঘটিত হয়েছে। যার অধিকাংশ ঘটনা পৌর শহরের মধ্যে। এ সব ঘটনার কোন প্রতিকার না হওয়ায় এমন চুরি-ছিনতাই প্রায় ঘটছে।

এবিষয়ে কোটচাঁদপুর পৌর ফাঁড়ী ইনচার্জ আক্তারুজ্জামান লিটনের সঙ্গে তিনি জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। চুরির ঘটনায় লিখিত অভিযোগ হয়েছে। একের পর এক চুরির ঘটনার বিষয়ে তিনি বলেন, মনে হয় এরা পেশাদার চোর না।

একটি কুচক্রি মহল আইন-শৃঙ্খলা অবনতি ও শহর ঊত্তপ্ত করার জন্য বিভিন্ন সময়ে এমন চুরির ঘটনা ঘটাচ্ছে। পুলিশের পক্ষ থেকে শহরে নজরদারী ও টহল বাড়ানো হয়েছে। সেই সাথে চোর চক্রের সদস্যদের গ্রেফতারে পুলিশি অভিযান অব্যহত রয়েছে বলেও জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।

Tag :

এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

খোকসায় অবশেষে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে অসহায় বৃদ্ধ হারুন-অর-রশিদ প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়নের ঘর ফিরে পেলেন

error: Content is protected !!

কোটচাঁদপুরে একের পর এক চুরির ঘটনায় অতিষ্ট এলাকাবাসি, এবার এক রাতেই ৪ দোকানে চুরি!

আপডেট টাইম : ০৫:৩১ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১

ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর পৌর শহরে এক রাতেই ৪ দোকানে চুরির ঘটনা ঘটেছে। চোর চক্র এসময় ৪টি দোকান থেকে নগদ ২০ হাজার টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। রবিবার (১৩,০২,২০২১)) রাতে পৌর শহরের চৌগাছা বাসষ্টান্ডের মুনিয়া ভ্যারাইটিস ষ্টোর, বিদ্যুৎ অফিস সংলগ্ন এলাকায় খন্দকার ষ্টোর ও টেলিকম , হাইস্কুল রোড এলাকায় সোনালী প্রেস ও মেইন বাসষ্টান্ড এলাকায় সনি আবাসিক মার্কেটের নিলিমা ইলেকট্রনিক্সে এই চুরির ঘটনা ঘটে।

ধারণা করা হচ্ছে রাতের কোন এক সময় সংঘবদ্ধ চোর চক্র দোকানের শাটার ও দেয়ালের ভেন্টিলেটার ভেঙ্গে চুরি করে পালিয়ে যায়। বিভিন্ন সময়ে চুরির ঘটনায় ধরা ছোয়ার বাহিরে চক্রের সদস্যরা. অভিযোগ করেও মিলছে না কোন প্রতিকার।

ফলে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে ব্যবসায়ী ও সাধারণ মানুষের মাঝে। ভুক্তভোগী ব্যবসায়ীরা জানায়, প্রতিদিনের ন্যায় শনিবার দিনগত রাতে দোকান বন্ধ করে বাড়িতে যায়। রবিবার সকালে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে এসেই দেখতে পায় ক্যাশ বাক্স ভাঙা অবস্থায় পড়ে আছে।

চোর চক্র একই রাতে শহরের মুনিয়া ভ্যারাইটিস ষ্টোর, খন্দকার ষ্টোর ও টেলিকম, সোনালী প্রেস এবং নিলিমা ইলেকট্রনিক্সে চুরি সংঘটিত করে নগদ ২০ হাজার টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়।

স্থানীয়রা অভিযোগ করে বলেন, বিভিন্ন সময় সড়ক-বাসা-বাড়ি ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে চুরি-ছিনতাই সংঘটিত হয়েছে। যার অধিকাংশ ঘটনা পৌর শহরের মধ্যে। এ সব ঘটনার কোন প্রতিকার না হওয়ায় এমন চুরি-ছিনতাই প্রায় ঘটছে।

এবিষয়ে কোটচাঁদপুর পৌর ফাঁড়ী ইনচার্জ আক্তারুজ্জামান লিটনের সঙ্গে তিনি জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। চুরির ঘটনায় লিখিত অভিযোগ হয়েছে। একের পর এক চুরির ঘটনার বিষয়ে তিনি বলেন, মনে হয় এরা পেশাদার চোর না।

একটি কুচক্রি মহল আইন-শৃঙ্খলা অবনতি ও শহর ঊত্তপ্ত করার জন্য বিভিন্ন সময়ে এমন চুরির ঘটনা ঘটাচ্ছে। পুলিশের পক্ষ থেকে শহরে নজরদারী ও টহল বাড়ানো হয়েছে। সেই সাথে চোর চক্রের সদস্যদের গ্রেফতারে পুলিশি অভিযান অব্যহত রয়েছে বলেও জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।